রফিকুজ্জামান রণি নদী

নদী ভাঙে না, পাড় ভাঙে
ভাঙে ঘর, সংসার এবং বিশ্বাস,
আমরা কেবল নদীকেই দোষারোপ করি
আর দুঃখিত কণ্ঠে বলি
ভাঙে নদী, কাঁদে দেশ,
দিনদুনিয়ার স্বপ্ন শেষ!

নদীও যে কাঁদতে জানে, কুমিরে কান্না
সে কান্না অট্টহাসিও বলা যায়
বুকে তার জল নাচে তা-তা-থৈ-থৈ,
ওটা মূলত তার নিজস্ব জল নয়;
ওসব তো অশ্রু, ঘাম এবং মানুষের রক্ত!

নদী গান গাইতে শিখেনি কোনোকালেই
কলকল শব্দতরঙ্গ মূলত গানের কোরাস নয়
ওসব যে কুলমান হারা মানুষের আর্তনাদ
আদতে রাক্ষুসী নদীর তৃপ্তশ্বাস!

জীবন্ত নদীর চঞ্চলতায় মুগ্ধ হই আমরা।
অথচ নদীর কোনো প্রাণ নেই, গান নেই
নিষ্প্রাণ নদীকে মানুষই তো দেয় প্রাণ
আর মানুষই তো করে হত্যা!


আরব ছোটগল্পের রাজকুমারী
সামিরা আজ্জম ১৯২৬ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর ফিলিস্তিনের আর্কে একটি গোঁড়া
বিস্তারিত
অমায়ার আনবেশে
সাদা মুখোশে থাকতে গেলে ছুড়ে দেওয়া কালি  হয়ে যায় সার্কাসের রংমুখ, 
বিস্তারিত
শারদীয় বিকেল
ঝিরিঝিরি বাতাসের অবিরাম দোলায় মননের মুকুরে ফুটে ওঠে মুঠো মুঠো শেফালিকা
বিস্তারিত
গল্পের পটভূমি ইতিহাস ও বর্তমানের
গল্পের বই ‘দশজন দিগম্বর একজন সাধক’। লেখক শাহাব আহমেদ। বইয়ে
বিস্তারিত
ধোঁয়াশার তামাটে রঙ
দীর্ঘ অবহেলায় যদি ক্লান্ত হয়ে উঠি বিষণœ সন্ধ্যায়Ñ মনে রেখো
বিস্তারিত
নজরুলকে দেখা
আমাদের পরম সৌভাগ্য, এই উন্নত-মস্তকটি অনেক দেরিতে হলেও পৃথিবীর নজরে
বিস্তারিত