ঐতিহ্যের নিদর্শন

মা জা খাসিরাল আলামু বিনহিতাতিল মুসলিমিন

উপমহাদেশের খ্যাতনামা আলেম, লেখক, চিন্তাবিদ  সাইয়্যেদ আবুল হাসান আলী নদভি (রহ.) কর্তৃক ‘মা জা খাসিরাল আলামু বিনহিতাতিল মুসলিমিন’ আরবি ভাষায় রচিত বিশ্বব্যাপী আলোড়ন সৃষ্টিকারী চিন্তাসমৃদ্ধ অনবদ্য একটি গ্রন্থ। এ গ্রন্থে লেখক মুসলমানদের উত্থান ও পতনে বিশ্বে কী প্রভাব পড়েছে তার ঐতিহাসিক বিশ্লেষণ, অধঃপতনের কারণ, কীভাবে তারা আবার বিশ্ব নেতৃত্ব ফিরে পেতে পারেÑ এ ব্যাপারে মুসলমানদের দায়িত্ব ও কর্তব্য কী, তার সঠিক দিকনির্দেশনা এবং মুসলিমদের উত্থান আবারও পুরো মানবজাতির জন্য কেন গুরুত্বপূর্ণ, তা অত্যন্ত প্রাঞ্জল ভাষায় উপস্থাপন করেছেন।
পৃথিবীর বুকে মুসলমানদের উত্থান তথা ইসলামী বিপ্লবের শ্রেষ্ঠত্ব ও তার বিস্ময়কর অথচ কৃতিত্বপূর্ণ অবদান বোঝাতে লেখক এ গ্রন্থে জাহেলি যুগ অর্থাৎ সর্বশেষ নবী ও রাসুল মুহাম্মদ (সা.) এর আবির্ভাবের আগে পৃথিবীর অবস্থাÑ ধর্মীয়, নৈতিক, সামাজিক ও অর্থনৈতিক পরিবেশের চিত্র তুলে ধরেছেন। জাহেলি যুগ সম্পর্কে প্রয়োজনীয় এবং বিভিন্ন দুষ্প্রাপ্য তথ্য-উপাত্ত উপস্থাপনের মাধ্যমে গ্রন্থটি সমৃদ্ধ করেছেন। এ গ্রন্থের একটি গুরুত্বপূর্ণ ও অপরিহার্য বিষয় হচ্ছে রাসুল (সা.) এর আবির্ভাবের প্রভাব ও প্রতিক্রিয়া এবং ইসলামী দাওয়াতের বৈশিষ্ট্যগুলোÑ দাওয়াতের মেজাজ ও এর কর্মপন্থা, নবী-রাসুলরা কীভাবে অধঃপতিত পৃথিবীর সংস্কার এবং সংশোধন করতেন। দাওয়াতের ধরন, দাওয়াতের প্রতিক্রিয়া, দাওয়াতের মোকাবিলায় জাহেলিয়াতের অবস্থান, নবী-রাসুল তাদের অনুসারীদের প্রশিক্ষণ দান, তাদের দাওয়াতের বিজয় লাভ ও এর প্রভাব-প্রতিক্রিয়া এবং পরিণতি সম্পর্কে বর্ণনা রয়েছে।
লেখক এ গ্রন্থে মুসলমানদের অধঃপতন, দুনিয়ার নেতৃত্ব ও কর্তৃত্ব থেকে সরে যাওয়ার কারণে মানবজাতির কী ক্ষতি হয়েছে, তা চিহ্নিত করেছেন এবং দেখিয়েছেন পৃথিবীর মানচিত্রে এবং পুরো জাতিগোষ্ঠীর মাঝে মুসলিমদের অবস্থানগত মর্যাদা। বিশ্ব নেতৃত্ব থেকে মুসলমানদের সরে যাওয়া শুধু তাদের জন্যই জাতীয় দুর্ঘটনা নয় বরং লেখক এটিকে ‘সর্বব্যাপী বড় দুর্ঘটনা এবং মানবতার জন্য বড় দুর্ভাগ্য’ বলে অভিহিত করেছেন।
এ গ্রন্থ সম্পর্কে মিসরের খ্যাতিমান সাহিত্যিক ও ইসলামী চিন্তাবিদ সাইয়েদ কুতুব (রহ.) বলেন. ‘এ গ্রন্থের গতিময়, প্রাণময়, আবেগময় ভাষা ও উপস্থাপনায় পাঠকের মন আলোড়িত হয় ঠিকই কিন্তু বল্গাহারা হয় না। কোনো অপ্রীতিকর সাম্প্রদায়িকতাও এখানে পাঠকের মনকে কলুষিত করে না, বরং তথ্য ও তত্ত্বভিত্তিক যুক্তির মাধ্যমে এ গ্রন্থের উদ্দেশ্য ও আবেদনকে অত্যন্ত বর্ণিল ভঙ্গিতে চমৎকার উপস্থাপনায় অত্যন্ত হৃদয়-নন্দিত করে পাঠকের আবেগ-অনুভূতি ও সেই বিচারবুদ্ধির কাছে পরিবেশন করা হয়েছে। ‘মাজা খাসিরাল আলামু বিনহিতাতিল মুসলিমিন’ গ্রন্থটি পূর্ণাঙ্গ গ্রন্থ হিসেবে সর্বপ্রথম প্রকাশিত হয় মিসরে। পরে উর্দু, ইংরেজিসহ বিভিন্ন ভাষায় এর অনুবাদ প্রকাশিত হয়। বাংলা ভাষায় গ্রন্থটির অনুবাদ প্রকাশ করে মুহাম্মদ ব্রাদার্স। গ্রন্থটির বাংলা নামকরণ করা হয়েছে ‘মুসলমানদের পতনে বিশ্বমানবতা কী হারাল?’


আশুরা ও কারবালার চেতনা
আশুরার দিন তিনি সেনাপতির মতো শত্রুবাহিনীর বিরুদ্ধে ব্যূহ রচনা করেন।
বিস্তারিত
মেঘ নেমেছে কাশবনে
মুগ্ধ হয়ে দেখি শরতের মনকাড়া এসব রূপের বাহার। আশ্চর্য হয়ে
বিস্তারিত
মোবাইলে বিয়ের সঠিক পদ্ধতি!
পাত্র বা পাত্রী তার আপনজন বা পরিচিত যে কাউকে চিঠি,
বিস্তারিত
কাছের টিকিটে দূরে ভ্রমণ
প্রশ্ন : অনেক সময় বাসের লোকজন সীমাতিরিক্ত ভাড়া নিয়ে থাকে।
বিস্তারিত
তুরস্কে শিশুদের জামাতে ফজর আদায়ে
মসজিদের প্রতি শিশুদের ভালোবাসা গড়ে তোলার জন্য তুরস্কের কাওনিয়া রাজ্যের
বিস্তারিত
আফগানিস্তানে কি আবার ফিরছে তালেবান
আফগানিস্তানে একসময় হতাহতের ঘটনা সংবাদের শিরোনামে উঠে এলেও এখন সেগুলো
বিস্তারিত