মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় দেশের কল্যাণে নতুনদের এগিয়ে আসার আহ্বান

সুষ্ঠু সংস্কৃতি, সাহিত্য, ভাষা আন্দোলন, মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস ও ধর্মীয় সঠিক জ্ঞান অর্জনের মাধ্যমে সমাজের অন্ধকার দূর করতে নতুনদের এগিয়ে আসতে হবে
 

মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় দেশের প্রতি মমত্ববোধ রেখে মা-মাটি মানুষের উন্নয়নে মাদক, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদসহ অপকর্মের বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলনের মাধ্যমে সত্য ও সুন্দরের পথে নতুনদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানান ডিএমপির অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার ও কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের প্রধান মোঃ মনিরুল ইসলাম বিপিএম (বার), পিপিএম। পাঠকপ্রিয় জাতীয় দৈনিক আলোকিত বাংলাদেশের লেখক-পাঠক-শুভানুধ্যায়ীদের সংগঠন আলোকিত বন্ধু ফোরাম প্রতিনিধি দলের সঙ্গে আলাপকালে মোঃ মনিরুল ইসলাম বলেন, দেশ ও সমাজের উজ্জ্বল নক্ষত্র হচ্ছে নতুন প্রজন্ম। নতুনরাই আগামী দিনের কর্ণধার। মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধারণ করে সমাজে আলো ছড়াবে নতুনরাই। সেই নতুনরা মাদক ও জঙ্গিবাদের মতো ঘৃণিত কাজে জড়াবে তা মেনে নেওয়া যায় না। তিনি বলেন, সবার আগে প্রত্যেকটি পরিবারকে দায়িত্বশীল হতে হবে। নিজ পরিবারের সদস্যদের প্রতি নিজেদের পরিপূর্ণ খেয়াল রাখতে হবে। মানসিকতার পরিবর্তন করে সচেতনতা বৃদ্ধির সঙ্গে অপরাধ থেকে মুক্ত থাকতে পরিবারকেই প্রধান ভূমিকায় এগিয়ে আসতে হবে। সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়তে মাদকের ভয়াবহ ছোবল, জঙ্গিবাদের মতো স্বাধীনতাবিরোধী কর্মকা- থেকে সবাইকে দূরে থাকার থাকার আহ্বান জানান মোঃ মনিরুল ইসলাম। খুব ব্যস্ততার মধ্যে দিয়ে নতুন প্রজন্মদের আলোকিত মননে দেশ গড়ার কাজে অনুপ্রেরণা জোগাতে মোঃ মনিরুল ইসলাম বলেন, সুষ্ঠু সংস্কৃতি, সাহিত্য, ভাষা আন্দোলন, মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস ও ধর্মীয় সঠিক জ্ঞান অর্জনের মাধ্যমে সমাজের অন্ধকার দূর করতে নতুনদের এগিয়ে আসতে হবে। তিনি বলেন, সমৃদ্ধ দেশ গড়তে হলে প্রয়োজন সুশিক্ষা আর সঠিক পরিকল্পনার বাস্তবায়ন, যা নতুন প্রজন্মের মধ্যে রয়েছে। পরিবার, সমাজ, দেশ ও জাতির কল্যাণে নিবেদিত না থাকলে আলোকিত সমাজ গঠন অসম্ভব। তৃণমূল পর্যায়ে মানুষের মধ্যে জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে অপরাধমুক্ত সমাজ গঠনে দেশের প্রতিটি অঞ্চলে পুলিশিং কার্যক্রম পরিচালনা, ক্যাম্পেইন, সভাসহ দেশ ও মানুষের কল্যাণে মাদকসেবী ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে নতুন প্রজন্মকে আলোর পথ দেখানোর প্রচেষ্টায় প্রশংসনীয় ভূমিকা রেখে চলছেন ডিএমপির অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার ও কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের প্রধান মোঃ মনিরুল ইসলাম বিপিএম (বার), পিপিএম। তিনি আরও বলেন, বন্ধুত্বের মাধ্যমে সামাজিক দায়বদ্ধতা নিয়ে আলোকিত মানুষের বন্ধন নিয়ে সৃষ্টির উৎকর্ষে নতুন মাত্রা যোগ দিতে মানুষের কল্যাণে বন্ধু ফোরাম দেশজুড়ে যেভাবে কাজ করে চলেছে, সত্যিই প্রশংসনীয়। আলোকিত বন্ধু ফোরামের কো-অর্ডিনেটর মুহাম্মদ আশরাফ বিন সামসুদ্দিনের পরিচালনায় এ সময় উপস্থিত ছিলেন সামাজিক পরিবেশ ও মানবাধিকার বাস্তবায়ন সংস্থার চেয়ারম্যান লায়ন এইচ এম ইব্রাহিম ভূঁইয়া ও কদমতলী বন্ধু ফোরামের সদস্য এমজে নিবীড়সহ অনেকে।


প্রতিটি সফলতায় দেশের প্রতি দায়িত্ব
  জীবন চলার পথে প্রতিটি সফলতা দেশ ও মানুষের প্রতি দায়িত্ববোধ
বিস্তারিত
নাগরিক সেবা নিশ্চিতকরণে কাজ করে
মানুষ সমাজে বসবাস করে। সমাজ হলো মানবজীবনের গুরুত্বপূর্ণ একটি মাধ্যম,
বিস্তারিত
মানুষের সেবায় রয়েছে সম্মান ও গৌরব
  মানব সভ্যতাই গড়ে উঠেছে বন্ধুত্বের ছায়ায়। কেননা ঘৃণা নয়, বন্ধুত্বেই
বিস্তারিত
অভিমানের রোদ
তুমি তো জানো না কতটা শীতে ক্লান্ত হৃদয় কতটা সময়
বিস্তারিত
সুশিক্ষা দেশপ্রেম জাগ্রত করে
  সমৃদ্ধিশালী দেশ গড়তে মেধাশক্তিকে কাজে লাগানোর মাধ্যমে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় সামাজিক,
বিস্তারিত
মুজাহিদনগরে বন্ধু ফোরামের সভা
সমাজের উন্নয়নে নিবেদিত থাকার প্রত্যয় নিয়ে মুজাহিদনগরে ফ্লাওয়ার্স কিন্ডারগার্টেন ও
বিস্তারিত