যে কারণে আপনার নতুন ভাষা শেখা উচিত

একজন মানুষ পাঁচটি ভাষা জানে। এ কথা জানার পর সেই মানুষটি সম্পর্কে কী মনে হবে আপনার? আপনি ভাববেন, বাহ! পাঁচটি ভাষা! কীভাবে শিখল? কত ধৈর্য! অথবা ভাববেন, লোকটা খুবই জ্ঞানী! পাঁচ পাঁচটা ভাষায় দখল আছে তার!’ আপনি কিন্তু নেতিবাচক কিছু ভাববেন না। শুধু এই একটি তথ্য আপনার চোখে তার শ্রদ্ধা বাড়িয়ে দেবে!
ভাষা এমনই এক বস্তু যা আপনাকে বদলায়, অন্যের চোখে আপনাকে বদলে দেয়। চমৎকার এ গুণটি অর্জন করা সবার জন্যই জরুরি। জেনে নিন কী কী কাজে লাগবে ভাষার জ্ঞান
ক্যারিয়ার : আপনি যখন নতুন একটি ভাষা জানেন তখন সেই ভাষা ক্যারিয়ারে আপনাকে অন্যদের চেয়ে বেশি এগিয়ে নিয়ে যায়। আমরা ইংরেজি দ্বিতীয় ভাষা হিসেবে শিখি। ভালো ইংরেজি বলতে এবং লিখতে পারে যে চাকরিক্ষেত্রে তার যোগ্যতা কতটা বেড়ে যায় সেটা আমরা সবাই জানি। একই সঙ্গে আপনি যখন আরও ভাষা শেখেন তখন তা যোগ হতে থাকে আপনার বাড়তি বিশেষত্ব হিসেবে। ধরুন আপনি সাংবাদিকতার ছাত্র। আপনি স্প্যানিশ জানেন। স্পেনের একটা খবর আপনি সরাসরি তাদের গণমাধ্যম থেকেই দেখে নিতে পারবেন। ফ্রিল্যান্সিংয়ের ক্ষেত্রে আপনি যত ভাষা জানবেন তত বাড়বে আপনার কাজের ক্ষেত্র। বিশ্ববাজার বদলে যাচ্ছে প্রতিনিয়ত। ভিন্ন একটি দেশে চাকরির কথা ভাবছেন? সেই দেশের ভাষা যদি আপনি না জানেন তাহলে কীভাবে কাজ করবেন? সুযোগ কখন কোন পথে আসবে আপনি জানেন না। আপনি যখন অন্য একটি দেশের ভাষা জানেন তখন সেই দেশে চাকরির চেষ্টা করা আপনার জন্য খুবই সহজ।
উচ্চশিক্ষা : বাইরে গিয়ে উচ্চশিক্ষার স্বপ্ন কে না দেখে? কিন্তু আপনি জার্মানি যাবেন, কিন্তু জার্মান ভাষা জানেন না। কীভাবে সে দেশে গিয়ে পড়াশোনা করবেন? ভাষাগত দক্ষতা আপনার জীবনটিকে অনেক সহজ করে তুলবে। আপনি যে দেশের ভাষা শিখবেন সহজেই সে দেশে স্কলারশিপের জন্য আবেদন করতে পারবেন।
মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা বাড়ায় : একটি নতুন ভাষা শেখার জন্য পড়াশোনা করা আপনার মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা বাড়াতেও সাহায্য করবে। আপনার বয়স যতই হোক না কেন আপনি যখন একটি ভাষা শেখার প্রকল্প নেন তখন তা আপনার মস্তিষ্ককে সচল করে। স্মৃতিশক্তি বাড়াতে, মনোযোগ বাড়াতে এবং বয়সের কারণে তৈরি হওয়া মানসিক স্থবিরতা কাটাতে ভাষা শিক্ষা বেশ কার্যকর।
যোগাযোগ ক্ষমতা বাড়ায় : আপনি যদি চীনে যান দেখবেন সেখানে কোনো মানুষ ইংরেজিতে কথা বলছে না। শুধু চাইনিজ ভাষাই তারা বোঝে। এমন অনেক দেশ আছে যারা ইংরেজি খুব কমই জানে। আপনি একটা দেশে গেছেন আর সে দেশের ভাষা জানেন না তাহলে আপনি সেই দেশের সাধারণ মানুষের সাহচর্য মিস করবেন। বুঝতে পারবেন না তাদের সংস্কৃতির অনেক কিছুই।
ব্যক্তিত্বে নতুন কিছু : প্রতিটি ভাষা শেখার সঙ্গে সঙ্গে আপনি যখন সেই ভাষা সম্পর্কিত অনেক কিছু জানবেন তখন তা বদলে দেবে আপনার বডি ল্যাঙ্গুয়েজ। আপনি অনেক আত্মবিশ্বাসী হবেন। আগের চেয়েও মজার এবং মিশুক একটি মানুষে পরিণত হবেন আপনি। আপনার শুধু দেশেই বন্ধু থাকবে না। আপনার বন্ধু হবে সেই ভাষার মানুষেরাও। তাদের গল্প, সাহিত্য তাদের ভাষাতেই পড়তে পারবেন আপনি। আপনাকে কোনো অনুবাদ পড়তে হবে না। তাই আপনি যা জানবেন তা হবে মৌলিক, সেখানে কোনো মধ্যপন্থা থাকবে না।


আন্তর্জাতিক প্রশিক্ষণ পেলেন ৯০ প্রাণী
পোলট্র্রির বিজ্ঞানসম্মত স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনা, সঠিকভাবে রোগবালাই নির্ণয়, চিকিৎসা এবং রোগ
বিস্তারিত
সবার উপরে বাবা-মা
যে-কোনো মানুষের গায়ে হাত তোলাই অপরাধ। আর সন্তান হয়ে বাবা-মায়ের
বিস্তারিত
স্মৃতির মানসপটে যুক্তরাজ্য সফর
বিদেশে যাওয়ার অভিজ্ঞতা হয়তো অনেকেরই হয়ে থাকে। তবে কলেজের প্রতিনিধি,
বিস্তারিত
ব্যবসার ধারণা : গড়তে চাইলে
নিজের পায়ে দাঁড়াতে হলে আপনাকে উদ্যোগী হতে হবে। আর উদ্যোক্তা
বিস্তারিত
৭৫ শতাংশ বৃত্তিতে আইটি ও
বিভিন্ন কারণে যারা আইটিতে দক্ষতা উন্নয়নের সুযোগ থেকে বঞ্চিত তাদের
বিস্তারিত
লক্ষ্য যখন কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়
ক্রমবর্ধমান জনসংখ্যার বিপরীতে ক্রমাগত উর্বরা জমির পরিমাণ কমছে। জনসংখ্যার এ
বিস্তারিত