কেঁচো সারে লাভবান নেত্রকোনার কৃষক

নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলায় কেঁচো সার (ভার্মি কম্পোস্ট) উৎপাদনে কৃষকের আগ্রহ বাড়ছে। কেঁচো সার উৎপাদনের লক্ষ্যে স্থানীয় কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উদ্যোগে এরই মধ্যে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে প্রদর্শনী স্থাপন করা হয়েছে।
প্রদর্শনী ছাড়াও উপজেলার বেখৈরহাটী ব্লকের বিভিন্ন গ্রামের অর্ধশতাধিক কৃষক ব্যক্তি-উদ্যোগে কেঁচো সার উৎপাদন করে নিজেদের চাহিদা মিটিয়ে অতিরিক্ত সার ও কেঁচো বিক্রি করে লাভবান হচ্ছেন। জমিতে কেঁচো সার প্রয়োগের ফলে অন্যান্য রাসায়নিক সার কম লাগা এবং মাটির জৈব পদার্থের পরিমাণ বৃদ্ধি পাওয়ায় কৃষক কেঁচো সার উৎপাদন ও ব্যবহারে আগ্রহী হয়ে উঠছেন।

কেন্দুয়া উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর সূত্রে জানা গেছে, ন্যাশনাল এগ্রিকালচার টেকনোলজি প্রোগ্রাম ফেজ-২ প্রজেক্টের অর্থায়নে উপজেলার ১৩টি ইউনিয়নে ৩০টি ভার্মি কম্পোস্ট (কেঁচো সার) উৎপাদন প্রদর্শনী স্থাপন করা হয়েছে। এজন্য উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের পক্ষ থেকে প্রদর্শনীর কৃষকের মাঝে প্রয়োজনীয় কেঁচোসহ আনুষঙ্গিক জিনিসপত্র সরবরাহ করা হচ্ছে। পাশাপাশি প্রদর্শনীর কৃষককে কেঁচো সার উৎপাদনে সার্বিক পরামর্শসহ অন্য কৃষককেও এ সার উৎপাদনে উদ্বুদ্ধ করা হচ্ছে।

ভার্মি কম্পোস্ট উৎপাদনকারী উপজেলার বেখৈরহাটী গ্রামের কৃষানি জরিনা আক্তার ও কৃষক খোকন মিয়া জানান, ভার্মি কম্পোস্ট সার উৎপাদন খুবই সহজ; খরচও কম। বর্তমানে তারা নিজেদের চাহিদা মিটিয়ে অতিরিক্ত সার ১০ টাকা কেজি ও প্রতিটি কেঁচো ১ টাকা দরে বিক্রি করছেন।
বেখৈরহাটী ব্লকের ভার্মি কম্পোস্ট উৎপাদন প্রদর্শনীর কৃষক আশরাফুল আলম জানান, উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর ভার্মি কম্পোস্ট উৎপাদন প্রদর্শনীর জন্য প্রয়োজনীয় কেঁচোসহ সব পরামর্শ ও সহযোগিতা করছে। ভার্মি কম্পোস্ট সার উৎপাদন করে এলাকার কৃষক খুবই লাভবান হচ্ছেন।

 উপজেলার বেখৈরহাটী ব্লকের উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা আলী আসকার খান জানান, ওই ব্লকের বিভিন্ন গ্রামের অর্ধশতাধিক কৃষান-কৃষানি ব্যক্তি-উদ্যোগে কেঁচো সার উৎপাদন করে নিজেদের চাহিদা মিটিয়ে অতিরিক্ত সার ও কেঁচো বিক্রি করে লাভবান হচ্ছেন। ইচ্ছা করলে নারীরাও বাড়িতে বাড়িতে ভার্মি কম্পোস্ট (কেঁচো সার) উৎপাদন করে কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করতে পারেন।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা হাসান ইমাম জানান, প্রদর্শনীর কৃষক ছাড়াও সব কৃষককে ভার্মি কম্পোস্ট উৎপাদনে উদ্বুদ্ধ করা হচ্ছে। এ সার উৎপাদনে কৃষক দিন দিন আগ্রহী হচ্ছেন। এতে লাভবানও হচ্ছেন তারা। ভার্মি কম্পোস্ট উৎপাদনে কেন্দুয়া উপজেলা একসময় রোলমডেল হবে।


পঞ্চাশ বছর ধরে শিক্ষার আলো
কোথাও খোলা উঠুনে চাটাই পেতে। আবার কোথাও কারো বাড়ির বারান্দায়।
বিস্তারিত
রংপুরে শিম চাষে কৃষকের সাফল্য
রংপুর জেলায় শিম চাষ করে সাফল্যের মুখ দেখছে কৃষকরা। অপরদিকে
বিস্তারিত
কিশোরগঞ্জের হাওরে নির্মিত হচ্ছে স্বপ্নের
কিশোরগঞ্জের হাওর অঞ্চলে প্রায় ৯ শ’ কোটি টাকা ব্যয়ে সারা
বিস্তারিত
জলের ফলে দিন বদল
নদী মাতৃক এই দেশ। সারা দেশে জালের মতো ছড়িয়ে রয়েছে
বিস্তারিত
বাসক পাতায় ভাগ্য বদল
বাসক পাতার ঔষধি গুণাগুণ সম্পর্কে কম-বেশি সবাইর জানাশোনা আছে। সর্দি-কাশি
বিস্তারিত
মতলব উত্তরে আখের বাম্পার ফলন
মতলব উত্তর উপজেলায় এ বছর চিবিয়ে খাওয়া আখের বাম্পার ফলন
বিস্তারিত