অতিরিক্ত চাপে চর্বি জমে শরীরে

ব্যস্ততা ও অলসতার কারণে আপনার জিমে যাওয়া হয় না। কিন্তু দিন দিন পেটের মেদ বাড়ছে। নিচের ব্যায়ামগুলোর চর্চা করে দেখতে পারেন। মাত্র সাত দিনে আপনার শরীরের মেদ কমা শুরু হবে। নিয়মিত ব্যায়ামগুলো চালিয়ে গেলে অল্প সময়ে মেদমুক্ত স্বাস্থ্য ফিরে পাবেন।   

প্রথম পদক্ষেপ: আপনি যদি একই সময়ে পেশী তৈরি এবং মেদ ঝরাতে চান তাহলে সপ্তাহে তিন দিন সার্কিট ব্যায়ামটি করতে পারেন। কীভাবে এই ব্যায়াম করবেন? কিছু ব্যায়াম আছে যা পুরো শরীরের জন্য ব্যায়াম হয়। যেমন: লজেন্স, পুশ আপ, এবং পুল আপ। প্রতিটি ব্যায়াম কমপক্ষে পনের বার করতে হবে।চেষ্টা করবেন প্রতিটি ব্যায়ামের বিরতিতে অন্তত এক মিনিট দড়ি দিয়ে লাফানোর ব্যায়ামটি করতে।এই ব্যায়ামগুলো চালিয়ে গেলে শরীর থেকে ৫০০ থেকে ৬০০ ক্যালোরি ঝড়ানো সম্ভব।     

দ্বিতীয় পদক্ষেপ: সপ্তাহে তিন দিন তলপেটের পেশীর জন্য ব্যায়াম করবেন। ক্রাঞ্চ এবং পা উত্তোলন করে ২০ বার ব্যায়ামটি করুন। পুশ আপের মতো অবস্থায় থেকে ৩০ থেকে ৬০ সেকেন্ড করে প্লাঙ্কস ব্যায়ামটি করুন।

তৃতীয় পদক্ষেপ: মেদ ঝড়ানোর সময়টাতে খাবারের প্রতি বিশেষ লক্ষ্য রাখুন। প্রাকৃতিক খাবার খান যেমন, ফলমূল, শাকসবজি, গোটা শস্যের রুটি এবং পাস্তা, মুরগি ও গরুর মাংস, মাছ এবং কম চর্বিযুক্ত দুধ। পূর্ণ চিনি সমৃদ্ধ প্রক্রিয়াজাত খাবার একদমই খাবেন না।

চতুর্থ পদক্ষেপ: মোটা শরীর না চাইলে লবণ কম খান। লবণ শরীরে পানি জমায়। খাবারে কম পরিমাণে লবণ ব্যবহার করুন। খাবার সুস্বাদু করার জন্য প্রয়োজনে অন্যান্য মশলা ব্যবহার করুন।

পঞ্চম পদক্ষেপ:  অতিরিক্ত চাপ এবং উদ্বেগ শরীরে মাত্রারিক্ত কর্টিসল হরমোন উৎপাদন করে। যা পেটের চারপাশে মেদ সৃষ্টি করে। তাই শরীরের অতিরিক্ত চর্বি সৃষ্টি করতে না চাইলে চাপ মুক্ত থাকার চেষ্টা করুন।


পাবনায় চরাঞ্চলে সবজি চাষে কৃষকের
পাবনায় পদ্মা নদীর মাঝে জেগে উঠা চরে এবারে সবজির বাম্পার
বিস্তারিত
জৈন্তাপুরের লাল শাপলার বিল পর্যটকদের
একটি পিচঢালা পথ চলে গেছে গ্রামের শেষ মাথায়। অনেক দূর
বিস্তারিত
জীবনযুদ্ধে থেমে নেই জয় মালা
নাম জয়মালা বেগম স্বামী মৃত হালু মিয়া। সংসারে চার মেয়ে
বিস্তারিত
সফল উদ্যোক্তা আলিয়াহ ফেরদৌসি
চেনা গণ্ডির সীমানা ভেঙে বেরিয়ে আসছেন নারীরা। কৃষিকাজ থেকে শুরু
বিস্তারিত
রংপুর তাজহাট জমিদার বাড়ি ইতিহাস-ঐতিহ্যের
রংপুর মহানগরীর  দক্ষিণ পূর্বে অবস্থিত তাজহাট জমিদার বাড়ি। রংপুর মূল
বিস্তারিত
ডায়াবেটিক প্রতিরোধে স্টেভিয়া: চিনির চেয়ে
বিরল উদ্ভিদ স্টেভিয়া এখন বাংলাদেশে পাওয়া যাচ্ছে। দেশের বিভিন্ন এলাকায়
বিস্তারিত