আমাদের পরিবার

পরিবারে সবার বড়
আমার দাদা দাদু
গল্প শুনি যখন তাদের 
মুখে ঝরে মধু।

বাবা কত কষ্ট করে
দিবানিশি খাটে
যায় সে আবার কাজের শেষে
গোবিন্দপুর হাটে।

কিনে আনে অনেক কিছু 
আমার জন্য মজা
মা যে আমায় আদর করে
পড়ান  জুতো-মোজা।

বড় ভাইয়া অতি আপন
নিয়ে যায় খেলতে
দুষ্টামিতে মজলে মন
ভোলে না কান মলতে।

আপুর সঙ্গে সন্ধ্যাবেলা
পড়তে আমি বসি
সব কিছুর সঙ্গী সে আমার
অনেক ভালোবাসি।

রাতে সবাই একসঙ্গে খাই
অনেক মজার খাবার
এমনি করে দিন কেটে যায়
সকাল হয় যে আবার।


ভাইয়ের ভালোবাসা
রুহানকে ভাইয়ের ভালোবাসা বোঝানোর জন্যই মামার এই কৌশল। এ কথা
বিস্তারিত
শরৎ সাজ
শরৎ সাজ পাই খুঁজে আজ শিউলি ফোটা ভোরে পল্লী গাঁয়ের মাঠে
বিস্তারিত
মশারাজ্যে
প্যাঁপো লাফাতে লাফাতে বলল, ‘আমি আগেই সন্দেহ করেছিলাম, আপনি বিদেশি
বিস্তারিত
আবার শরৎ এলো
নদীর ধারে শাদা ফুলের দোলা,
বিস্তারিত
জাতীয় কবি
ছোট্টবেলায় বাবা মারা যান অসহায় হন ‘দুখু’ সংসারে তার হাল ধরা
বিস্তারিত
বিদ্রোহী নজরুল
চুরুলিয়ার সেই ছেলে তুমি  কবিতার নজরুল, রণাঙ্গনের বীর সৈনিক প্রাণেরই বুলবুল। কেঁদেছো তুমি দুখীর
বিস্তারিত