মিনার মনসুর

যার জন্য এত রক্ত এত অশ্রুপাত

শুধু পাশা খেলা, অন্তহীন বস্ত্র হরণের পালা...
শুধুই বিষবৃক্ষের লকলকে ডালপালা মাথার ওপরে
পদতলে শঠতার চোরাবালি, হিংসার হাঙর; 
যা কিছু মহৎ সব গড়াগড়ি যায় লালসার লাভাস্রোতে।

তার জন্য এত রক্ত, এত অশ্রুপাত!

আবার রক্তের হোলিখেলা দেখি, ঘোড়ার ক্ষুরের শব্দ শুনি
ঠগি-বর্গিদের সদম্ভ উত্থান দেখি ঘরে ঘরেÑ
ধুলায় লুটাতে দেখি নারীর সম্ভ্রম,
    শিশু আর বৃদ্ধদের মাথার করোটি; 
টগবগে যুবকেরা লাশ হয়ে পড়ে থাকে প্রকাশ্য রাস্তায়।

তার জন্য এত রক্ত, এত অশ্রুপাত!

সেই অজেয় কৃষক, ছাত্র, কামার-কুমোর
মুটে ও মজুর যারা গড়েছিল অন্য এক চীনের প্রাচীরÑ
তাদের তো কোথাও দেখি না; 
কোথাও দেখি না স্বজনের অস্থি দিয়ে গড়া সেই বধ্যভূমি। 
শুধু বাহারি বণিক দেখি, তাদের তীব্র হাঁকডাক শুনি...

দেশটাই যেন আজ বারোয়ারি বিশাল বাজার!
শহীদের শিরস্ত্রাণ কিংবা বীরের এ রক্তস্রোত মায়ের এ অশ্রুধারাÑ 
     কী না বিকিকিনি হয় এই হাটে! শুধু 
যার জন্য এত রক্ত, এত অশ্রুপাত 
তাকে আজ কোথাও দেখি না।


আরব ছোটগল্পের রাজকুমারী
সামিরা আজ্জম ১৯২৬ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর ফিলিস্তিনের আর্কে একটি গোঁড়া
বিস্তারিত
অমায়ার আনবেশে
সাদা মুখোশে থাকতে গেলে ছুড়ে দেওয়া কালি  হয়ে যায় সার্কাসের রংমুখ, 
বিস্তারিত
শারদীয় বিকেল
ঝিরিঝিরি বাতাসের অবিরাম দোলায় মননের মুকুরে ফুটে ওঠে মুঠো মুঠো শেফালিকা
বিস্তারিত
গল্পের পটভূমি ইতিহাস ও বর্তমানের
গল্পের বই ‘দশজন দিগম্বর একজন সাধক’। লেখক শাহাব আহমেদ। বইয়ে
বিস্তারিত
ধোঁয়াশার তামাটে রঙ
দীর্ঘ অবহেলায় যদি ক্লান্ত হয়ে উঠি বিষণœ সন্ধ্যায়Ñ মনে রেখো
বিস্তারিত
নজরুলকে দেখা
আমাদের পরম সৌভাগ্য, এই উন্নত-মস্তকটি অনেক দেরিতে হলেও পৃথিবীর নজরে
বিস্তারিত