জোছনা ঝরে

ফোঁটায় ফোঁটায় জোছনা ঝরে বৃষ্টি ঝরার মতো
দূরে কোথাও হারিয়ে যেতে হয় উতলা মন,
ধানের ক্ষেতে, উছলে পড়ে আলোর-কণা শতো
ফুলের মুখে, পাতার বুকে আলোর বিচরণ।

পরীর মেয়ে আলোর চিঠি স্বপ্ন আঁকা খামে
চাঁদনী রাতে পাঠিয়ে দিল এই পৃথিবীর নামে।

চাঁদের সাথে মানিক হয়ে জ্বলে তারার বাতি
তাড়িয়ে দিল আঁধার যত হোগলা পাতার বন
দুধসুপারি গাছের ডালে আলোর মাতামাতি
দীঘির কোলে শাপলা ফুলে আলোর শিহরণ।

জোছনা ঝরে নদীর চরে সুবর্ণপুর গাঁয়
বাঁশের ঝাড়ে, পুকুর পাড়ে, আকাশ নীলিমায়।


শরৎ রানী বাংলা মাকে
আমার গাঁয়ে শরৎ আসে শিউলি ও কাশ মুচকি হাসে আমার
বিস্তারিত
যেন সাদা রেলগাড়ি
নীল আকাশে উড়ছে সাদা ডানা অলা মেঘ অনেক মেঘ পাখিরা
বিস্তারিত
ষড়ঋতুর দেশ
শরৎ এলো গুনগুনিয়ে  বর্ষা বলে ওরে,  শরৎ এলো, শরৎ এলো 
বিস্তারিত
শরৎ এলে
শরৎ এলে দোল খেয়ে যায় সাদা কাশের বন, তুলোর মতো
বিস্তারিত
সোনার বাংলাদেশ
  নদীর ধারে শাদা ফুলের দোলা, আকাশটাতে নীলের কপাট খোলা। 
বিস্তারিত
তোমাদের আঁকা ছবি
‘ভোরের আকাশ’ শিরোনামে এ ছবিটি এঁকেছে দেবারতি ঘোষ। সে পড়ে
বিস্তারিত