শিল্পাচার্যের আদর্শ ধারণের আহ্বান সংস্কৃতিমন্ত্রীর

শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদিনের আদর্শ ও চেতনা ধারণ করে এগিয়ে চলার আহ্বান জানিয়েছেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর। বৃহস্পতিবার  ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের(ঢাবি) চারুকলা অনুষদের বকুলতলায় ‘জয়নুল উৎসব ও লোকজ মেলা-২০১৬’ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ আহ্বান জানান।
সংস্কৃতিমন্ত্রী বলেন, শিল্পাচার্যের আদর্শ চেতনা ধারণ করে এগিয়ে যাওয়াই এখন আমাদের কাজ। যদি আমরা তা না পারি তাহলে তাকে ঘিরে যতো আয়োজন সব অর্থহীন হবে। 
ঢাবি’র উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদিনের সহধর্মিনী জাহানারা আবেদিন। এতে স্বাগত বক্তব্য দেন চারুকলা অনুষদের ডিন অধ্যাপক নিসার হোসেন। 
শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদিনের ১০২তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত এ অনুষ্ঠান সকালে শিল্পাচার্যের  সমাধিতে পুস্পস্তবক  অর্পণের মাধ্যমে শুরু  হয়। এসময় শিল্পাচার্যের  সমাধিতে চারুকলা অনুষদের ৮টি বিভাগ, অ্যালমনাই অ্যাসোসিয়েশান, জাতীয় জাদুঘরসহ বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধাঞ্জলি দেয়া হয়। এ অনুষ্ঠানে  এবার  ‘জয়নুল সম্মাননা-২০১৬’ প্রদান করা হয় ভারতের প্রখ্যাত শিল্পী অধ্যাপক যোগেন চৌধুরী এবং বাংলাদেশের প্রতিথযশা শিল্পী অধ্যাপক হাশেম খানকে। অনুষ্ঠানে তবর্ষ প্রবন্ধালি’ গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন করা হয় । সংস্কৃতি মন্ত্রী আরও বলেন, বর্তমানে শিল্প-সাহিত্য, সংস্কৃতিতে বাংলাদেশের অবস্থান বিশ্বের অন্যান্য দেশের কাছে ঈর্ষণীয়। আর এর পেছনে একজন মানুষের অবদান অনস্বীকার্য। শিল্পচার্য শিল্পের যে বীজ বপন করে গেছেন তা আজ মহীরুহে  পরিণত হয়েছে। শিল্পাচার্যকে শ্রদ্ধা, সম্মান ও স্মরণ করে আমাদের এগিয়ে যেতে হবে।
সন্ত্রাসবাদকে জনগণ প্রত্যাখ্যান করেছে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, দেশে সন্ত্রাসবাদ ও জঙ্গিবাদের উত্থান হয়েছিল বঙ্গবন্ধুর হত্যার মধ্য দিয়ে। গুলশানে নিরীহ মানুষকে হত্যা করা হয়েছে। বঙ্গবন্ধু ও শিল্পাচার্য এই বাংলাদেশ চাননি। তারা মানবের দেশ গড়তে চেয়েছিলেন। জঙ্গি হওয়ার কারণে মা-বাবা  ছেলের মরদেহও নেয়নি। এটাই আমাদের বাংলাদেশ।
অধ্যাপক আরেফিন সিদ্দিক বলেন, একটি দেশের সঙ্গে ভৌগোলিক সীমারেখা থাকতে পারে। কিন্তু সংস্কৃতি, জ্ঞান-বিজ্ঞান ও শিল্পের ক্ষেত্রে কোনো সীমারেখা নেই। এজন্য আজ ভারতের শিল্পী যোগেন চৌধুরী জয়নুল সম্মননা নিয়েছেন। ভারতের সঙ্গে বিশেষ সম্পর্ক রয়েছে উল্লেখ  করে তিনি বলেন, ভারত আমাদের মতো গণতন্ত্র ও অসা¤প্রদায়িক নীতিতে বিশ্বাস করে। মুক্তিযুদ্ধের সময় ভারতের জনগণ, গণমাধ্যম ব্যাপকভাবে আমাদের সাহায্য করেছে। অনুষ্ঠানে শিল্পী তারক গড়াইয়ের নির্মিত ভাস্কর্যের  আবরণ উন্মোচন করা  অনুষদের ৮ বিভাগের শিল্পীদের নির্মিত বিভিন্ন জিনিস নিয়ে উদ্বোধন করা হয় জয়নুল মেলা।
এদিকে আমাদের বরিশাল ব্যুারো জানিয়েছে, বরিশাল চারুকলার আয়োজনে শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদিনের ১০২ তম জন্মবার্ষিকী উদ্যাপিত হচ্ছে। এ উপলক্ষে বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় দুই দিনের চিত্র প্রদর্শনীর উদ্বোধন করা হয়। জয়নুল আবেদিনের ছাত্র চিত্রশিল্পী ও গবেষক ড. কাজী মোজাম্মেল হোসেন এই চিত্র প্রদর্শণীর উদ্বোধন করেন। এসময় ড. মোজাম্মেল বলেন, দেশব্যাপী শিল্পাচার্যের জন্ম বার্ষিকী পালন করা উচিত। তার শিল্পকর্ম প্রদর্শিত হলে মানুষ জানতে পারবে তিনি কতো শক্তিশালী চিত্রশিল্পী ছিলেন। বরিশাল চারুকলার এই আয়োজনকে স্বাগত জানান তিনি।
বরিশাল চারুকলার নিজস্ব গ্যালারি শিল্পালয়ে দুদিনের এই চিত্র প্রদর্শনীতে জয়নুল আবেদিনের ওপর ১৯টি চিত্র কর্ম স্থান পেয়েছে। ৯ জন শিল্পীর আঁকা এই প্রদর্শনী শুক্রবার রাত ৯টা পর্যন্ত চলবে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে চারুকলা সভাপতি আলতাফ হোসেন, সম্পাদক সৈয়দ অভি, সুশান্ত ঘোষ, প্রিয়, তমাল, পলকসহ চারুকলার শিল্পীরা উপস্থিত ছিলেন।


কথাশিল্পী হুমায়ুন আহমেদের জন্মদিন পালিত
বাংলা সাহিত্যের নন্দিত কথাশিল্পী ও চলচ্চিত্রকার হুমায়ুন আহমেদের ৭১তম জন্মদিন
বিস্তারিত
কথাশিল্পী হুমায়ুন আহমেদের ৭১তম জন্মদিন
বাংলা সাহিত্য-সংস্কৃতির অন্যতম পথিকৃৎ ,খ্যাতিমান কথাশিল্পী, চলচ্চিত্র-নাটক নির্মাতা হুমায়ুন আহমেদের
বিস্তারিত
শিল্পকলা একাডেমিতে কবিতায় বঙ্গবন্ধু
দেশের বিশিষ্ট বাচিক শিল্পীরা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে
বিস্তারিত
কবি শামসুর রাহমানের মৃত্যুবার্ষিকী পালিত
আধুনিক বাংলা কবিতার অন্যতম শ্রেষ্ঠ কবি, লেখক ও সাংবাদিক শামসুর
বিস্তারিত
হুমায়ূন আহমেদের শেষ দিনগুলো
আমেরিকায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২০১২ সালের ১৯শে জুলাই মারা যান বাংলাদেশের
বিস্তারিত
কথাসাহিত্যিক হুমায়ুন আহমেদের ষষ্ঠ মৃত্যুবার্ষিকী
বাংলা সাহিত্যের বরেণ্য ব্যক্তিত্ব, খ্যাতিমান কথাশিল্পী, চলচ্চিত্র-নাটক নির্মাতা হুমায়ুন আহমেদের
বিস্তারিত