ইসলাম ও মিডিয়া শীর্ষক দাওয়াহ কনফারেন্স অনুষ্ঠিত

নিউ ইয়র্কের জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টারে আইটিভি ইউএসএ আয়োজিত ইসলামে মিডিয়ার ভূমিকা শীর্ষক এক দাওয়াহ কনফারেন্স অনুষ্ঠিত হয়েছে।
জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টারের সন্মানিত সেক্রেটার জেনারেলের সঞ্চালনা এবং আইটিভি ইউএসএ’র প্রধান নির্বাহী মুহাম্মদ শহীদুল্লাহর তত্ত্বাবধানে নিউ ইয়র্কের মাটিতে এই প্রথম এমন একটি ব্যতিক্রমধর্মী কনফারেন্স অনুষ্ঠিত হয়।
অনুষ্ঠানের পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করেন জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টারের ডাইরেক্টর ইমাম শামসি আলী এবং নাশিদ পরিবেশন করেন ইমাম ব্রাদার সালাহ। 
স্বাগত বক্তব্য রাখেন জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টারের প্রেসিডেন্ট বিশিষ্ঠ সমাজসেবক ডা. মোহাম্মদ অহিদুর রহমান। 
তিনি বলেন, জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টার বৃহত্তর আমেরিকাতে একটি মডেল প্রতিষ্ঠান। বর্তমানে ইসলামিক মিডিয়ার গুরুত্ব অনেক বেশি। ইসলামি মিডিয়া প্রতিষ্ঠায়আমাদের সবার অগ্রনী ভুমিকা পালন করা উচিত। আইটিভি ইউএসএ’র কাছে আমার আশা, ইসলাম বিষয়ক প্রচলিত বিভিন্ন ভ্রান্ত ধারনাগুলোর অবসানে বিশেষ ভূমিকা পালন করবে তারা এবং দর্শকপ্রিয়তা অর্জন করবে। আইটিভি ইউএসএ’র অনুষ্ঠানের বিষয় নির্বাচন ও মান দেখে আমি সন্তুষ্ট। জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টার সব সময় আইটিভির পাশে থাকবে ইনশা আল্লাহ।
কনফারেন্সে দি রোল অফ মিডিয়া ইন ইসলাম বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা পেশ করেন জাতিসংঘের ইন্টারফেইথ এক্টিভিস্ট, নুছতারা ফাউণ্ডেশন প্রেসিডেন্ট এবং জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টারের ডিরেক্টর ইমাম শামসি আলী। 
তিনি বলেন, বিশ্বব্যাপি প্রায় ১৫ হাজার মিডিয়া রয়েছে কিন্তু আফসোসের বিষয় হচ্ছে এই সংখ্যায় ইসলামিক মিডিয়ার অংশ খুবই গৌণ। যাও রয়েছে তা শুধুই লোকাল মিডিয়া। শক্তিশালী আন্তর্জাতিক মান সম্পন্ন কোনো ইসলামিক মিডিয়া বিশ্বে নেই বললে ভুল হবে না। আজ বিশ্বব্যাপি মুসলিমদের উপর আরোপিত যত ব্লেম রয়েছে তা সবই মুডিয়ার কৌশল। শান্তির ধর্ম ইসলামের বার্তা প্রচারের বর্তমান সময়ের সবচেয়ে সুন্দর এবং দ্রুততম কার্যকরি মাধ্যম হচ্ছে মিডিয়া। প্রতিটি দেশে প্রতিরক্ষায় দায়িত্বে সেনাবাহিনির ভুমিকার মতো বিশ্বপ্রতিরক্ষায় মিডিয়ার ভূমিকার অতুলনীয়। আমি আশা করি মিডিয়াকেন্দ্রিক আমাদের সকল আশার কেন্দ্রবিন্দু হবে আইটিভি ইউএসএ।
বিভিন্ন যুগে নবি-রাসুলদের বিভিন্ন মোজেঝার কথা তুলে ধরে চিলড্রেন অফ আদামস –এর ডিরেক্টর ও মসজিদে হামজাহর খতিব ড. মুফতি ফারহান বলেন, নবি-রাসুলদের দাওয়াতি কার্যক্রমের আর্দশের আলোকে বর্তমান সময়ে ইসলামের দাওয়াত পরিচালনা করার ক্ষেত্রে স্যোসাল মিডিয়াসহ ইলেকট্রনিক মিডিয়ার কোনো বিকল্প নেই। মিডিয়ার মাধ্যমে আমাদেরকে মুলধারার আমেরিকানদের কাছে ইসলামের গুরুত্ব ও সৌন্দর্যের কথা তুলে ধরতে হবে। আইটিভি ইউএসএ’র অনুষ্ঠানের মানের প্রতি সন্তুষ্টি প্রকাশ করে তিনি বলেন, বিশ্বব্যাপি ইসলামের বার্তা পৌছানোর কাজে আইটিভি ইউএসএ অগ্রনী ভূমিকা পালন করবে এমনটাই আমার আশা। 
বিভিন্ন স্যোসাল মিডিয়াগুলোকে ইসলামের দাওয়াতি কাজে কীভাবে ব্যবহার করা যায় এই বিষয়ের ওপর আলোকপাত করেন জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টারের ইয়ূথ ডিরেক্টর সালাহউদ্দিন।
তিনি বলেন, বিভিন্ন স্যোসাল মিডিয়াতে প্রতিদিন এক ঘণ্টার বেশি সময় ব্যয় করেন আমেরিকান তরুণ-তরুণীরা। ইসলামের দাওয়াত পৌছানোর কাজে স্যোসাল মিডিয়ার সঠিক ব্যবহারের আহ্বান জানিয়ে তিনি আরো বলেন, সুন্দর একটি আমেরিকা গড়ে তুলতে মুসলিম তরুণদেরকে তাদের পরিচয়ের গুরুত্ব অনুধাবন করতে হবে এবং এই পরিচয়ের শুভ চর্চায় নিয়োজিত থাকতে হবে। আইটিভি ইউএসএ এ ক্ষেত্রে বিশেষ ভুমিকা পালন করবে বলে আমি আশাবাদি। 
জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টারের ইমাম ও খতিব মির্জা আবু জাফর বেগ বলেন, আইটিভি ইউএসএ আমাদের প্রতিষ্ঠান, এটি মুসলিমদের প্রতিষ্ঠান। আমি আশা করবো, আইটিভি ইউএসএ সহিহ ইসলামের কথা বলবে এবং মুসলিমদের পাশে থাকবে। শান্তির পথে আহবান করবে এবং সুন্দর ও মানবতার পথ-নির্দেশনা প্রদান করবে। আইটিভি হবে বিশ্বময় শান্তি ও মানবতার বার্তাবাহী শক্তিশালী মিডিয়া।
দাওয়াহ কনফারেন্সের তত্ত্বাবধায়ক ও আইটিভি ইউএসএ’র প্রধান নির্বাহী মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ বলেন, মানবতার সমাধানে শান্তির আহবান নিয়ে যাত্রা শুরু করেছে আইটিভি ইউএসএ। এটি ব্যক্তিগত কোনো প্রতিষ্ঠান নয়- গোটা মুসলিম উম্মাহর প্রতিষ্ঠান আইটিভি ইউএসএ। কোরআন-সুন্নাহ ভিত্তিক, জীবনঘনিষ্ট প্রশ্নত্তোরধর্মী, সরাসরি লাইভ, ইন্টারফেইথ প্রোগ্রামসহ শিশু-কিশোর, তরুণ-তরুণী ও নারীদের উপযোগী বিভিন্ন অনুষ্ঠান পরিচালনার মাধ্যমে আইটিভি ইউএসএ সব সময় আপনাদের পাশে থাকবে এবং আইটিভি আশা করে বিশ্বের প্রতিটি মুসলিম উম্মাহকে আইটিভি তার পরিবারের একজন সদস্য হিসেবে কাছে পাবে। 
দাওয়াহ কনফারেন্স প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এটিএন বাংলার এসিট্যান্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট মাওলানা তারেক মনোয়ার। মুসলিম উম্মাহর ঐক্য, বিশ্বব্যাপি নির্যাতিত মুসলিম উম্মাহর মুক্তি এবং ইসলামের বড়ত্ব বিশ্বব্যাপি তুলে ধরার ক্ষেত্রে মিডিয়া অতুলনীয় ভূমিকার পালন করতে সক্ষম। সব নবি-রাসুলরাই তার যুগের তখনকার সুপ্রিম পাওয়ারকে ইসলামের প্রচার স্বার্থে ব্যবহার করেছেন। এই যুগের সুপ্রিম পাওয়ার হলো মিডিয়া। সুতরাং নবি-রাসুলদের উত্তরসূরি হিসেবে মিডিয়া প্রতিষ্ঠা এবং মিডিয়ার মাধ্যমে ইসলামে প্রচার কার্যে এগিয়ে আসা এই সময়ের একান্ত ইমানি দায়িত্ব। রাসুলের (সা.) আর্দশকে অনুসরণ করে মুসলিম-নন মুসলিম নির্বিশেষে ইসলামের দাওয়াত তুলে ধরার জন্য যুগোপযুগি পদক্ষেপ প্রয়োজন। আইটিভি ইউএসএ’র কাছে আমার আবেদন থাকবে, ব্যক্তি, পরিবার ও সমাজে ইসলাম চর্চায় ভুমিকা শক্তি হিসেবে কাজ করবে এই মিডিয়া এবং কালচারাল বিভিন্ন ইভেন্ট আয়োজনের মাধ্যমে বিশ্বময় ছড়িয়ে পড়বে। 
অনুষ্ঠানের শেষ পর্যায়ে আইটিভি ইউএসএ’র পক্ষ থেকে জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টারকে ‌আইটিভি ইউএসএ পার্টনারশিপ সার্টিফিকেট এবং মাওলানা তারেক মনোয়ারকে আইটিভি ইউএসএ লাইফ টাইম এচিভমেন্ট সম্মাননা সার্টিফিকেট তুলে দেন প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ।
এছাড়া আইটিভি ইউএসএ’র পক্ষ থেকে জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টারের প্রেসিডেন্ট ডা. অহিদুর রহমান, জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টারের সেক্রেটারি জেনারেল ইঞ্জিনিয়ার আক্তার হোসাইন, জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টারের ট্রাস্টি চেয়ারম্যান ডা. মাহমুদুর রহমান তুহিন ও ইউনাইটেড উলামা কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট মুফতি লুৎফুর রহমানকাসেমিকে সন্মাননা প্রদান করা হয়। মুসলিম উম্মাহ ঐক্য ও বিশ্বময় শান্তি কমনার করে মোনাজাতের মাধ্যমে শেষ হয় আইটিভি ইউএসএ আয়োজিত দাওয়াহ কনফারেন্স ইসলাম এণ্ড মিডিয়া। 


আল্লাহর মাস মহররমের মর্যাদা
মহররমের রোজা শ্রেষ্ঠ নেকি ও সেরা আমল। ইমাম মুসলিম তার
বিস্তারিত
আশুরায় করণীয় বর্জনীয়
‘রাসুল (সা.) মদিনায় হিজরত করে ইহুদিদের আশুরার রোজা রাখতে দেখে
বিস্তারিত
আলেম বিদ্বেষের ভয়াবহ পরিণাম
উম্মাহর ক্রান্তিলগ্নে ঝড়ের রাতে মাঝ নদীতে একজন দক্ষ নাবিকের ভূমিকা
বিস্তারিত
সর্বদা আল্লাহর পর্যবেক্ষণের কথা মনে
পূর্বসূরি এক বুজুর্গকে বলা হয়েছিল, দৃষ্টি অবনত রাখতে আমি কীসের
বিস্তারিত
কোরআনে বর্ণিত নবী-রাসুলদের দোয়া
কোরআন ও হাদিসে অনেক নবির দোয়া বর্ণিত হয়েছে। দোয়াগুলো অত্যন্ত
বিস্তারিত
আশুরা ও কারবালা
মহরম মাসের দশ তারিখ আশুরা দিবস হিসেবে সুপরিচিত। এ দিনে
বিস্তারিত