কী হয় এসব পুরস্কারে?

দেশের অন্যতম শীর্ষ কবি নির্মলেন্দু গুণ সম্প্রতি স্বাধীনতা পদক না পেয়ে তার ক্ষোভের কথা জানিয়েছেন সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে। কবি গুণের সেই ক্ষোভের পরিপ্রেক্ষিতে ফেসবুকে একটি পোস্ট দিয়েছেন নির্বাসিত লেখক তসলিমা নাসরিন। তার সেই পোস্টটি এখানে হুবহু তুলে ধরা হলো-
“'শুনলাম কবি নির্মলেন্দু গুণ নাকি স্বাধীনতা পদক পাওয়ার জন্য ক্ষেপেছেন! অনেক তো পুরস্কার পেলেন! আরো পেতে হবে? কী হয় এসব পুরস্কারে? কিছু লোকের হাততালি পাওয়া যায়, আর সম্ভবত কিছু টাকা পাওয়া যায়! টাকা তো সেদিনও হাসিনা দিয়েছেন তাকে। হয়তো তিনি মনে করছেন স্বাধীনতা পদক পাওয়ার যোগ্য তিনি, তাই পদক দাবি করছেন। কত কেউ তো কত কিছুর যোগ্য। সবারই কি সবকিছু পাওয়া হয়? গ্রাহাম গ্রীন যে অত বড় লেখক, নোবেল তো পাননি। তাতে কী! গ্রাহাম গ্রীন গ্রাহাম গ্রীনই থেকে যাবেন। নোবেল বরং আফসোস করে যাবে বাকি জীবন।
আমি তো বাংলাদেশের মানুষের ভালোর জন্য জীবনের ঝুঁকি নিয়ে, দেশ- সমাজ-পরিবার-স্বজন হারিয়ে, ঘরবাড়ি-বিষয় আশয় বিসর্জন দিয়ে প্রায় তিন যুগ হলো লিখছি। আমি তো অপমান আর লাঞ্ছনা ছাড়া ও দেশ থেকে কিছু পাইনি। পুরস্কার? প্রশ্নই ওঠে না। পুরস্কার পাইনি বলে তো একটুও রাগ বা দুঃখ হয়না আমার।
নির্মলেন্দু গুণ বাংলাদেশের কবি লেখকদের মধ্যে, আমি মনে করি, খুবই ভাগ্যবান। খুব কম লেখকই জীবদ্দশায় তার মতো আদৃত, সম্মানিত, হয়েছেন। খুব কম লেখকই এত লোকপ্রিয়তা পেয়েছেন। মানুষ তার লেখা পড়তে ভালোবাসে, এটিই কি একজন লেখকের জন্য সবচেয়ে বড় পুরস্কার নয়? সবচেয়ে দামি পদক নয়?”

 


‘বিকশিত হোক শত ভাবনা’ বইয়ের
তেত্রিশ গুণীজনের কথামালার সময়োপযোগী সংকলন গ্রন্থ ‘বিকশিত হোক শত ভাবনা’
বিস্তারিত
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নিজ শহরে শায়িত কবি
আধুনিক বাংলা সাহিত্যের অন্যতম প্রধান কবি আল মাহমুদকে রবিবার বিকালে
বিস্তারিত
কবি আল মাহমুদের জানাজা বায়তুল
কবি আল মাহমুদের জানাজা আজ শনিবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) বাদ জোহর
বিস্তারিত
‌‘সোনালী কাবিনে’র কবি আল মাহমুদ
বাংলাদেশের অন্যতম প্রধান কবি আল মাহমুদ আর নেই। গতকাল শুক্রবার
বিস্তারিত
‌‘কবিতা ও কথা’র মোড়ক উন্মোচন
একুশে গ্রন্থমেলায় কবি ইসমাইল হোসেনের কবিতার বই ‘কবিতা ও কথা’র
বিস্তারিত
মেলায় আমীন আল রশীদের বই
অমর একুশে গ্রন্থমেলায় এসেছে সাংবাদিক আমীন আল রশীদের বই ‘বাংলাদেশের
বিস্তারিত