মানবতাবিরোধী অপরাধ

আজহার ও কায়সারের আপিল শুনানি ১০ অক্টোবর

একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় জামায়াতে ইসলামীর সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল এটিএম আজহারুল ইসলাম ও জাতীয় পার্টির (জাপা) নেতা সাবেক কৃষি প্রতিমন্ত্রী সৈয়দ মোহাম্মদ কায়সারের আপিল শুনানির জন্য আগামী ১০ অক্টোবর তারিখ ধার্য করেছেন আপিল বিভাগ। একই সঙ্গে আগামী ২৪ আগস্টের মধ্যে আপিলের সার সংক্ষেপ দাখিল করতে আসামি ও রাষ্ট্রপক্ষকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

রোববার (১৩ আগস্ট) প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতত্বে তিন সদস্যের আপিল বেঞ্চ এ দিন ধার্য করেন। বেঞ্চের অপর দুই সদস্য হলেন- বিচারপতি সৈয়দ মাহমদু হোসেন ও বিচারপতি মির্জা হোসেইন হায়দার। আদালতে এটিএম আজহারের পক্ষে অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন তুহিন এবং আর সৈয়দ কায়সারের পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট এসএম শাজাহান। অপরদিকে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটির্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।

আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল থেকে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াত নেতা এটিএম আজহারুল ইসলাম খালাস চেয়ে ২০১৫ সালের ২৯ জানুয়ারি আপিল করেন। আপিলে তার খালাসের পক্ষে ১১৩টি যুক্তি তুলে ধরা হয়।

২০১৪ সালের ৩০ ডিসেম্বর আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১ এর চেয়ারম্যান বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিমের নেতৃত্বাধীন ট্রাইব্যুনাল তার বিরুদ্ধে মৃত্যুদণ্ড ঘোষণা করে রায় দিয়েছিল।

অন্যদিকে জাতীয় পার্টির (জাপা) নেতা সাবেক কৃষি প্রতিমন্ত্রী সৈয়দ মোহাম্মদ কায়সার খালাস চেয়ে ট্রাইব্যুনালের রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করেন। আপিলে ট্রাইব্যুনালের রায় বাতিলের পাশাপাশি তাকে বেকসুর খালাস দেয়ার আবেদন জানানো হয়।

২০১৫ সালের ১৯ জানিুয়ারি সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের সংশ্লিষ্ট শাখায় এই আপিল করা হয়।

আপিলে খালাসের আরজিতে ৫৬টি যুক্তি তুলে ধরা হয়েছে। ৫০ পৃষ্ঠার মূল আপিলের সঙ্গে প্রয়োজনীয় নথি সংযুক্ত রয়েছে।

২০১৪ সালের ২৩ ডিসেম্বর আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-২ এর চেয়ারম্যান বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের নেতৃত্বাধীন আদালত কায়সারকে মৃত্যুদণ্ড ঘোষণা করে রায় দেন।

গণহত্যার একটি, হত্যা, নির্যাতন, অগ্নিসংযোগ ও লুণ্ঠনের ১৩টি ও ধর্ষণের দুটিসহ মোট ১৬টি অভিযোগ তার বিরুদ্ধে আনা হয়। এর মধ্যে ১৪টি ট্রাইব্যুনালের রায়ে প্রমাণিত হয়েছে। এর মধ্যে ৩, ৫, ৬, ৮, ১০, ১২ ও ১৬ নম্বর অভিযোগে তাকে মৃত্যুদণ্ড দেয়া হয়।


প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আ.লীগের গণসংবর্ধনা
দেশের উন্নয়ন ও অর্জনে অনন্য সফলতার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে
বিস্তারিত
‘খালেদার মুক্তির একমাত্র পথ আদালত’
আন্দোলন নয় খালেদার মুক্তির একমাত্র পথ আদালত -এমন মন্তব্য করেছেন
বিস্তারিত
‘খালেদাকে আটকে রেখে সরকার সাজানো
খালেদা জিয়াকে আটকে রেখে সরকার সাজানো নির্বাচন করতে চায় বলে
বিস্তারিত
প্রধানমন্ত্রীর গণসংবর্ধনা, পার্কিংয়ে ডিএমপি’র নির্দেশনা
উন্নয়ন ও অর্জনে অসামান্য অবদান রাখায় আওয়ামী লীগ সভাপতি ও
বিস্তারিত
লোকসভায় আচমকা মোদিকে আলিঙ্গন করলেন
‘পাপ্পু’র বদলে ‘ঝাপ্পি’। ‘হিংসা’র বদলা আলিঙ্গন। এরকমই এক অভাবনীয় মুহূর্তের
বিস্তারিত
আসন্ন নির্বাচনে হাসিনা গোল মিস
সম্প্রতি শেষ হওয়া বিশ্বকাপে মেসি-নেইমার গোল দিতে যথেষ্ট ব্যর্থতা দেখিয়েছে।
বিস্তারিত