ধেয়ে আসছে ‘স্বর্গীয় প্রাসাদ’

মহাকাশে থাকা একটি গবেষণাগার নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পৃথিবীর দিকে ধাবিত হচ্ছে; আর শিগগিরই এ গবেষণাগার ও পৃথিবীর মধ্যে সংঘর্ষ হবে বলে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন বিশেষজ্ঞরা। 

হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটির জ্যোতি পদার্থবিজ্ঞানী জোনাথন ম্যাকডাওয়েল ব্রিটিশ দৈনিক গার্ডিয়ানকে বলেন, এ চীনা মহাকাশ স্টেশনটি আমাদের দিকে দ্রুত এগিয়ে আসছে। কয়েক মাসের মধ্যে এটি ভূপৃষ্ঠে আছড়ে পরবে। চলতি বছরের শেষ বা ২০১৮ সালের শুরুতে এটি নিচে পড়বে। ২০১১ সালে তিয়ানগং-১ নামের এ স্টেশন উৎক্ষেপণ করা হয়েছিল। নিজেদের একটি বৈশ্বিক ক্ষমতাধর রাষ্ট্র হিসেবে দেখানোর পরিকল্পনার অংশ হিসেবে মহাকাশ নিয়ে চীনের থাকা বড় আশাগুলোর মধ্যে এটি ছিল একটি। দেশটির মহাকাশ সংস্থা এ স্টেশনকে ‘স্বর্গীয় প্রাসাদ’ হিসেবে আখ্যা দেয়। চীন এ স্টেশনে কয়েকটি অভিযান চালায়, যার মধ্যে কিছু অভিযানে নভোচারীও ছিলেন। 

২০১৬ সালে চীনের মহাকাশ সংস্থা সিএনএসএ’র বিজ্ঞানীরা বলেন, তারা এ গবেষণাগারের নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেছেন; আর এটি এখন পৃথিবীর দিকে ধাবিত হওয়া শুরু করবে। এরপর কয়েক মাস ধরে এটি নিয়ে কোনো তথ্য প্রকাশ করা বন্ধ থাকে। এখন এটি পড়া নিয়ে পৃথিবীর মানুষের ঝুঁকি থাকতে পারে বলেও উদ্বেগ সৃষ্টি হয়েছে। এখন পর্যন্ত গবেষণাগারটি সাগরে পড়বে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এ কারণে কারও এ দুর্ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার শঙ্কা কম। প্রকৌশলীরা এর নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলায় এটি কোথায় পড়বে, তা নিয়ে অনুমান করা কঠিন। নিচে নেমে এলে এটি বাতাসের ধাক্কায় উড়ে চলে যেতে পারে; এমনকি বাতাসের ছোট একটি ধাক্কা এটিকে এক মহাদেশ থেকে অন্য মহাদেশে নিয়ে যেতে পারে।

সূত্র : ওয়েবসাইট


ফেসবুকের ১৫০ কোটি ভুয়া অ্যাকাউন্ট
এ বছরের প্রথমার্ধে প্রায় ১৫০ কোটি ভুয়া অ্যাকাউন্ট অপসারণ করেছে
বিস্তারিত
ট্যাক্সি অ্যাপ চালু করেছে এমিরেটস
এমিরেটস এয়ারলাইন এবং ফ্লাই দুবাইয়ের লয়্যাল্টি প্রোগ্রাম- এমিরেটস স্কাইওয়ার্ডস তাদের
বিস্তারিত
স্মার্টফোনের কারণে গড়ে উঠছে মানসিকভাবে
স্মার্টফোন! বর্তমানের যাপিত জীবনের অন্যতম মূল অনুসঙ্গ। কিন্তু নুতন প্রজন্মের
বিস্তারিত
যৌন হয়রানি নিয়ে গুগল কর্মীদের
বিশ্বব্যাপী নজিরবিহীন এক প্রতিবাদের জন্ম দিয়েছে গুগলের কর্মীরা। অফিসে যৌন
বিস্তারিত
হোয়াটসঅ্যাপে আসছে স্টিকার ফিচার
মনের ভাবকে আরও সুন্দর করে ব্যক্ত করতে হোয়াটসঅ্যাপে আসছে স্টিকার
বিস্তারিত
উবারে মিলবে চাকরি
রাইড শেয়ারিং প্রতিষ্ঠান হিসেবে বিভিন্ন দেশে সফলতা পাওয়ার পর এবার
বিস্তারিত