জিহ্বায় শব্দের স্বাদ!

জিহ্বায় শব্দের স্বাদ পান ইংল্যান্ডের ম্যানচেস্টার শহরের বাসিন্দা জেমস ওয়ানারটন। এটি অবশ্য তার একটি রোগ। এর নাম সিনেস্থেশিয়া। দি ইনডিপেন্ডেন্টকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, কুকুরের ডাক শুনলে আমি কাস্টার্ডের স্বাদ পাই। ‘লাইক’ শব্দ শুনলে দইয়ের স্বাদ পাই। এরকম লম্বা ফিরিস্তি তুলে ধরেছেন তিনি।

ওয়ানারটন প্রথম শব্দের স্বাদ পেয়েছিলেন স্কুলে। ঈশ্বরের প্রার্থনা উচ্চারণ করার সময় তিনি বেকনের স্বাদ পান। কোনো একটি নির্দিষ্ট শব্দ শুনলে জিহ্বায় কোনো একটি নির্দিষ্ট স্বাদ আসে এ অভিজ্ঞতার কথা অনেক দিন লুকিয়েই রেখেছিলেন তিনি। ২০ বছর বয়সে জানতে পারেন, চিকিৎসাবিজ্ঞানে এটি নতুন নয়। এখন তো এ নিয়ে গবেষণাও হচ্ছে। তবে তিনি যে শুধু খাবারের স্বাদ পান, তা কিন্তু নয়। ?মার্ক শব্দটি তাকে পেনসিলের শিসের স্বাদ এনে দেয়। ‘ডেভিড’ শব্দটি শুনলে তিনি কাপড়ের স্বাদ পান। স্কুলে ফরাসি ভাষা শেখার সময় তিনি ডিমের স্বাদ পেয়েছিলেন। আর জার্মান ভাষা শেখার স্বাদ ছিল মার্মালেডের মতো। এ কারণে ছেলেবেলায় বন্ধুত্ব করার সময় বেছে বেছে দোস্তি করতেন। যাদের নাম তাকে বিশ্রী স্বাদ এনে দিত, তাদের সঙ্গে দোস্তি নয়! এমনকি প্রেমিকা বাছাই করতেও নামের স্বাদকে গুরুত্ব দিতেন তিনি। এ বিষয়ে ওয়ানারটন বলেন, শব্দের স্বাদ পছন্দ না হলে আমার বিরক্ত বা বিষাদের অনুভূতি হয়। এটি আমি চাইলেও এড়াতে পারি না। কিন্তু এ অদ্ভুত জটিলতা মেনে নিয়েই তিনি এখন একজন সুখী মানুষ।


হাসি ও গম্ভীর মুখের পার্থক্য
আমরা কথায় কথায় কাউকে না কাউকে ছাগল বলে ফেলি। ছাগল
বিস্তারিত
স্কুলে শিক্ষক একজন, শিক্ষার্থীও এক!
ভারতের কলকাতার ঝাঁ চকচকে গুরুগ্রাম (গুরগাঁও) থেকে মাত্র ৬০ কিমি
বিস্তারিত
হাতে হেঁটে ১০ কিমি. পাড়ি!
প্রবল ইচ্ছাশক্তির কঠিন পরীক্ষা দিয়েছেন সোলায়মান মাগোমেদয়। রাশিয়ার দাগেনস্টানের ৫৩
বিস্তারিত
৬৬ বছর পর নখ কাটলেন
হাতের নখ কাটাতে ভারতের পুনে থেকে নিউ ইয়র্কে উড়ে গেলেন
বিস্তারিত
দুই মাথাওয়ালা বাছুর দুধ পান
দুই মাথাওয়ালা এই বাছুরের জন্ম হয়েছে ব্রাজিলের গোইয়া প্রদেশের কাইয়াপোনিয়া
বিস্তারিত
১৮৫ কেজি ওজনের উড়ন্ত মাছ!
গল্পের মতো মনে হলেও সত্যি। মাছও উড়তে পারে। এতদিন নাম
বিস্তারিত