শেরপুরে আমন চাষে লাভবান কৃষক

বগুড়ার শেরপুর উপজেলায় এবার আমনের বাম্পার ফলন হওয়ায় লাভবান কৃষক। জানা যায়, প্রতিবিঘায় কৃষকের লাভ হয়েছে ছয় হাজার টাকা।

বাধার পাহাড় ডিঙিয়ে ফলন ও দাম ভালো পাওয়ায় কৃষকরা উৎসাহিত হচ্ছে আমন ধান চাষে। উত্তরাঞ্চলের শস্যভান্ডারখ্যাত এই উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের একাধিক কৃষকের সঙ্গে কথা বলে এমন তথ্য পাওয়া যায়।

স্থানীয় কৃষকরা জানান, প্রতিবিঘা জমির বিপরীতে সবমিলে তাদের ব্যয় করতে হয়েছে প্রায় ১১হাজার ৫শ’ টাকা। সেই জমি থেকে ধান বিক্রি করছেন প্রায় ১৭ হাজার ৬শ’ টাকা। এ হিসেব অনুযায়ি সব খরচ বাদে বিঘায় লাভ হয়েছে প্রায় ৬ হাজার ১শ’ টাকার মত। তবে বর্গাচাষির ক্ষেত্রে লাভের পরিমানটা কম। কারণ প্রতিবিঘা জমির বিপরীতে একেকজন বর্গাচাষিকে প্রায় ৪ হাজার টাকা বর্গা বাবদ গুণতে হয়।

উপজেলার সাধুবাড়ী গ্রামের কৃষক শহিদুল ইসলাম সদের এবার ২০বিঘা জমিতে চলতি মৌসুমের রোপা-আমন ধান লাগিয়েছিলেন। এরমধ্যে সিংহভাগ জমিতে বিআর-৪৯ জাতের ধান চাষ করেন। ইতিমধ্যে ধান কাটা মাড়াই শেষ করে সেই ধান গোলায় তুলেছেন। এই জাতের ধান গড়ে বিঘাপ্রতি ফলন হয়েছে ১৬ মণ হারে। আর বর্তমান বাজারে এই জাতের প্রতিমণ ধান ১১শ’ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। একই কথা জানান কৃষক ইকবাল হোসেন, রেজাউল করিম বাবলু, আশরাফ আলীসহ অনেকে।

তারা আরও বলেন, চলতি রোপা-আমন মৌসুমের শুরু থেকেই এবার আবহাওয়া তেমন একটা অনুকূলে ছিল না কৃষকের। বাড়তি বৃষ্টিপাত, সঙ্গে হালকা থেকে ঝড়ো হাওয়ার ফলে পোকার আক্রমন দেখা হয়। শেষ সময়ে এসে আবারও বৃষ্টিপাত হয়। এসব বাধার পাহাড় মোকাবিলা করে তাদের উৎপাদিত ফসলের ভাল দাম পাওয়ায় আমন ধান চাষিরা এবার ব্যাপক খুশি।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা খাজানুর রহমান জানান, চলতি মৌসুমে এই উপজেলায় ১৯ হাজার ৫০০ হেক্টর জমিতে আমন ধান চাষ করা হয়। সে মোতাবেক ৭০ হাজার মেট্রিকটন ধান উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়। তবে আমনের বেশ ভাল ফলন হয়েছে। তাই উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

এছাড়া বিগত যে কোন সময়ের চেয়ে কৃষক তার উৎপাদিত ফসলের দামও ভাল পাচ্ছেন। এতে ধান চাষিরা লাভবান হচ্ছেন বলেও দাবি করেন এই কৃষি কর্মকর্তা।


আধুনিক পদ্ধতিতে টমেটো চাষে মুন্সীগঞ্জের
মুন্সীগঞ্জের বিভিন্ন উপজেলায় টমেটো চাষে কৃষকদের আগ্রহ ক্রমেই বাড়ছে। গত
বিস্তারিত
সিলেটের সদর ও ফেঞ্চুগঞ্জ শতভাগ
সরকার ঘোষিত শতভাগ বিদ্যুতায়ন কর্মসূচির আওতায় সিলেট জেলার অধিকাংশ এলাকা-ই
বিস্তারিত
মালয়েশিয়ায় শ্রমিকদের রি-হায়ারিং ‘মেয়াদ বাড়ছে’
মালয়েশিয়ায় অবৈধভাবে বসবাসকারী বাংলাদেশি শ্রমিকদের রি-হায়ারিংয়ের সময়সীমা শেষ হবে আগামী
বিস্তারিত
বারোমাসি আমে লাভ বহুগুণ
ফুলতলা উপজেলার পূর্ব মশিয়ালী গ্রামে বাণিজ্যিক ভিত্তিতে গড়ে উঠেছে বারোমাসি
বিস্তারিত
সিরাজদিখানে আমন ধানের বাম্পার ফলন: কৃষকের
অনুকূল আবহাওয়ার কারণে মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলায় এবার ধানের বাম্পার ফলন
বিস্তারিত
ড্রাগনফল গাছে ফুলের হাসি, স্বপ্ন
শেরপুরের নকলায় চাষকরা ড্রাগনফল গাছে ফুল আসায় কৃষকের মুখে হাসি
বিস্তারিত