‘এসআই আকরাম হত্যায় জড়িত বাবুল আক্তার’

আকরাম হোসেনকে নামের এক উপপরিদর্শককে (এসআই) পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। চট্টগ্রামের সাবেক পুলিশ কর্মকর্তা এসপি বাবুল আক্তার ও তাঁর কথিত প্রেমিকা বনানী বিনতে বশির বন্নি।

আজ শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ঝিনাইদহ প্রেসক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন নিহত এসআই আকরামের পাঁচ বোন। বন্নি তাঁদের একমাত্র ভাইয়ের স্ত্রী।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠকালে আকরাম হত্যা মামলার বাদী বোন জান্নাতারা পারভীন রিনি বলেন, ‘আমাদের একমাত্র ভাইয়ের বিয়ে হয় ২০০৬ সালের ১৩ জানুয়ারি ঝিনাইদহ সদরের মগরখালী গ্রামের বসির উদ্দিন বাদশার মেয়ে বনানী বসির বন্নির সঙ্গে। বিয়ের পর তাদের একটি কন্যা সন্তান হয়।’

রিনি অভিযোগ করেন বিয়ের আগে থেকেই বন্নির সঙ্গে সাবেক পুলিশ কর্মকর্তা বাবুল আক্তারের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। বিয়ের পর তা পরকীয়াতে রূপ নেয়। এ বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পর আকরাম ও বন্নির মধ্যে দাম্পত্য কলহ দেখা দেয়।

তারই জের ধরে গত ২০১৪ সালের ২৮ ডিসেম্বর ঢাকা থেকে হোন্ডা যোগে যমুনা সেতু হয়ে ঝিনাইদহে বাড়িতে আসার পথে শৈলকূপার বড়দাহ নামক স্থানে মহাসড়কে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা হামলা চালিয়ে তাকে মারাত্মক আহত করে ফেলে রাখা হয়।

মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে তাকে প্রথমে ঝিনাইদহ ও পরে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজে ভর্তি করা হয়। পরের দিন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে ১৭ দিন পর ২০১৫ সালের ১৩ জানুয়ারি সে মারা যায়।

রিনি আরো বলেন, ‘২০১৪ সালের ১৪ জুন থেকে ২০১৫ সালের ১৪ জুন পর্যন্ত বাবুল আক্তার মিশনে ছিল। এসময় তিনি ৩ বার দেশে এসে চট্রগ্রামে না থেকে মাগুরা ও ঢাকায় বন্নির সাথে সময় কাটায় এবং পরিকল্পিতভাবে ভাইকে হত্যা করে।’

লিখিত বক্তব্যে তিনি আরো অভিযোগ করেন, আমরা এ ব্যাপারে শৈলকূপা থানায় হত্যা মামলা দায়ের করতে গেলে সংশ্লিষ্ট থানার তৎকালীন ওসি হাশেম খান তা গ্রহণ করেননি।
পরবর্তীতে সে সময়কার ঝিনাইদহের পুলিশ সুপার আলতাফ হোসেনের কাছে গেলে তিনি তাচ্ছিল্য করে আমাদের পাঁচ বোনকে অফিস থেকে বের করে দেন। পরে বাধ্য হয়ে আমরা ঝিনাইদহের আদালতে ভাই হত্যার বিচার চেয়ে একটি মামলা দায়ের করি।

সাংবাদিক সম্মেলনের মাধ্যমে এসআই আকরাম হত্যার সুষ্ঠু তদন্ত পূর্বক সঠিক বিচার দাবি করা হয়। সাংবাদিক সম্মেলনে বোন রেহানা খাতুন, ফেরদৌস আরা, জান্নাত আরা পারভীন রিনি, শাহনাজা পারভীন রিপা ও শামিমা নাসরিন মুক্তি উপস্থিত ছিলেন।


মাদকবিরোধী অভিযান, ৯ জেলায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’
সারাদেশে চলমান মাদকবিরোধী অভিযানে র‌্যাব ও পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নয়
বিস্তারিত
বন্ধু হয়ে থাকার অঙ্গীকার
ঐতিহাসিক সম্পর্ক ও পারস্পরিক সহযোগিতাকে গুরুত্ব দিয়ে আগামীতেও বন্ধু হয়ে
বিস্তারিত
ঈদে ঢাকা-বরিশাল নৌরুটে কেবিন বুকিংয়ের
আসন্ন ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ঢাকা-বরিশাল নৌরুটের বেসরকারি লঞ্চের স্পেশাল সার্ভিসের
বিস্তারিত
কঙ্গোতে নৌকা ডুবে ৪৯ জনের
কঙ্গোলিস রেডিও জানিয়েছে, পশ্চিম আফ্রিকার দেশ কঙ্গোতে নৌকা ডুবে ৪৯
বিস্তারিত
জাতীয় কবির সমাধিতে সর্বস্তরের মানুষের
১১৯তম জন্মবার্ষিকীতে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের সমাধিতে ফুল দিয়ে
বিস্তারিত
ছয়দিনে কথিত বন্দুকযুদ্ধে অর্ধ শতাধিক
আইনশৃঙ্খলার বাহিনীর সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে আজসহ ছয়দিনে অর্ধ শতাধিক মানুষ
বিস্তারিত