মুক্তিপণ চেয়ে সাংবাদিক উৎপলের বাবাকে ফোন

নিখোঁজের ১৪ দিন পর সাংবাদিক উৎপল দাসের পরিবারের কাছে এক লাখ টাকা মুক্তিপন দাবি করা হয়েছে।

সোমবার (২৩ অক্টোবর) সন্ধ্যায় হঠাৎ উৎপলের মোবাইল ফোন থেকে কল দেওয়া হয় তার বাবা চিত্তরঞ্জন দাসের কাছে। অপরপ্রান্ত থেকে বলা হয়, উৎপল তাদের কাছে আটক আছে। এক লাখ টাকা দিলে তাকে মুক্তি দেওয়া হবে। 

চিত্তরঞ্জন দাস এ তথ্য জানিয়ে বলেছেন, নিখোঁজের পর থেকেই তার ছেলের ফোন বন্ধ ছিল। সোমবার হঠাৎ ওই ফোন থেকে কল করে মুক্তিপন দাবি করা হয়।

পুর্বপশ্চিমবিডি.নিউজ নামে একটি অনলাইন নিউজ পোর্টালের সিনিয়র রিপোর্টার হিসেবে কর্মরত ছিলেন উৎপল। গত ১০ অক্টোবর মতিঝিলের অফিস থেকে বের হওয়ার পর তিনি নিখোঁজ হন। সেই থেকে তার মোবাইল ফোনটি বন্ধ ছিল। তবে সোমবার সন্ধ্যা ৭টা ২২ মিনিটে তার মোবাইল নম্বর থেকে কল আসে চিত্তরঞ্জনের কাছে। প্রায় ৮ মিনিট কথা বলার পর সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয় মুক্তিপন দাবি করা ব্যক্তি। এরপর থেকে ফোনটি বন্ধ রয়েছে।

এদিকে নিখোঁজের ঘটনায় অনলাইন নিউজ পোর্টালের পক্ষ থেকে গত রোববার (২২ অক্টোবর) মতিঝিল থানায় জিডি করা হয়। একই ঘটনায় সোমবার উৎপলের বাবা বাদি হয়ে জিডি করেন একই থানায়।

উৎপল ফকিরাপুল এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকতেন। তার গ্রামের বাড়ি নরসিংদীর রায়পুরার রাধানগরে।


আত্মসমর্পণের আহ্বানে ‌‘সাড়া দিচ্ছে না
নরসিংদীর মাধবদী পৌরসভার ছোট গদাইরচর গাঙপাড় এলাকার আফজাল হাজির ‘নিলুফা
বিস্তারিত
উন্নয়ন মেলা শেষে নকলায় পুরষ্কার
সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ড জনগণের কাছে তুলে ধরতে সারা দেশের
বিস্তারিত
আত্মতুষ্টি মানেই পতন: প্রধানমন্ত্রী শেখ
আত্মতুষ্টিতে না ভুগে নেতা-কর্মীদের সদা সর্তক থাকার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী
বিস্তারিত
জাতিসংঘ অধিবেশনে যোগদান শেষে দেশে
জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের ৭৩তম অধিবেশনে যোগদান শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী
বিস্তারিত
দুর্নীতিবাজরা এক হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, যুক্তফ্রন্টের নামে দুর্নীতিবাজরা এক হয়েছে। তবে
বিস্তারিত
১ম ও ২য় শ্রেণির চাকরিতে
প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির (৯ম থেকে ১৩তম গ্রেডে চাকরির ক্ষেত্রে)
বিস্তারিত