আনোয়ার রশীদ সাগর

রৌদ্র আঁধার

চৈত্র মেঘে উত্তপ্ত হয় ওমের বাতাস
শকুনের আশ্বাসে চেয়ে দেখি আউলিয়ে পড়া লাউ গাছ
চুমু আর নৃত্যের ঘুঙুরে ক্লান্ত সবুজ মাঠ।

চেতনার ব্রিফকেসে রৌদ্রময় স্বপ্নেরা
জলশূন্য আওয়াজে বন্যার স্রোতে ভেসে যায় স্বাধীনতা
বৃক্ষের পাতায় পাতায় হোলিখেলা আকাশের
হাঙরের অগ্নিচুম্বনে বিবস্ত্র গণতন্ত্র
পৃথিবীতে পৌঁছিয়েছি আমরাও উপরের ঠিকানায়।

নষ্ট বাঙাল শূন্যে হাঁটতে হাঁটতে হেঁটেছি আঁধারে
ফ্যাকাসে চাঁদ নিঃশব্দে নীল বেদনায় কাঁদে;
চন্দ্রমুখীর বৃৎচ্যুতি যেন ব্ল্যাকবোর্ডের চক
মুছে যায় সব কৃতিত্ব স্বৈরাচার অরণ্যে আমার বসবাস।


তবু পথ থেকে যায়
  কিছু দূর যায় রাস্তা, কিছুটা মানুষ, মেটো পথ এঁকেবেঁকে
বিস্তারিত
আমিই বিজয়ী আমি কবি
  নিজের রাস্তা নিজে করে এসেছি তো বহুদূর আমার চলার
বিস্তারিত
নিঃসঙ্গ যে জাগরণ
  চিত্রনাট্য তৈরি করার আগে থেকে। আমরা সবে নিয়তির হাতের
বিস্তারিত
পরিমাপ
  ভালোবাসা ডুবে আছে পাঁচ ফুট ছয় ঢেউ যদি ছিন্ন
বিস্তারিত
দরদ, বড় হোস না বাবা
  কুটুমের নিয়মাবলির চতুষ্কোণ বেষ্টনীতে মনকে একটা ছদ্মবেশের দীর্ঘ তালিম
বিস্তারিত
ঘুমাবে না নষ্ট রাত
  এখন ঘুমানো যায়,  শহরের গলিতে গলিতে রাত নেমেছে। পথগুলো
বিস্তারিত