স্বচালিত রোবটে কুরিয়ার সেবা

যুক্তরাজ্যের রাজধানী লন্ডনের সাউথওয়ার্কে স্বচালিত রোবট পরীক্ষার ঘোষণা দিয়েছে কুরিয়ার সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান হার্মেস। প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান স্টারশিপ টেকনোলজিসের তৈরি এ রোবটগুলো গ্রাহকের কাছে পার্সেল পৌঁছে দেয়ার পরিবর্তে তাদের কাছ থেকে সেটি সংগ্রহ করবে বলে জানানো হয়েছে।পরীক্ষার জন্য যে রোবটগুলো ব্যবহার করা হচ্ছে, তাতে ছয়টি চাকা রয়েছে। এর আগে জার্মানির হামবুর্গে পণ্য সরবরাহ করতে এ ধরনের পাইলট প্রকল্প চালানো হয়। নতুন এ প্রকল্প নিয়ে এরই মধ্যে ভিন্ন ভিন্ন মতামত দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। অনেক বিশেষজ্ঞ মনে করছেন, এ প্রকল্প চালু হলে নেতিবাচক প্রভাব পড়তে পারে। এ মুহূর্তে বড় শহরগুলোয় মানুষের সংখ্যার কারণে হাঁটাচলা করা কষ্টকর। কিছু সময় পর ব্যাপারটা এমন হবে- আমাদের রোবটকে এড়িয়ে চলতে হবে। আমি নিশ্চিত নই, সেটা ভালো কোনো পৃথিবী হবে কিনা- এসব কথা বলেন ইউনিভার্সিটি অব স্যালফোর্ড স্কুল অব এনভায়রনমেন্ট অ্যান্ড লাইফ সায়েন্সের অধ্যাপক অ্যান্ডি মিয়া।
এরই মধ্যে স্টারশিপের এ রোবটের ব্যবহার শুরু করেছে খাদ্য সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান ‘জাস্ট ইট’। নতুন এ রোবটগুলো ৫৫ সেন্টিমিটার উঁচু ও ৭০ সেন্টিমিটার লম্বা। 
১৮ কেজি ওজনের রোবটগুলো ঘণ্টায় ৬.৪ কিলোমিটার বেগে চলতে পারে বলে জানানো হয়েছে। আপাতত নিয়ন্ত্রণ কেন্দ্রের ২ মাইল এলাকায় ৩০ মিনিটের মধ্যে পণ্য সংগ্রহ করতে এটি পরীক্ষা করবে হার্মেস। ১০ কেজি পর্যন্ত কার্গো পরিবহন করতে পারে রোবটগুলো। এতে পার্সেলগুলো রোবটের নিরাপদ কুঠুরিতে রাখা হবে। এটি খুলতে একটি নির্দিষ্ট কোড প্রয়োজন পড়বে, যা গ্রাহকের স্মার্টফোনে পাঠানো হবে। সূত্র : বিবিসি


খবরটি পঠিত হয়েছে ১২৪০ বার

‘কেউ কেউ আমাকে বিয়ে করতেও
বিশ্ব মিডিয়ার আগ্রহের কেন্দ্রে উঠে এসেছেন বাংলাদেশী এক ঔপন্যাসিক। সম্প্রতি
বিস্তারিত
এবার কৃত্রিম গর্ভ তৈরি করল
কৃত্রিম গর্ভ তৈরি করেছেন বলে দাবি করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের বিজ্ঞানীরা। তারা
বিস্তারিত
কৃষ্ণচূড়া ফুলে লাল হয়েছে লোহাগড়ার
‌‘গাছে গাছে কৃষ্ণচূড়ায় সময়ের শিহরণ, গ্রীষ্মের খরতাপে রক্তিম জাগরণ’। গ্রীষ্ম
বিস্তারিত
জীবন নিয়ে কে কি ভাবেন?
গ্রিক দার্শনিক সক্রেটিস জীবনকে মনে করতেন মৃত্যুর চেয়েও কঠিন। দুঃখ-কষ্ট
বিস্তারিত
হাওরবাসীর চোখে জল নেই!
হাওরের দুঃখ কোথায়? মানুষের ব্যবহারে। সখিনার দুঃখ কোথায়? বুকের গহীনে।
বিস্তারিত
ভূগর্ভের ৪৫ ফুট নিচে বাড়ি!
পারমাণবিক শক্তিধর দেশেগুলোর মধ্যে উত্তেজনা দিন দিন বাড়ছে। যেকোনো সময়
বিস্তারিত