এমন রহস্যময় প্রাণী আগে দেখা যায়নি পৃথিবীতে!

পৃথিবীর বয়স কম হয়নি! তবু এখনও তার বুকে রয়ে গেছে অনেক অনাবিষ্কৃত রহস্যের খোঁজ। পৃথিবীর সেই রহস্য ভেদ করতে মানুষের জুড়ি মেলা ভার। এমনকী পৃথিবী ছেড়ে সে পাড়ি দিয়েছে মহাবিশ্বের দিকেও। তবু আজও পৃথিবী তাকে থেকেই থেকেই চমকে দেয়। ঠিক যেমন চমকালেন পশ্চিম ইন্দোনেশিয়ার এক দ্বীপের বাসিন্দারা।

সে দ্বীপের পাশে ভেসে উঠতে দেখা যায় এক অতিকায় জন্তুর মৃতদেহ। লাল জল দেখেই সন্দেহ হয়েছিল অধিবাসীদের। খোঁজ করতে গিয়েই এই অদ্ভুদতর্শন প্রাণীটির দেখা মেলে। এ প্রাণীকে সম্ভবত এর আগে দেখা যায়নি পৃথিবীতে। কোথায় ছিল, কীভাবে এসেছে তা জানারও কোনও উপায় নেই। কেননা জন্তুটিকে যখন মানুষের চোখে পড়ে তখন সেটি মৃত। মনে করা হচ্ছে, চোখে পড়ার দিন তিনেক আগেই মৃত্যু হয়েছে প্রাণীটির। কিন্তু এমন দৈত্যাকার জন্তু দেখে চক্ষু চড়কগাছ বাসিন্দাদের। সামুদ্রিক প্রাণিটি লম্বায় প্রায় ৫০ ফুট। কোনওভাবেই অন্য কোনও জন্তুর সঙ্গে সেটির মিল পাওয়া যায় না।

প্রাণীটিকে আবিষ্কার করামাত্র খবর দেওয়া হয় বিশেষজ্ঞদের। প্রথমে বাসিন্দারা ধারণ করেছিলেন, এটি বোধহয় কোনও অতিকায় স্কুইড। যদিও বিশেষজ্ঞদের মতে এটি তিমিরই প্রজাতি হতে পারে। দৈত্যাকার এই প্রজাতির তিমি এর আগে দেখা যায়নি। ঠিক কোন প্রজাতির প্রাণী তা জানার জন্য পরীক্ষা চলছে। তবে পৃথিবীতে যে আজও বহু বিস্ময় অবশিষ্ট আছে, এই মৃত জন্তুটিই যেন মানুষকে তা মনে করিয়ে দিল।


হাসি ও গম্ভীর মুখের পার্থক্য
আমরা কথায় কথায় কাউকে না কাউকে ছাগল বলে ফেলি। ছাগল
বিস্তারিত
স্কুলে শিক্ষক একজন, শিক্ষার্থীও এক!
ভারতের কলকাতার ঝাঁ চকচকে গুরুগ্রাম (গুরগাঁও) থেকে মাত্র ৬০ কিমি
বিস্তারিত
হাতে হেঁটে ১০ কিমি. পাড়ি!
প্রবল ইচ্ছাশক্তির কঠিন পরীক্ষা দিয়েছেন সোলায়মান মাগোমেদয়। রাশিয়ার দাগেনস্টানের ৫৩
বিস্তারিত
৬৬ বছর পর নখ কাটলেন
হাতের নখ কাটাতে ভারতের পুনে থেকে নিউ ইয়র্কে উড়ে গেলেন
বিস্তারিত
দুই মাথাওয়ালা বাছুর দুধ পান
দুই মাথাওয়ালা এই বাছুরের জন্ম হয়েছে ব্রাজিলের গোইয়া প্রদেশের কাইয়াপোনিয়া
বিস্তারিত
১৮৫ কেজি ওজনের উড়ন্ত মাছ!
গল্পের মতো মনে হলেও সত্যি। মাছও উড়তে পারে। এতদিন নাম
বিস্তারিত