মিনার মনসুর

যার জন্য এত রক্ত এত অশ্রুপাত

শুধু পাশা খেলা, অন্তহীন বস্ত্র হরণের পালা...
শুধুই বিষবৃক্ষের লকলকে ডালপালা মাথার ওপরে
পদতলে শঠতার চোরাবালি, হিংসার হাঙর; 
যা কিছু মহৎ সব গড়াগড়ি যায় লালসার লাভাস্রোতে।

তার জন্য এত রক্ত, এত অশ্রুপাত!

আবার রক্তের হোলিখেলা দেখি, ঘোড়ার ক্ষুরের শব্দ শুনি
ঠগি-বর্গিদের সদম্ভ উত্থান দেখি ঘরে ঘরেÑ
ধুলায় লুটাতে দেখি নারীর সম্ভ্রম,
    শিশু আর বৃদ্ধদের মাথার করোটি; 
টগবগে যুবকেরা লাশ হয়ে পড়ে থাকে প্রকাশ্য রাস্তায়।

তার জন্য এত রক্ত, এত অশ্রুপাত!

সেই অজেয় কৃষক, ছাত্র, কামার-কুমোর
মুটে ও মজুর যারা গড়েছিল অন্য এক চীনের প্রাচীরÑ
তাদের তো কোথাও দেখি না; 
কোথাও দেখি না স্বজনের অস্থি দিয়ে গড়া সেই বধ্যভূমি। 
শুধু বাহারি বণিক দেখি, তাদের তীব্র হাঁকডাক শুনি...

দেশটাই যেন আজ বারোয়ারি বিশাল বাজার!
শহীদের শিরস্ত্রাণ কিংবা বীরের এ রক্তস্রোত মায়ের এ অশ্রুধারাÑ 
     কী না বিকিকিনি হয় এই হাটে! শুধু 
যার জন্য এত রক্ত, এত অশ্রুপাত 
তাকে আজ কোথাও দেখি না।


সাহিত্যের বর্ণিল উৎসব
প্রথম দিন দুপুরে বাংলা একাডেমির লনে অনুষ্ঠিত হয় মিতালি বোসের
বিস্তারিত
নিদারুণ বাস্তবতার চিত্র মান্টোর মতো সাবলীলভাবে
এ উৎসবের অন্যতম আকর্ষণ ছিল ভারতের প্রখ্যাত পরিচালক নন্দিতা দাস
বিস্তারিত
পাখি শিকারিদের পা
অর্ধমৃত চোখটি পাহারা দিতে দিতে ক্লান্ত হয়ে পড়ছে অন্য চোখ।
বিস্তারিত
এমনই নিশ্চিহ্ন হবে একদিন
এমনই নিশ্চিহ্ন হবে সব চিহ্ন একদিন মুছে যাবে অক্ষত ক্ষতচিহ্ন, ছোপ
বিস্তারিত
পদ্মপ্রয়াণ
বিগত পুকুর ভরাট করে সূর্যমুখীর চাষ করেছি  সেদিন জলের টান ছিঁড়ে
বিস্তারিত
মেঘ যেখানে ছুঁয়ে যায়
অপরূপ প্রকৃতির অপার সৌন্দর্য উপভোগ করতে চাইলে সাজেক ভ্যালিতে দু-এক
বিস্তারিত