‌‘হামলা কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়’

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের গাড়িবহরের ওপর হামলার ঘটনা ‘খু্বই অন্যায়’ হয়েছে বলে মন্তব্য করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘এটি কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়।’

সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘কে বা কারা ঘটনাটি ঘটিয়েছে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। আমি বিষয়টি নিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলতে চেয়েছিলাম। আইজিপি সাহেবের সঙ্গে কথা বলেছি। চট্টগ্রামের ডিসি-এসপির সঙ্গে কথা বলেছি। বিষয়টি দ্রুত তদন্ত করে দেখতে বলেছি।’

আজ রোববার রাজধানীর বিমানবন্দর সড়কে বিআরটিএ’র ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে গিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন তিনি।

প্রসঙ্গত, রোববার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে রাঙ্গুনিয়া উপজেলার ইছাখালী এলাকায় বিএনপি নেতাদের গাড়িবহরে হামলার ঘটনা ঘটে। এতে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান অবসরপ্রাপ্ত মেজর জেনারেল রুহুল আলম চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবুর রহমান শামীমও আহত হন। শামীম মাথায় আঘাতপ্রাপ্ত হন।

ওবায়দুল কাদের অভিযোগ করেন, বিএনপি তার কর্মসূচি সম্পর্কে পুলিশকে আগে থেকে অবহিত করে না। তারা পুলিশকে সঠিক তথ্য দেয় না। তারা যে রাউজানে যাবে- এ তথ্য ছিল পুলিশের কাছে কিন্তু তারা বামুনিয়া হয়ে গেছে। এ তথ্য ছিল না পুলিশের কাছে। তথ্য থাকলে এমন হামলার ঘটনা হতো না।

তিনি আরও জানান, হামলা ঘটনার পর পুলিশ এসে তাদের ত্রাণ বিতরণে অনুরোধ করেছিল। কিন্তু তারা সেটা করেননি।

এদিকে বিএনপি প্রতিনিধি দলের গাড়িবহরে হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনা ‘রহস্যজনক’ বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের প্রচার প্রকাশনা সম্পাদক ও রাঙ্গুনিয়ার সংসদ সদস্য হাছান মাহমুদ।

হামলার পরপরই বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী দাবি করেন, হামলা ও ভাঙচুরের সময় দুর্বৃত্তরা ‘জয় বাংলা’ স্লোগান দেয়। এ ঘটনায় স্থানীয় সংসদ সদস্য হাছান মাহমুদের সমর্থকরা জড়িত থাকতে পারেন।

এ অভিযোগ অস্বীকার করে হাছান মাহমুদ বলেন, বিষয়টি রহস্যজনক। কারণ, গাড়িতে ধাক্কা লাগার পর রাঙ্গুনিয়া থানা পুলিশ সেখানে যায়। পুলিশ বিএনপি নেতাদের রাঙামাটি পৌঁছে দিতে সহায়তার আশ্বাস দেয়। এরপরও তারা সেই সহায়তা নেয়নি। তাহলে তারা কি আসলেই রাঙামাটি যেতে চাচ্ছিলেন, নাকি ইস্যু তৈরি করতে চাচ্ছিলেন?

ঘটনাটি ‘ন্যক্কারজনক’ বলে মন্তব্য করেছেন দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। বিকেলে এক টুইটে তিনি বলেন, ‘বিএনপি মহাসচিবের ওপর ন্যক্কারজনক হামলার নিন্দা জানাবার ভাষা নেই।’

‘এ হামলা গণতন্ত্র, রাজনীতি, নাগরিক অধিকার ও পরমসহিষ্ণুতার ওপর হামলা। এর পরিণাম শুভ হবে না।’


আ.লীগকে প্রশ্নপত্র জালিয়াতির ‘মূল হোতা’
আওয়ামী লীগ দেশজুড়ে সব প্রশ্নপত্র ফাঁস ও জালিয়াতির মূল হোতা
বিস্তারিত
খালেদার সঙ্গে সুষমার বৈঠক
ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজের সঙ্গে বৈঠক করেছেন বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা
বিস্তারিত
বিএনপির স্থায়ী কমিটির সভা সোমবার
বিএনপির সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী ফোরাম স্থায়ী কমিটির সভা বিএনপির চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক
বিস্তারিত
‘রোহিঙ্গা সংকটে সরকারের নৈতিক অবস্থান
জোর করে ক্ষমতায় থাকা সরকারের রোহিঙ্গা সংকট নিরসনে নৈতিক কোনো
বিস্তারিত
‘নৌকার পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি করতে
আগামী নির্বাচনেও শান্তির পক্ষে রায় দেয়ার আহবান জানিয়ে আওয়ামী লীগের
বিস্তারিত
‘বিএনপি ক্ষমতায় যাওয়ার দুঃস্বপ্ন দেখছে’
২৫ আসন নিয়ে বিএনপির বক্তব্য রঙিন খোয়াব মন্তব্য করে আওয়ামী
বিস্তারিত