মায়ের শোলক

মায়ের মুখে সেদিন খোকা শুনেছিল শোলক
বুড়িগঙ্গায় হারিয়েছিল এক অভাগীর নোলক।
বলতে গিয়ে মায়ের চোখে গড়িয়ে পড়ে জল
বলছে খোকন মাকে তখন, তারপরে কী বল?

বললো মায়ে বলছি খোকন শুনবে যখন শোন
শোলক তো নয় সত্য কথা শক্ত করো মন।
দেশটা যখন গভীর ঘুমে পঁচিশে মার্চ রাতে
ঘুম ভেঙে যায় সবার তখন বোম বুলেটের ঘাতে।

বীর-বাঙালি ঠিক তখনই যুদ্ধে নেমে গেল
জেলখানার ওই বন্দিরা সব মুক্তি সেদিন পেল।
বুড়িগঙ্গায় শত্রু জাহাজ টহল দিতে এলো
শত্রু ঘায়েল করতে তখন বীর-বাঙালি গেল।

আঘাতের পর পাল্টা-আঘাত চলছে অবিরত
রক্ততে লাল বুড়িগঙ্গা; মরছে মানুষ শত।
নিজের চোখেই দেখছি সেদিন হাজার লাশের ভিড়ে
আমার নোলক ঘুমিয়ে আছে বুড়িগঙ্গার তীরে।

দেশের জন্য যুদ্ধ করে জীবন যারা দিল
তাদের মধ্যে তোমার বাবা রহিম উদ্দিন ছিল।


তমালের কাঁঠাল গাছ
‘বাঁশবাগানের মাথার ওপর চাঁদ উঠেছে ওই, মাগো আমার শোলক বলা
বিস্তারিত
আবরার
রক্ত তোমার আলোর প্রদীপ জ্বালায় রক্ত তোমার লাত্থি মারুক তালায়
বিস্তারিত
ব্যাঙের বুদ্ধি
চিবিদ বনে বাস করত বিরাট এক অজগর। সে বেশ লোভী,
বিস্তারিত
বোরহান মাসুদ
  গুটিবেঁধে মেঘ এলো যেই ডানপিটের হৈচৈ কাদামাটির মাঠখান আজ করছে
বিস্তারিত
রূপকথার রাজ্য ও কম্পিউটার
পরের সকালে ঙ এসে রাজ্যের সবাইকে জানাল কম্পিউটার আপাতত একটা
বিস্তারিত
তোমাদের আঁকা ছবি
ছবিটি এঁকেছে নারায়ণগঞ্জের চাইল্ড  কেয়ার স্কুলের প্রথম শ্রেণীর ছাত্রী  গাজী
বিস্তারিত