এক পরিবারের ৫০০ সদস্য, ছবি তুলতে ড্রোন

চীনের একটি পরিবারের পাঁচশোরো বেশি সদস্য একত্রিত হয়েছিল পারিবারিক একটি ছবি তোলার উদ্দেশ্যে। দেশটির পূর্বাঞ্চলের ঝেজিয়াং প্রদেশের শিশে গ্রামের একটি পরিবারের বয়স্করা এই উদ্যোগ নেন। এক ফ্রেমে সবাইকে আনতে ফটোগ্রাফারকে ভাড়া করতে হয়েছে একটি ড্রোন। যা দিয়ে সবাইকে এক ফ্রেমে বন্দী করা হয়েছে।

কয়েক পুরুষ ধরে চীনের পূর্বাঞ্চলে ঝিজিয়াং প্রদেশের শিশে গ্রামে বসবাস করছে ‘রেন’ পরিবার। রেন পরিবারের সদস্যরা চীনা নববর্ষ উপলক্ষে গত সপ্তাহে এক পারিবারিক পুনর্মিলনীতে জড়ো হয়। সেখানেই একত্রিত হয় পরিবারটির পাঁচশোরো বেশি সদস্য। পরিবারের সবাইকে একই ফ্রেমে বাঁধতেই তাদের ওই উদ্যোগ। এ সংক্রান্ত একটি সংবাদ প্রকাশ করেছে বিবিসি।

পরিবারের সেই ছবিটি তোলেন ঝ্যাং লিয়ানজং নামের একজন আলোকচিত্রী। একটি ড্রোন ব্যবহার ক রে ছবিটি তুলতে হয়েছে তাঁকে। ঝ্যাং লিয়ানজং মিডিয়াকে জানান, ৮৫১ বছর আগেও রেন পরিবারের পূর্বপুরুষদের খুঁজে পাওয়া যাবে। তবে আট দশক ধরে পরিবারটির ফ্যামিলি ট্রি বা বংশপরম্পরা সংরক্ষণ করা হচ্ছে না। কিন্তু সম্প্রতি এই বিষয়টি নিয়ে সচেতন হন পরিবারটির বয়স্ক সদস্যরা।

বংশপরম্পরাটি হালনাগাদ করার জন্য পরিবারটির বর্তমান সদস্যদের মধ্য থেকে কমপক্ষে দুই হাজারজনকে একত্র করার চেষ্টা করেন তারা। পরিবারের বয়স্কদের ডাকে সাড়া দিয়ে শেষ পর্যন্ত বেইজিং, সাংহাই, জিনজিয়ান ও তাইওয়ান থেকে ছুটে আসেন পাঁচশোর বেশি সদস্য। তাদের দিয়েই হালনাগাদের কাজটি সফলভাবেই করা হয়।

গ্রামপ্রধান ও রেন পরিবারের সদস্য রেন তুয়ানজাই চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম শিনহুয়াকে বলেন, একত্রিত হবার প্রধান একটা কারণ হলো আমাদের উত্তরসূরিরা শেষ পর্যন্ত কী করছে, কোথায় বসবাস করছে, তা আমাদের পূর্বপুরুষদের জানানো।

আর একত্রিত হবার আরেকটি কারণ হলো উত্তরসূরিদের তাঁদের শিকড় সম্পর্কে জানানো, যাতে তারা যেখানেই যায়, এটা যেন মনে থাকে তারা কোথা থেকে এসেছে।


খবরটি পঠিত হয়েছে ১৩৬৪০ বার

তিনি বেঁচে ছিলেন ২৫৬ বছর!
‘পৃথিবীতে আমার যা যা করার কথা ছিল সবই আমি করেছি।’
বিস্তারিত
‘লাইক’ পেতে ১৫ তলার জানলা
ছবিটি দেখলে শিউরে উঠবেন না, এমন কে আছে! একটি শিশুকে
বিস্তারিত
‘চিকেন’ খাওয়ার জন্য ৭ দিনের
একটানা দীর্ঘদিন কাজ করতে কার ভাল লাগে? টুক করে একটু
বিস্তারিত
ঝুলন্ত অবস্থায় বিয়ে!
বিয়ে প্রত্যেক মানুষের জন্যই একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। এর মুহূর্তগুলো সবার
বিস্তারিত
আস্ত ছাগল খেয়ে ফেলল অজগর!
অজগরের ‌‌‘কীর্তি’ সবারই জানা। তবে এসব কাণ্ড ঘটানোর পরের মুহূর্তটা
বিস্তারিত
ছাগলে খেল ৬২ হাজার রুপি
ভারতের উত্তর প্রদেশের কাননউজ জেলার সিলুয়াপুর গ্রামে ঘটেছে এক অঘটন।
বিস্তারিত