ক্যারিয়ার গড়তে নটিক্যাল সায়েন্স

পড়াশোনা শেষে একটি ভালো চাকরি কে না চায়। তবে প্রতিযোগিতামূলক বিশ্বে চাকরির সুযোগ খুব একটা সহজ বিষয় নয়। তাই প্রয়োজন হয় এমন একটি বিষয়ে পড়ালেখা করা যেন তা শেষ হতে না হতেই পাওয়া যাবে ভালো একটি চাকরি। নটিক্যাল সায়েন্স এমনই একটি বিষয়।
নটিক্যাল সায়েন্স কী : নটিক্যাল সায়েন্স বিষয় নিয়ে পড়তে হলে সর্বপ্রথম জানা প্রয়োজন নটিক্যাল সায়েন্স কী। সমুদ্রে ভ্রমণের পাশাপাশি যারা সেটাকেই পেশা হিসেবে নিতে চান, তারাই পড়তে পারেন নটিক্যাল সায়েন্স। জাহাজের নাবিক হতে হলে প্রয়োজন এ বিষয়ে পড়াশোনা এবং সঠিক প্রশিক্ষণ। নটিক্যাল টেকনোলজি এবং শিপিং ম্যানেজমেন্টের নানা বিষয়ও এর আওতায় পড়ে।
পড়াশোনা : একজন নাবিকের প্রথমেই জানা প্রয়োজন জাহাজের অবস্থা এবং সেই সঙ্গে জাহাজ চালানোর নিয়ম-কানুন। জানতে হবে যেখানে জাহাজটি যাবে সেখানকার ল্যান্ড সায়েন্স, চ্যানেল, পানির গভীরতা, আলোর সুবিধা সম্পর্কে যাবতীয় তথ্য। এরই সঙ্গে জানা প্রয়োজন গ্লোবাল পজিশনিং সিস্টেম সম্পর্কে যাবতীয় তথ্য। দরকার পড়ে ফায়ার ফাইটিং, লাইফ সেভিং ইত্যাদি বিষয় সঠিক প্রশিক্ষণের। জানা থাকা দরকার পরিবেশ সুরক্ষার মতো বিষয়। জাহাজ যাতে সঠিক সময়ে সঠিক স্থানে পৌঁছাতে পারে সে ব্যবস্থা নিতে হয় ক্যাপ্টেনকে। ক্যাপ্টেনকে জানতে হয় অন্তঃদেশীয় এবং আন্তর্জাতিক নৌ-আইন সম্পর্কে। নটিক্যাল সায়েন্সের মাধ্যমে এসব বিষয়ে হাতে-কলমে শিক্ষা দেয়া হয়। এসব বিষয়ে বিস্তারিত জানতে সরাসরি যোগাযোগ করতে পারেন ০১৮৪১১৬১১৬১, ০১৭৩১০০৬৯৮৯ নম্বরে।
ভর্তির যোগ্যতা : নটিক্যাল সায়ন্সে পড়তে হলে শিক্ষার্থীকে অবশ্যই বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্র হতে হবে। এসএসসি ও এইচএসসি উভয় পরীক্ষায় জিপিএ-৩ থাকতে হবে। তবে পদার্থবিদ্যা ও গণিতে আলাদাভাবে ৩.৫ এবং ইংরেজিতে জিপিএ-৩ থাকতে হবে। ন্যূনতম বয়স হতে হবে ১৭ বছর। 
চাকরির সুযোগ : পাড়াশোনা শেষে চাকরির সুযোগ পাওয়া যেতে পারে ইন্টারন্যাশনাল মেরিটাইম অর্গানাইজেশনের সদস্য দেশি-বিদেশি বিভিন্ন শিপিং কোম্পানিতে। এছাড়াও ডেক অফিসার, শিপিং এজেন্ট, শিপিং ইন্সপেক্টর, মেরিন ইন্স্যুরেন্স অ্যাডজাস্টার কিংবা পোর্ট ম্যানেজার হিসেবেও চাকরি পাওয়ার সুযোগ রয়েছে। রয়েছে বাংলাদেশ মার্চেন্ট নেভি অফিসারদের চাহিদা।
কোথায় পড়বেন : গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের ডিপার্টমেন্ট অব শিপিং কর্তৃক অনুমোদিত নটিক্যাল সায়েন্স পড়া যাবে ওয়েস্টার্ন মেরিন একাডেমিতে। এখান থেকে ২ বছরের সফল প্রশিক্ষণ শেষে প্রশিক্ষণার্থীরা সমুদ্রগামী বাণিজ্যিক জাহাজে ডেক-ক্যাডেট এবং ইঞ্জিন ক্যাডেট হিসেবে যোগ দিতে পারবে। কর্মজীবনের ধারাবাহিকতায় তারা পরে ক্যাপ্টেন বা চিফ ইঞ্জিনিয়ার পদে উন্নীত হবেন। যোগাযোগ : রূপসী বাসস্ট্যান্ড, রূপগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ।


পথ চলতে ও বাসে চলাচলের
তরুণরাই দেশের ভবিষ্যৎ কর্ণধার। তরুণ প্রজন্মই আগামীতে দেশ পরিচালনার গুরুদায়িত্ব
বিস্তারিত
আত্মপ্রত্যয়ী ও আত্মবিশ্বাসী যারা
ইতিবাচক মানসিকতার মানুষের সংস্পর্শে এলে নিজেও আত্মবিশ্বাসী এবং আত্মপ্রত্যয়ী হওয়া
বিস্তারিত
জীবনে সাফল্য পেতে হলে সঠিক
উচ্চমাধ্যমিক ফাইনাল ও ভর্তি পরীক্ষায় ভালো ফল করার পরও অনেক
বিস্তারিত
‘ট্রেনিং দ্য ট্রেইনার্স’ কর্মসূচিতে কানাডার
একজন উচ্চ-আশাবাদী মানুষ হিসেবে জ্ঞান ও দক্ষতা অর্জনের জন্য পৃথিবীব্যাপী
বিস্তারিত
পথশিশুদের জন্য ‘এক টুকরো হাসি’
‘এক টুকরো হাসি’ মূলত একটি পরিবার। যে পরিবারটি বিভিন্ন স্থান
বিস্তারিত
ড্যাফোডিল পলিটেকনিকের শিক্ষার্থীদের জন্য জব
৮ অক্টোবর ড্যাফোডিল পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের শিক্ষার্থীদের চাকরির সুযোগ তৈরির উদ্দেশ্যে
বিস্তারিত