ঠিকাদারকে ছাড়াতে রাতভর থানায় মেয়র আইভী

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের নির্মাণাধীন পার্কের ঠিকাদার জাকির হোসেনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এর প্রতিবাদে নারায়ণগঞ্জ থানায় বুধবার রাত সাড়ে ১০টা থেকে বৃহস্পতিবার ভোর ছয়টা পর্যন্ত অবস্থান করেন নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ডা.সেলিনা হায়াৎ আইভি।
মেয়রের অভিযোগ, পার্কের কাজ বন্ধ করতে পুলিশ একটি পক্ষের দ্বারা প্রভাবিত হয়ে ঠিকাদার জাকির হোসেনকে গ্রেফতার করেছে।
পুলিশ এই অভিযোগ অস্বীকার করে বলছে, রেলওয়ের মামলার পরিপ্রেক্ষিতে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এখানে কোন রাজনৈতিক উদ্দেশ্য নেই।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বুধবার রাত ১০টার দিকে নগরীর পুরাতন কোর্ট কমপ্লেক্সের ভেতরে রত্না ও আব্দুল মতিন এন্টারপ্রাইজের অস্থায়ী কার্যালয় থেকে ঠিকাদার জাকির হোসেনকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ।
নারায়ণগঞ্জ সদর থানার ওসি আব্দুল মালেক জানান, রেলওয়ের এস্টেট অফিসের কানুনগো ইকবাল মাহমুদের মামলার প্রেক্ষিতে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ মামলায় দুইজনকে আসামি করা হয়। প্রথম আসামী এ কে এম আবু সুফিয়ান। দ্বিতীয় আসামি করা হয়েছে জাকির হোসেনকে।
মামলায় অভিযোগ করা হয়, গত ২৭ মার্চ তারা (রেলওয়ে) খবর পান, সিটি কর্পোরেশন অবৈধভাবে রেলওয়ের ৯ দশমিক ৯ একর জমিতে পার্ক নির্মাণ করছে। অভিযোগ পেয়ে সেখানে গেলে এই মামলার দুই আসামিসহ কতিপয় লোক লাঠিসোটা, দা, বল্লম নিয়ে তাদের ওপর হামলার চেষ্টা করে। তারা রেলওয়ের প্রায় চল্লিশ লাখ টাকা মূল্যের সম্পত্তি বিনষ্ট করে। এই স্থান থেকে রেলওয়ের স্লিপার, গাছপালাসহ প্রায় পাঁচ লাখ টাকা মুল্যের সম্পত্তি চুরি করে নিয়ে যায়। এস্টেট অফিসার শাহাদাত্ হোসাইন ও সহকারি বিভাগীয় এস্টেট অফিসার কাজী হাবিবুল্লাহসহ ঊর্ধ্বতন কতৃপক্ষের সাথে আলোচনা করে এই মামলা দায়ের করেন বলে মামলায় উল্লেখ করা হয়।
নগরীর বাবুরাইল-দেওভোগ এলাকায় প্রাথমিকভাবে প্রায় সাড়ে সাত কোটি টাকা ব্যয়ে এ পার্ক নির্মাণ করা হচ্ছে। প্রায় তিন মাস আগে পার্কের কাজ শুরুর পর থেকেই একটি পক্ষ পার্ক নির্মানের বিরোধিতা করছে বলে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ডাঃ সেলিনা হায়াত আইভী অভিযোগ করেন।
রাত পৌনে নারায়ণগঞ্জ থানায় তিনি বলেন, যদি অপরাধ হয়ে থাকে সেটা আমি করেছি। আমি এই পার্ক নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছি। কোন মামলা হলে আমার বিরুদ্ধে হওয়া দরকার। এরপর মামলায় প্রথম আসামি করা হয়েছে আমার কর্মী ঠিকাদার সুফিয়ানকে। মামলা করতে হলে আমার পরে আসে এ কাজের ঠিকাদার কোম্পানি। সুফিয়ান এ প্রকল্পের ঠিকাদার নয়। অথচ তাকে মামলার প্রথম আসামি করা হয়েছে। এ থেকেই বোঝা যায় বিষয়টি রাজনৈতিক। একটি মহলের প্রভাবে রেলওয়ের এক কর্মকর্তা ও পুলিশ এ কাজ করেছে। রেলওয়ের সচিব আমাকে জানিয়েছেন তিনি এ মামলার ব্যাপারে জানেননা। রাত হওয়ায় আমি রেলমন্ত্রীকে টেলিফোনে পাচ্ছি না। আমি অন্যায়ের প্রতিবাদ জানাতে এখানে এসেছি।
আজ সকাল ছয়টায় মেয়র লোকজনদের সাথে নিয়ে থানা থেকে বের হয়ে প্রথমে দেওভোগে প্রকল্পটির স্থানে ও পরে বাড়ি চলে যান।-বাসস।

 


আমি সাক্ষ্য দিচ্ছি, গত নির্বাচনে
১৪ দলের অন্যতম শরিক ও ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান
বিস্তারিত
সাঈদের সঙ্গে আরো ১৬ কাউন্সিলর
স্থানীয় সরকারের সিটি করপোরেশন আইনে বলা হয়েছে, মেয়র অথবা কাউন্সিলর
বিস্তারিত
জামায়াতকে তালাক দিতে বললেন জাফরুল্লাহ
২০ দলীয় জোট থেকে জামায়াতকে তালাক (বাদ) দিয়ে বিএনপিকে রাস্তায়
বিস্তারিত
যুবলীগের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর বৈঠক নিয়ে
যুবলীগ নেতাদের সঙ্গে আগামী রোববার গণভবনে বৈঠকে বসছেন আওয়ামী লীগ
বিস্তারিত
ছাত্রদলের সভাপতি-সম্পাদককে আদালতে হাজিরের নির্দেশ
ছাত্রদলের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে ২০শে নভেম্বর হাজির হতে নির্দেশ
বিস্তারিত
যে কারণে গণভবনে প্রবেশ নিষেধ
যুবলীগের ৭ম জাতীয় কংগ্রেস ২৩ নভেম্বর। কংগ্রেস সামনে রেখে সংগঠনটির
বিস্তারিত