নেপালে ঋতুকালীন মেয়েদের বাইরে পাঠালে জরিমানা

অবশেষে নেপালি নারীদের জন্য সুখবর এলো। এখন থেকে ঋতুকালীন মেয়েদেরকে বাড়ির বাইরে থাকতে হবে না। বুধবার (৯ আগস্ট) নেপালের পার্লামেন্ট সে দেশের বহুল বিতর্কিত ‘ছৌপাদি’ প্রথা নিষিদ্ধ করেছে। এখন থেকে কোন পরিবার তার কোন নারী সদস্যকে ঋতুকালীন বাড়ির বাইরে পাঠালে তা হবে অপরাধ। এজন্য গুনতে হবে জরিমানাও। 

নেপালে শত শত বছর ধরে ঋতুকালীন ছৌপাদি প্রথা প্রচলিত ছিল। এ প্রথা অনুযায়ী ঋতুকালীন নারীদেরকে জোরপূর্বক বাড়ির বাইরে বের করে দেওয়া হত। প্রতি মাসেই পরিবারের আপনজনেরাই এমনটা করতেন। এভাবে বাইরে থাকায় ঠান্ডায় ও সাপের কামড়ে বহু নারীর মৃত্যুর ঘটনাও ঘটেছে। এসময় মেয়েরা ঘরে থাকলে অমঙ্গল হবে, এমনকি বাঘও আক্রমণ করতে পারে এমন ধারণা থেকেই মেয়েদের সঙ্গে এ রূপ আচরণ করা হত। 

নারীদের ঘরে রাখলে সৃষ্টিকর্তা রাগ হবেন এমন ধারণাও নেপালি সমাজে প্রচলিত রয়েছে। অনেক দিন থেকেই কুসংস্কারাচ্ছন্ন এই ছৌপাদি প্রথা বাতিলের দাবি জানিয়ে আসছিলেন দেশটির মানবাধিকারকর্মীরা। তবে এবার ভয়ংকর এ প্রথাটি সংসদে বাতিল হওয়ায় সন্তোষ জানিয়েছে তারা।

তবে বেশিরভাগ নেপালি মনে করছেন, নেপালে সামাজিক দৃষ্টিভঙ্গি পরিবর্তন না হলে এ ধরণের আইন করে নারীদের সুরক্ষা দেওয়া খুব একটা ফলপ্রসূ হবে না। 

নেপালের সুপ্রিম কোর্ট ২০০৫ সালে ছৌপাদি প্রথা নিষিদ্ধ করলেও সে দেশের অনেক এলাকায় বিশেষত পশ্চিমাঞ্চলে এই প্রথার প্রকোপ ছিল খুব বেশি। তবে সংসদে নিষিদ্ধ করে বিল পাশ করায় এখন আগের চেয়ে বেশি কার্যকর হবে বলে মনে করছেন দেশটির আইনপ্রণেতারা।

সূত্র: আল-জাজিরা


খবরটি পঠিত হয়েছে ৮৪৬০ বার

দুই দশক পরেও ব্রিটেনের গণমাধ্যমে
দুই দশক পর আবারও ব্রিটেনের দৈনিক পত্রিকাগুলোর প্রথম পাতায় জায়গা
বিস্তারিত
নওয়াজ শরীফের স্ত্রীর শরীরে ক্যান্সার
পাকিস্তানের সদ্য সাবেক ক্ষমতাচ্যুত প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফের স্ত্রীর বেগম কুলসুম
বিস্তারিত
মালদ্বীপের পার্লামেন্ট সেনাবাহিনীর দখলে
মালদ্বীপের জাতীয় পার্লামেন্টের স্পিকারের অভিশংসন বন্ধ করতে দেশটির সেনাবাহিনী পার্লামেন্ট
বিস্তারিত
তিন তালাক অবৈধ : ভারতের
শুধুমাত্র মুখে ‘তিন তালাক’ উচ্চারণ করেই মুসলমানদের বিবাহ বিচ্ছেদের বহুল
বিস্তারিত
প্রেসিডেন্টের মেয়ের যে ছবি নিয়ে
কিরঘিজস্তানের প্রেসিডেন্ট আলমাজবেকের মেয়ের ছবি নিয়ে আপত্তি উঠেছে। তবে ছবিটি
বিস্তারিত
সহকর্মীর শরীরে এইচআইভির রক্ত পুশের
প্রতিশোধ নেয়ার এক ভিন্ন ধরণ দেখালেন ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশের এক চিকিৎসক।
বিস্তারিত