খুলনায় বিএনপি নেতাসহ ৯ জন জেলহাজতে

নাশকতার মামলায় খুলনা মহানগর বিএনপির প্রচার সম্পাদক ও সোনাডাঙ্গা থানার সাধারণ সম্পাদক এস এম আসাদুজ্জামান মুরাদসহ ৯ নেতাকর্মীকে জেলহাজতে পাঠিয়েছেন আদালত।

খুলনা দায়রা জজ আদালতে মঙ্গলবার দুপুরে আত্মসমর্পণের পর জামিন চাইলে তা নামঞ্জুর করে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন মহানগর দায়রা জজ দিলরুবা সুলতানা।
২০১৫ সালের ১৩ জানুয়ারি নগরির নিউমার্কেট এলাকায় কন্টিনেন্টাল কুরিয়ার সার্ভিসের একটি গাড়ি ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের অভিযোগে সোনাডাঙ্গা থানায় মামলা হয়। ওই মামলায় এজাহারভুক্ত আসামির মধ্যে মহানগর বিএনপির প্রচার সম্পাদক ও সোনাডাঙ্গা থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এস এম আসাদুজ্জামান মুরাদ, থানার সহ-সভাপতি সাদিকুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন পরাগ, ১৬ নম্বর ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি শেখ জামিরুল ইসলাম, থানা যুবদল নেতা মেহেদী হাসানসহ ৯ জন সকালে দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে আদালতে যান। এ সময় মহানগর বিএনপির সভাপতি ও সদ্য ঘোষিত কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক নজরুল ইসলাম মঞ্জু উপস্থিত ছিলেন। পরে তারা মহানগর দায়রা জজ দিলরুবা সুলতানার আদালতে আত্মসমর্পণ করেন।
আসামিপক্ষে জামিনের আবেদন করে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট মনজুর আহমেদ, গাজী আব্দুল বারী, নুরুল হাসান রুবাসহ কয়েকজন। এ সময় আদালতের পিপি সুলতানা রহমান শিল্পী জামিন আবেদনের বিরোধিতা করেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে দুপুরে আদালত তাদের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।


কে এই ছাত্রদলের নতুন সভাপতি
বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের ৬ষ্ঠ জাতীয় কাউন্সিলের ভোট গণনা শেষে ফলাফল
বিস্তারিত
শেখ হাসিনাকে নিয়ে ধৃষ্টতা দেখালে
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে কেউ ধৃষ্টতা দেখালে ‘তার পিঠের চামড়া
বিস্তারিত
সম্রাট ও খালেদকে যুবলীগের শোকজ
অবৈধভাবে ক্যাসিনো চালানোর অভিযোগে বুধবার রাতে অস্ত্রসহ গ্রেফতার যুবলীগ ঢাকা
বিস্তারিত
গণসংযোগে প্রাণবন্ত সাদ এরশাদ
রংপুর-৩ আসনের উপ-নির্বাচনে মহাজোট সমর্থিত জাতীয় পার্টির প্রার্থী লাঙ্গল হাতে
বিস্তারিত
যুবলীগ নেতা খালেদের বিরুদ্ধে তিন
রাজধানীতে ক্যাসিনো চালানোর অভিযোগে গ্রেপ্তার ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সাংগঠনিক
বিস্তারিত
টকশোতে প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার হুমকি, দুদুর
শেখ হাসিনাকে হত্যাচেষ্টা ও হত্যার হুমকি দেয়ার অভিযোগে বিএনপির ভাইস
বিস্তারিত