‘শাকিব আসলেই সুপারস্টার’

শাকিব খান আসলেই সুপারস্টার। তার একটি জলন্ত প্রমাণ দিয়েছেন ‘নোলক’ ছবির নতুন প্রযোজক ও পরিচালকদের সাদরে গ্রহন করার মধ্যেদিয়ে। ওয়েস্টটিন হোটেলে মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টায় মহরত হওয়ার কথা থাকলে কিছুটা দেরিতে অনুষ্ঠান শুরু হয়।

রাত ৮টার পরে আসেন শাকিব খান। অনুষ্ঠান শুরু হয় সাড়ে আটটায়। আলো ঝলমল স্টেজে ওঠে তরুণ দুই প্রযোজক ও পরিচালকের ভূয়সী প্রশংসা করেন শাকিব।

এদিকে সময়ের আলোচিত নায়িকা বিউটি কুইন বুবলিও বিভিন্ন সময় তাকে সুপারস্টার বলে সম্মোধন করেন।

এসময় শাকিব খান বলেন, ‘তরুণ নির্মাতাদের চিন্তাধারা অনেক হাই লেভেলের। তরুণরা যুগের চাহিদা ও দর্শকদের রুচিকে প্রাধান্য দিতে পারে। তাই নতুন নির্মাতাদের মাধ্যমে আগামীতে বাংলা সিনেমা অনেক দূর যেতে পারবে বলে আমি মনে করি। তরুণ এই জুটির চিন্তা-চেতনা খুবই আধুনিক। ছবির যে প্রি- প্রোডাকশন নিয়ে চিন্তা আমার ভালো লেগেছে।

গল্পটি বারবার শুনে মনে হয়েছে এটি হবে একটি আধুনিক বাংলা সিনেমা। গল্পটি খুবই সুন্দর। ওদের বয়সও অল্প। কিন্তু ওদের পরিকল্পনা আমার কাছে খুব ভালো লেগেছে। তারা ফিল্ম নিয়ে গবেষণা করেছে। ‘নোলক’  নির্মাণের আগে প্রচুর স্টাডি করেছে তারা। গল্প আর ওদের প্লানিং দেখে আমার মনে হয়েছে ওরা খুবই সম্ভাবনাময়ী’।

সত্যিই তরুণদের সিনেমায় এমন উৎসাহ দেওয়া এটা শুধু সুপারস্টার হলেই সম্ভব। তিনি সত্যিই সুপারস্টার। শুধু কথায় উৎসাহ নয়, স্টেজে শাকিব পরিচালককে ডেকে সবার সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দিয়েছেন।

শাকিব খান বলেন, ‘সিনেমা যুগের সৃষ্টি, যুগ সিনেমার সৃষ্টি করে না। সিনেমার মাধ্যমে মানুষের মাধ্যমে ফ্যাশন আসে। ২০১৮ সালে একটি সিনেমা কেমন হওয়া উচিত সেটা ‘নোলক’ দেখলে দর্শকরা বুঝতে পারবেন। পুরোপুরি আধুনিক বাংলা সিনেমা হবে ‘নোলক’। এ ধরনের ছবির মাধ্যমে বাংলা ছবি একদিন বিশ্বজয় করবে।’

শাকিব খান যে সুপারস্টার তার আরও প্রমাণ দিয়েছেন অনুষ্ঠানে। ঢালিউড চলচ্চিত্রে একাই শাকিব সুপারস্টার তার কোন প্রতিযোগী নেই , একা কতদিন সিনেমাকে টেনে নিয়ে যাবেন?  সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নে জবাব দেন শাকিব।

তিনি বলেন, স্টার অনেকে হতে পারে,‘ কিন্তু সুপারস্টার তো আর অনেক জন হয় না’। তিনি হলিউড-বলিউডের উদাহরন টেনে বলেন, ‘ওখানেতো বড় ইন্ডাস্ট্রি ,কৈ ৪/৫ জনের বেশি সুপারস্টার পাবেন, তারা সিনেমাকে এগিয়ে নিচ্ছে না? আমি শুধু এখন চলচ্চিত্রটাকে এগিয়ে নিচ্ছি। অনেকেইতো কাজ করছেন তারাও এক সময় সুপারস্টার হবে। সিনেমাকে এগিয়ে নেবেন।’

শাকিব খানের ছবি মানেই সুপার হিট। প্রযোজকদের নির্ভরতার প্রতিক। তার কথায়, আচরণে এসেছে পরিবর্তন। দেশে নয়, বিদেশে রয়েছে তার সিনেমার কদর। ঢালিউড চলচ্চিত্র একযুগ শাসন করা নায়কে সুপারস্টার বলতেই হয়।


শহিদ কাপুর এশিয়ার সেরা আকর্ষণীয়
হ্যান্ডসাম  হিরো শহিদ কাপুর ! ২০১৭ সালের দক্ষিণ এশিয়ার আকর্ষণীয়
বিস্তারিত
সাতপাকে বাঁধা পড়লেন কোহলি-আনুশকা
অবশেষে গুঞ্জন সত্যি হলো। অবশেষে সাতপাকে বাঁধা পড়লেন দুই ভুবনের
বিস্তারিত
নতুন বছরে পপির ‘টার্ন’
অভিনয় যারা করেন তাদের মনে একে ঘিরে নানা ধরনের চ্যালেঞ্জিং
বিস্তারিত
ইমনের তিন ছবির শুটিং শেষের
চলচ্চিত্র ও টিভি নাটক দুই মাধ্যমেই অভিনয় নিয়ে ব্যস্ত চিত্রনায়ক
বিস্তারিত
বিজয়ের গান শাহীন
একুশে পদকপ্রাপ্ত বরেণ্য নজরুলসংগীত শিল্পী ও স্বাধীনতা সংগ্রামের কণ্ঠযোদ্ধা শাহীন
বিস্তারিত
জাদুকরে পাওয়া গেল না শিরোনামহীনকে
শিরোনামহীনের লিড ভোকাল তানযীর তুহিন। অভিমান করে ৭ অক্টোবর ব্যান্ডটি
বিস্তারিত