গ্রিন ইউনিভার্সিটির নতুন উপ-উপাচার্য হলেন অধ্যাপক ড. ফৈয়াজ খান

ইলেকট্রিক ও এনার্জি জগতের অন্যতম পথিকৃৎ শিক্ষাবিদ অধ্যাপক ড. মো. ফৈয়াজ খান গ্রিন ইউনিভার্সিটি’র উপ-উপাচার্য হিসেবে যোগদান করেছেন। 
আজ মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে আড়ম্বরপূর্ণ এক অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে নতুন কর্মস্থল শুরু করেন তিনি। গ্রিন ইউনিভর্সিটির জনসংযোগ দফতর থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।
অধ্যাপক ফৈয়াজ খান গ্রিন ইউনিভার্সিটিতে যোগদানের জন্য গ্রিন ইউনিভার্সিতে আসলে রেজিস্ট্রার লে. জে. মো. মইনুল ইসলামের (অব.) নেতৃত্বে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের কর্মকর্তারা তাকে স্বাগত জানান। পরে সদ্য যোগদানকারী উপ-উপাচার্যকে নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. গোলাম সামদানী ফকির, ট্রেজারার ও ছাত্র বিষয়ক পরিচালক মো. শহীদ উল্লাহ, অধ্যাপক ড. গোলাম আহমেদ ফারুকী এবং অধ্যাপক ড. মো. ফাইজুর রহমানসহ বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক ও কর্মকর্তারা এক সৌজন্য সাক্ষাতে মিলিত হন। 
এ সময় রেজিস্ট্রার লে. জে. মো. মইনুল ইসলাম (অব.) গ্রিন ইউনিভার্সিটির সার-সংক্ষেপ তুলে ধরেন। 
নতুন উপ-উপাচার্যের যোগদানে উপস্থিত সকলেই প্রত্যাশা করেন, উপাচার্যের নেতৃত্ব এবং উপ-উপাচার্যের সহযোগিতায় আরও এগিয়ে যাবে গ্রিন ইউনিভার্সিটি। 
অন্যদিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সুনামকে আরও এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন সদ্য যোগদানকারী অধ্যাপক ফৈয়াজ খান।
অধ্যাপক ফৈয়াজ খান বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) থেকে ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয়ে অনার্স ও মাস্টার্স ডিগ্রী অর্জন শেষে ১৯৭৪ সালে একই বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রভাষক হিসেবে কর্মজীবন শুরু করেন। সহকারী অধ্যাপক পদে পদোন্নতি পান ১৯৭৭ সালের জুলাইয়ে। পরে তিনি কুয়েত সরকারের বিদ্যুৎ ও পানি বিভাগের অধীনে টেস্টিং অ্যান্ড কমিশনিং ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। নিয়োজিত ছিলেন সৌদি আরব সরকারের কৃষি ও পানি মন্ত্রণালয়াধীন বিদ্যুৎ বিভাগের প্রধান কর্তা হিসেবেও। 
সেখানে দীর্ঘদিন সেবাদানের পর ১৯৯০ থেকে ১৯৯৬ পর্যন্ত বাহরাইন বিশ্ববিদ্যালয়ের ইলেক্ট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে শিক্ষকতা করেন। পরে দেশে ফিরে ইসলামিক ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজি (আইউটি), আহ্ছান উল্লাহ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, দি ইউনিভার্সিটি অব এশিয়া প্যাসিফিক (ইউএপি) এবং সর্বশেষ ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে (ইউআইইউ) অধ্যাপনা করেন।


শিল্পকলা একাডেমিতে কবিতায় বঙ্গবন্ধু
দেশের বিশিষ্ট বাচিক শিল্পীরা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে
বিস্তারিত
কবি শামসুর রাহমানের মৃত্যুবার্ষিকী পালিত
আধুনিক বাংলা কবিতার অন্যতম শ্রেষ্ঠ কবি, লেখক ও সাংবাদিক শামসুর
বিস্তারিত
হুমায়ূন আহমেদের শেষ দিনগুলো
আমেরিকায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২০১২ সালের ১৯শে জুলাই মারা যান বাংলাদেশের
বিস্তারিত
কথাসাহিত্যিক হুমায়ুন আহমেদের ষষ্ঠ মৃত্যুবার্ষিকী
বাংলা সাহিত্যের বরেণ্য ব্যক্তিত্ব, খ্যাতিমান কথাশিল্পী, চলচ্চিত্র-নাটক নির্মাতা হুমায়ুন আহমেদের
বিস্তারিত
সৌন্দর্যের অপ্সরী শিল্পাচার্য জয়নুল ও
ব্রহ্মপুত্র নদের তীরঘেঁষা ময়মনসিংহ শহর। শিশু জয়নুল খেলে করে বেড়াতেন
বিস্তারিত
কবি সুকান্ত ভট্টাচার্যের ৭১ তম
ক্ষণজন্মা কবি সুকান্ত ভট্টাচার্যের ৭১তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে কবির পৈত্রিক বাড়ির
বিস্তারিত