মাসআলা


প্রশ্ন : সুন্নত ইতিকাফ ও নফল ইতিকাফ কী? 

উত্তর : রমজানের শেষ দশক ইতিকাফ করা সুন্নতে মুআক্কাদাহ কিফায়াহ। এর কম যে কোনো পরিমাণ সময় ইতিকাফ করলে তা নফল ইতিকাফ হিসেবে গণ্য হবে। নফল ইতিকাফও অত্যন্ত ফজিলতপূর্ণ আমল; তাই সম্পূর্ণ সুন্নত ইতিকাফ পালন করতে না পারলে যতদূর সম্ভব নফল ইতিকাফ করাও গুরুত্বপূর্ণ। নফল ইতিকাফ বছরের যে কোনো সময়ই করা যায়। ইতিকাফের জন্য রোজা শর্ত; কিন্তু স্বল্প সময় (একদিনের কম সময়) ইতিকাফ করলে তার জন্য রোজার শর্ত নয়। নফল ইতিকাফ মান্নত করলে বা আরম্ভ করে ছেড়ে দিলে তা পূর্ণ করা ওয়াজিব। এর জন্য রোজা শর্ত এবং এটি একদিনের (চব্বিশ ঘণ্টা) কমে হবে না। (মাজমুআ ফাতাওয়া)। 
হ মুফতি শাঈখ মুহাম্মাদ উছমান গনী 


ইসলামী বীমার বৈশিষ্ট্য
রাসুল (সা.) বলেছেন, ‘তোমাদের উত্তরাধিকারীদের নিঃস্ব, পরমুখাপেক্ষী ও অপর লোকদের
বিস্তারিত
দুর্নীতি প্রতিরোধে তাকওয়া
বাংলাদেশে যেসব সামাজিক সমস্যা রয়েছে তার মধ্যে সবচেয়ে মারাত্মক হচ্ছে
বিস্তারিত
আলী (রা.) এর কয়েকটি অমূল্য
১. হজরত আলী (রা.) বলেন, ‘মানুষকে সৃষ্টি করা হয়েছে, প্রেম-ভালোবাসার
বিস্তারিত
শিক্ষক ও অভিভাবকদের আদর্শ
প্রাক-ইসলামী যুগে আরবরা ছিল অদৃশ্য জাতি। তাদের ছিল না কোনো
বিস্তারিত
নামাজে একাগ্রতার গুরুত্ব
ঈমানের পর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ইবাদত নামাজ। নামাজের মাধ্যমে মোমিন ব্যক্তি
বিস্তারিত