শেষ হলো তথ্যপ্রযুক্তির ওয়ার্ল্ড কংগ্রেস

তথ্যপ্রযুক্তির বিশ্ব সম্মেলন ‘ওয়ার্ল্ড কংগ্রেস অন ইনফরমেশন টেকনোলজি (WCIT)’ উৎসাহ-উদ্দীপনা ও জাঁকজমকপূর্ণভাবে অনুষ্ঠিত হলো ব্রাজিলের রাজধানী ব্রাজিলিয়ায়। ৩ থেকে ৫ অক্টোবর সিআইসিবি আন্তর্জাতিক কনভেনশন সেন্টারে অনুষ্ঠিত সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ব্রাজিলের বিজ্ঞান এবং প্রযুক্তিমন্ত্রী গিলবার্তো কাসাব এবং বিশেষ অতিথি ছিলেন ফেডারেল ডিস্ট্রিক্ট অব ব্রাসিলিয়ার গভর্নর রদরিগো রোলেম বার্গ।
উল্লেখ্য, বিশ্ব আইটি সংস্থা ‘ইনফরমেশন টেকনোলজি অ্যান্ড সার্ভিস অ্যালায়েন্স’ ১৯৭৮ সাল থেকে প্রতি দুই বছর অন্তর বিশ্বের বিভিন্ন দেশে তথ্যপ্রযুক্তির এ বিশ্ব সম্মেলন আয়োজন করে থাকে। সংশ্লিষ্ট দেশে উইটসার সদস্য অ্যাসোশিয়েশন এ সম্মেলন আয়োজনের ব্যবস্থাপনা করে থাকে। তারই অংশ হিসেবে এ বছর ব্রাজিলের তথ্যপ্রযুক্তি সংশ্লিষ্ট অ্যাসোশিয়েশন (ASSESPRO) WCIT ২০১৬ আয়োজন করে।
বিশ্বের ৮২টি দেশ থেকে প্রায় আড়াই হাজার লোক এ সম্মেলনে অংশগ্রহণ করে। বিশ্ব স্বীকৃত ৬০ জনের অধিক আইটি বিশেষজ্ঞ, তথ্যপ্রযুক্তিবিদ, ব্যবসায়ী, সরকারি কর্মকর্তা, উদ্যোক্তা এবং শিক্ষার্থীরা আধুনিক বিশ্ব এবং উন্নত ব্যবসা সম্পর্কে নিজেদের মতামত প্রদান করেন এ সম্মেলনে। ধারণা করা যাচ্ছে, এ সম্মেলনে ভবিষ্যতে বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগের ক্ষেত্র সৃষ্টি হয়েছে।
বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি (বিসিএস) আইসিটি ডিভিশন এবং আইসিটি বিজনেস প্রমোশন কাউন্সিলের সহায়তায় ২৩ সদস্যের একটি দল ওয়ার্ল্ড ইনফরমেশন টেকনোলজি অ্যান্ড সার্ভিস অ্যালায়েন্সের সদস্য হিসেবে এ সম্মেলনে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করে। এবারের সম্মেলনে বিসিএস এবং ইনফরমেশন সার্ভিস ইন্ডাস্ট্রি অ্যাসোশিয়েশন অব চায়নিজ তাইপের মধ্যে একটি দ্বিপক্ষীয় চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।
বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতির সভাপতি আলী আশফাক এবং সিসা চেয়ারম্যান ওয়াইভন্নি চিউ নিজেদের প্রতিষ্ঠানের পক্ষে চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন। বাংলাদেশ প্রতিনিধিদের আয়োজনে একটি বিজনেস টু বিজনেস মিটিংয়ে এ চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। তাইওয়ানের অর্থনীতিবিষয়ক ভাইস মিনিস্টার ইয়াং উয়েই ফুসহ তাইওয়ান প্রতিনিধি দল চুক্তি সই কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন।
এ সম্মেলনে বাংলাদেশের উল্লেখযোগ্য সফলতার মধ্যে ছিল, বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতির সাবেক সভাপতি এবং বর্তমান কমিটির উপদেষ্টা সবুর খান আবার ওয়ার্ল্ড ইনফরমেশন টেকনোলজি অ্যান্ড সার্ভিস অ্যালায়েন্সের পরিচালক হিসেবে পুনর্নির্বাচিত হওয়া এবং দ্বিতীয়বারের মতো তিনি গ্লোবাল ট্রেড কমিটির চেয়ারম্যান হওয়ার কৃতিত্ব অর্জন করেন। উইটসার ইতিহাসে খুব কম সংখ্যক পরিচালক দ্বিতীয়বারের মতো গ্লোবাল ট্রেডের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। এ সম্মান তথ্যপ্রযুক্তির ক্ষেত্রে বিশ্বাঙ্গনে বাংলাদেশের নাম একটি অনন্য মর্যাদায় নিয়ে গেছে।
WCIT সম্মেলনে ইন্টারনেটের জনক ভিন্টন গ্রে চের্ফের সঙ্গে বাংলাদেশের প্রতিনিধিদের সৌজন্য সাক্ষাৎ হয়। যিনি ভিন্ট কার্ট নামে পরিচিত। তিনি বাংলাদেশের আইসিটি খাতের উন্নতি দেখে উৎসাহ প্রদর্শন করেন এবং ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ উদ্যোগকে স্বাগত জানান। ডব্লিউসিআইটি-২০১৬তে বাংলাদেশের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণ দেশের জন্য মর্যাদা বয়ে এনেছে। ওয়ার্ল্ড কংগ্রেসে বাংলাদেশ প্যাভেলিয়নে আইসিটি মন্ত্রণালয় এবং বিসিএসের ভিডিও প্রেজেন্টেশন প্রদর্শন করা হয়েছে। ডিজিটাল বাংলাদেশের অগ্রগতি দর্শকরা বেশ আগ্রহের সঙ্গে উপভোগ করেছেন।


‘জাতীয় উন্নয়নে অন্যতম চালিকা শক্তি
তথ্যপ্রযুক্তি পরামর্শক ও সফটওয়্যার সল্যুশন কোম্পানি ইজেনারেশন শনিবার রাজধানীর ব্র্যাক
বিস্তারিত
ফাইভজি চিপ দেখালো ইন্টেল
১০ ন্যানোমিটারের ফাইভজি চিপ দেখিয়েছে ইন্টেল। চিপটির কোড নেইম দেওয়া
বিস্তারিত
জুনাইদ আহমেদ পলককে সংবর্ধনা জানালো
সরকারের তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী হিসেবে পুনরায় দায়িত্ব গ্রহণ উপলক্ষে জুনাইদ
বিস্তারিত
হুয়াওয়ে ওয়াই নাইন ২০১৯
বর্তমান সময়টিকে চাইলেই অনায়াসে তথ্যপ্রযুক্তির পাশাপাশি স্মার্টফোনের যুগও বলা যায়।
বিস্তারিত
চলছে স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলা
বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা থেকে চলছে রাজধানীর আগারগাঁওয়ের বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন
বিস্তারিত
বাংলাদেশে লামুদি অধিগ্রহণ করল বিপ্রপার্টি
প্রপার্টি পোর্টাল ‘লামুদি ডটকম ডটবিডি’ অধিগ্রহণ করার ঘোষণা দিয়েছে দেশের
বিস্তারিত