আজও মেলেনি খালেদার মামলার রায়ের কপি

জিয়া এতিমখানা ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার রায়ের ষষ্ঠ দিন মঙ্গলবারেও সার্টিফায়েড কপি পাননি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা। ফলে পিছিয়ে গেছে তার আপিল আবেদন। রায়ের কপি পেলে বুধবার আপিল জমা দেয়ার চেষ্টা করবেন বলে জানিয়েছেন চেয়ারপারসনের অন্যতম আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া।   

বিদেশ থেকে জিয়া এতিমখানা ট্রাস্টের নামে আসা দুই কোটি ১০ লাখ টাকা আত্মসাতের মামলায় খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী পুরানো ঢাকার কারাগারে রাখা হয়েছে।

তার সঙ্গে দেখা করার জন্য মঙ্গলবার বেলা ১২টার দিকে সানাউল্লাহ মিয়াসহ চার আইনজীবী কারাগারের সামনে যান। পরে সেখান থেকে তারা যান কারা অধিদপ্তরে।

সে সময় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে সানাউল্লাহ মিয়া বলেন, ‘কিছু কাগজপত্রে ম্যাডামের সই লাগবে। এ কাজেই এসেছি। বেরিয়ে এসে আপনাদের সঙ্গে কথা বলব।’

তিনি বলেন, ‘আজকে আমরা কয়েকটি ওকালতনামা জেল সুপারের মাধ্যমে ম্যাডামের কাছে দিয়ে এসেছি। তিনি দেখে-শুনে পরে সই করে দেবেন। দুর্নীতি দমন কমিশন-দুদকের মামলাসহ অন্যান্য মামলায় ম্যাডাম জামিনে আছেন।’

রায়ের কপি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আগামীকাল (বুধবার) আমরা দুপুরের পর রায়ের কপি পাব। এটা ঢাকা বিশেষ জজ-৫ আমাদের সরবরাহ করবেন। আমাদের বকশীবাজারের আলিয়া মাদ্রাসায় আসতে হবে না। কাল যদি আমরা রায়ের কপি পাই, তাহলে পরদিন হয়তো আপিল ফাইল করতে পারব।’

এসময় সাংবাদিকদের উদ্দেশে খালেদা জিয়ার এই আইনজীবী বলেন, ‘আপনারা গতকাল (সোমবার) কাস্টডি ওয়ারেন্ট ও প্রডাকশন ওয়ারেন্ট পাঠানো হয়েছে এবং শ্যোন অ্যারেস্ট বলে অনেকে নিউজ করেছেন। এর কোনোটাই আসেনি। বন্দি অবস্থায় একমাত্র কোর্ট ছাড়া অন্য কারো এটা দেয়ার ক্ষমতা নাই। এটা শুধু কোর্ট ইস্যু করবে।’

তিনি আরও জানান, আমাদের জানা মতে এবং কারা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে- এরকম কোনো কিছু আসেনি। যা এসেছে তা কোর্টে হাজিরার নির্দেশনা।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন খালেদা জিয়ার আইনজীবী জাকির হোসেন ভূইয়া ও সৈয়দ জয়নাল আবদিন মেজবা।

প্রসঙ্গত, বৃহস্পতিবার পুরানো ঢাকার বকশীবাজারে স্থাপিত বিশেষ জজ আদালতের বিচারক ড. আখতারুজ্জামান জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়াকে ৫ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেন।

এছাড়া মামলার অপর আসামি বিএনপি প্রধানের ছেলে তারেক রহমানসহ বাকি আসামিদের ১০ বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। তাদেরকে ২ কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

রায়ের পরপরই খালেদা জিয়াকে নাজিম উদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে নেয়া হয়। নির্জন কারাগারের একমাত্র বন্দি হিসেবে তিনি সেখানেই আছেন।


ঈদে ঢাকা-বরিশাল নৌরুটে কেবিন বুকিংয়ের
আসন্ন ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ঢাকা-বরিশাল নৌরুটের বেসরকারি লঞ্চের স্পেশাল সার্ভিসের
বিস্তারিত
মমতার সঙ্গে আলাদা বৈঠক হবে
ভারত সফরকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে আলাদা বৈঠক হবে পশ্চিমবঙ্গের
বিস্তারিত
কঙ্গোতে নৌকা ডুবে ৪৯ জনের
কঙ্গোলিস রেডিও জানিয়েছে, পশ্চিম আফ্রিকার দেশ কঙ্গোতে নৌকা ডুবে ৪৯
বিস্তারিত
জাতীয় কবির সমাধিতে সর্বস্তরের মানুষের
১১৯তম জন্মবার্ষিকীতে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের সমাধিতে ফুল দিয়ে
বিস্তারিত
ছয়দিনে কথিত বন্দুকযুদ্ধে অর্ধ শতাধিক
আইনশৃঙ্খলার বাহিনীর সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে আজসহ ছয়দিনে অর্ধ শতাধিক মানুষ
বিস্তারিত
রোহিঙ্গা শিশুদের দায়িত্ব পুরো বিশ্বকে
রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়ে বাংলাদেশ যে ভালোবাসার নজির স্থাপন করেছে, তাতে
বিস্তারিত