মালয়েশিয়ায় শ্রমিকদের রি-হায়ারিং ‘মেয়াদ বাড়ছে’

মালয়েশিয়ায় অবৈধভাবে বসবাসকারী বাংলাদেশি শ্রমিকদের রি-হায়ারিংয়ের সময়সীমা শেষ হবে আগামী ৩১ ডিসেম্বর। তবে এ মেয়াদ আরও ছয়মাস বাড়তে পারে বলে জানিয়েছেন কর্মকর্তারা।

বাংলাদেশ হাইকমিশন সূত্রে জানা যায়, চেষ্টা চালানো হচ্ছে যাতে মালয়েশিয়ায় কর্মীদের রি-হায়ারিংয়ের সময় আরও ছয় মাস বাড়ানো হয়। তবে এটাও বলা হয়, এখনও এ বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। তাই সবাই যেনো ৩১ ডিসেম্বরের আগেই নথিভুক্ত হন।

অবশ্য, ইতোমধ্যে যারা সমুদ্রপথে কিংবা অন্য কোনো অবৈধ পথে মালয়েশিয়ায় এসেছেন তারা সুযোগ পাচ্ছেন না। তাদের জন্যে আলাদা প্রোগ্রাম ই-কার্ড চালু করেছে মালয়েশীয় সরকার।  

মালয়েশিয়ায় অবৈধ নাগরিকদের চিহ্নিতকরণ ও তাদের বৈধ হবার কর্মসূচিই হচ্ছে রি-হায়ারিং। যা চলতি বছরের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত চলবে। যারা বৈধভাবে প্লেনে বা ইমিগ্রেশন পেরিয়ে মালয়েশিয়ায় ঢুকেছিলেন শুধু তাদের জন্যই এ কর্মসূচি হচ্ছে। কুয়ালালামপুরের বাংলাদেশ হাইকিমশন ও সংশ্লিষ্ট সূত্র মারফত এ তথ্য জানা গেছে।

ইতোপূর্বে ২০১৪ সালের ডিসেম্বরে কুয়ালালামপুর সফরের সময় দেশটিতে অবৈধভাবে বসবাসরত বাংলাদেশি কর্মীদের বৈধতা দিতে মালয়েশীয় সরকারকে অনুরোধ জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তারই জের ধরে পরবর্তীতে ওই দেশের সরকার মালয়েশিয়ায় বসবাসরত অবৈধ কর্মীদের বৈধতা দিতে ২০১৬ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি থেকে রি-হায়ারিং কর্মসূচি চালু করে। প্রথমে এর মেয়াদ ছিল ২০১৬ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত।

পরে হাইকমিশনের কূটনৈতিক প্রচেষ্টা ও শ্রমবাজারের চাহিদা বিবেচনায় নিয়ে দেশটির সরকার তা ওই বছরের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত বাড়ায়। এরপর আবারও কূটনৈতিক প্রচেষ্টার মাধ্যমে তা ২০১৭ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত বাড়ানো হয়।


দেশি মাছ চাষে লাখপতি নকলার
গত এক দশক ধরে শেরপুরের প্রতিটি উপজেলায় মাছ চাষ বাড়ছে।
বিস্তারিত
গাভী পালন করে স্বাবলম্বী কচুয়ার
চাঁদপুরের কচুয়া উপজেলা সদর থেকে প্রায় ৬ কিলোমিটার পথ দক্ষিণে
বিস্তারিত
থাই পেয়ারা থ্রি চাষে বেকারত্ব
বিভিন্ন ফলের বাগান করে দেশের অনেক বেকার তাদের বেকারত্ব জয়
বিস্তারিত
নকলায় লক্ষমাত্রার চেয়ে বেড়েছে পাটের
ধানের দরপতনের কারনে কৃষকরা ধান চাষে আস্তে আস্তে আগ্রহ হারিয়ে
বিস্তারিত
আধুনিক পদ্ধতিতে টমেটো চাষে মুন্সীগঞ্জের
মুন্সীগঞ্জের বিভিন্ন উপজেলায় টমেটো চাষে কৃষকদের আগ্রহ ক্রমেই বাড়ছে। গত
বিস্তারিত
সিলেটের সদর ও ফেঞ্চুগঞ্জ শতভাগ
সরকার ঘোষিত শতভাগ বিদ্যুতায়ন কর্মসূচির আওতায় সিলেট জেলার অধিকাংশ এলাকা-ই
বিস্তারিত