গাইবান্ধায় প্রতিমা তৈরিতে ব্যস্ত কারিগররা

আগামী ৭ অক্টোবর থেকে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা শুরু হবে। এ উপলক্ষে মণ্ডপগুলোতে প্রতিমা তৈরিতে ব্যস্ত সময় পার করছেন গাইবান্ধার কারিগররা।

গোবিন্দগঞ্জ পৌর এলাকার শহরের ধানহাটি কেন্দ্রীয় দুর্গা মণ্ডপে প্রতিমা তৈরিতে ব্যস্ত কারিগর শ্রী মৃণাল কান্তি। তিনি জানান, দুর্গাপূজা উদযাপনের দেড় মাস আগে থেকে বিভিন্ন স্থানে প্রতিমা তৈরির কাজ শুরু হয়েছে। শহরের মণ্ডপগুলোতে বড় করে মূর্তি তৈরি করা হয়। একটি বড় মূর্তি তৈরি করতে সময় লাগে পাঁচদিন। গ্রামের মণ্ডপগুলোতে সাধারণত মূর্তি ছোট আকারে তৈরি করা হয়। এক একটি ছোট মূর্তি তৈরি করতে তিনদিন সময় লাগে।

তিনি আরো জানান, এখন মূর্তি তৈরির কাজ করা হচ্ছে। এরপর রং করা হবে। সবকাজ শেষে নির্দিষ্ট সময়ের আগেই মণ্ডপের প্রতিমা বসানো হবে।

ওই মণ্ডপের পুরোহিত পৌর এলাকার ঠাকুরপাড়ার বাসিন্দা শ্রী মনিন্দ্রনাথ ভট্টচার্য জানান, সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব হচ্ছে শারদীয় দুর্গাপূজা। প্রতি বছরের মতো এবারও এ উৎসবটি জাকজমকভাবে উদযাপন করা হবে বলে আশা করেন তিনি।
গাইবান্ধা জেলা পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি শ্রী রনজিত বকশি সূর্য জানান, এবার জেলার কোনো উপজেলায় কতটি মণ্ডপে শারদীয় দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হবে, তা এখনি বলা যাচ্ছে না। তবে কয়েকদিনের  মধ্যেই দুর্গাপূজা মণ্ডপের সংখ্যা নির্ধারণ করা হবে।
জেলা এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট ফাতিমাতুজহুর জানান, এবার কতটি মণ্ডপে দুর্গাপূজা উদযাপন হবে তা এই মুহুর্তে নিশ্চিত করা যাচ্ছে না। তবে ২৭ সেপ্টেম্বর পূজা সংক্রান্ত মিটিং রয়েছে। মিটিং শেষে বিষয়টি নিশ্চিত করা হবে।


শীতের শুরুতেই চমেকে ঠাণ্ডাজনিত শিশু
শীতের আগমনী বার্তায় ঠাণ্ডা পড়তে শুরু করেছে পাহাড় আর সাগরে
বিস্তারিত
বাবার সাথে গড়ে উঠুক সন্তানের
সময়ের দাবির কারণে কিছুটা পরিবর্তন এলেও এখনো দেখা যায় যে,
বিস্তারিত
বিশ্বে প্রতিদিন প্রায় ৭ হাজার
আজকের শিশু আগামীর ভবিষ্যত। তারপরও প্রতিদিন জন্মের পরই অনেক শিশু
বিস্তারিত
শিশুর বেড়ে উঠাতে সহায়ক খাবার
লম্বা হওয়ার ব্যপারটি সম্পূর্ণ জেনেটিক- এ কথা আমরা সবাই জানি।
বিস্তারিত
গোপালের কৃষ্ণপ্রাপ্তি
মহারাজ কৃষ্ণচন্দ্রের কাছ থেকে গোপাল মাঝে মাঝে নানান অভাব-অনটনের কথা
বিস্তারিত
গরু হারালে এমনই হয়, মা
গোপালের একবার একটি গরু হারিয়ে গিয়েছিল। চৈত্রের কাঠ ফাটা রোদ্দুরে
বিস্তারিত