১০ হাজার টাকার বেশি উত্তোলন নয়

মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে লেনদেন সীমা কমিয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। আজ বুধবার এ সংক্রান্ত একটি সার্কুলার জারি করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। মোবাইল ফাইন্যান্সসিয়াল সেবাদানকারী (এমএফএস) কোনও প্রতিষ্ঠানে একটি জাতীয় পরিচয়পত্রের বিপরীতে একাধিক অ্যাকাউন্ট থাকার বিষয়েও বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে।

সার্কুলারে বলা হয়েছে, কোনও গ্রাহক তার অ্যাকাউন্টে দিনে অনধিক ২ বারে ১৫ হাজার টাকার বেশি ক্যাশ ইন বা জমা করতে পারবেন না। একইভাবে গ্রাহক মাসে ২০ বারে সর্বোচ্চ এক লাখ টাকার বেশি ক্যাশ ইন করতে পারবেন না।

বাংলাদেশ ব্যাংকের সার্কুলার অনুযায়ী, একজন গ্রাহক দিনে দু’বারে সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা তুলতে বা ক্যাশ আউট করতে পারবেন। মাসে অনধিক ১০ বারে ৫০ হাজার টাকার বেশি উত্তোলন করা যাবে না।

সার্কুলারে আরও বলা হয়েছে, একটি মোবাইল হিসাবে ক্যাশ-ইন হওয়ার পর ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ওই টাকা থেকে সর্বোচ্চ ৫ হাজার টাকার বেশি ক্যাশ-আউট করা যাবে না।

একজন গ্রাহক তার মোবাইল ব্যাংকিংয়ের হিসাব থেকে টাকা স্থানান্তরের ক্ষেত্রে আগের মতোই প্রতিদিন সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা এবং মাসে ২৫ হাজার টাকা লেনদেন করতে পারবেন।

সার্কুলারে আরও বলা হয়, একজন ব্যক্তি কোনও এমএফএস প্রোভাইডারের সঙ্গে একাধিক মোবাইল হিসাব চালাতে পারবেন না। একই জাতীয় পরিচয়পত্র/স্মার্ট কার্ড বা অন্য কোনও পরিচয়পত্রের বিপরীতে কোনও গ্রাহকের এক এমএফএসে একাধিক হিসাব থাকলে আলোচনার মাধ্যমে তিনি ঠিক করবেন, কোন হিসাবটি তিনি চালু রাখবেন।

উল্লেখ্য, এতদিন একজন গ্রাহক দিনে ৫ বার এবং মাসে ২০ বার নগদ অর্থ জমা করতে পারতেন। আর দৈনিক ৩ বার ও মাসে ১০ বার টাকা উত্তোলন করতে পারতেন। প্রতিবারে সর্বোচ্চ ২৫ হাজার টাকা জমা ও উত্তোলনের সীমা নির্ধারিত ছিল। মাসে জমা ও উত্তোলনের সর্বোচ্চ পরিমাণ ছিল এক লাখ ৫০ হাজার টাকা।


খবরটি পঠিত হয়েছে ২৯০০ বার

ক্রিকইনফোর বর্ষসেরা ক্রিকেটার মিরাজ
ক্রিকেটের জনপ্রিয় ওয়েবসাইট ইএসপিএন-ক্রিকইনফোর ২০১৬ সালের বর্ষসেরা অভিষিক্ত ক্রিকেটার নির্বাচিত
বিস্তারিত
‌‘সরকার নিরপেক্ষ না হলে, নির্বাচনও
বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, নির্বাচনকালীন সহায়ক সরকার
বিস্তারিত
`বিএনপি সন্ত্রাসী দল হিসেবে প্রমাণিত
কানাডার ফেডারেল কোর্টে বিএনপি সন্ত্রাসী দল হিসেবে প্রমাণিত হয়েছে বলেছেন
বিস্তারিত
পিকনিকের বাস উল্টে বিলে, নিহত
চাঁপাইনবাবগঞ্জে পিকনিকের বাস উল্টে বিলে পড়ে কমপক্ষে তিনজন নিহত হয়েছেন।
বিস্তারিত
‘বিএনপি যখন বিপদে পড়ে, তখনি
অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত জাতীয় সংসদে গঠনমূলক একটি বিরোধী
বিস্তারিত
‘দুর্নীতি করে কেউ ছাড় পাবেনা’
দুর্নীতির বিষয়টি এখন সর্বগ্রাসী। দুর্নীতি করলে কেউ ছাড় পাবেন না।
বিস্তারিত