‘মাইক্রোসফট ডিজিটাল সিভিলিটি’ জরিপ

অনলাইনে হয়রানির বেশিরভাগই ঘটে সামাজিক গ-ির মধ্যে

আন্তর্জাতিক নিরাপদ ইন্টারনেট দিবসের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে ‘সিভিলিটি, সেফটি অ্যান্ড ইন্টার‌্যাকশনস অনলাইন-২০১৭’ শীর্ষক এক ডিজিটাল সভ্যতা সূচক জরিপ পরিচালনা করেছে মাইক্রোসফট। টিনএজার ও প্রাপ্তবয়স্করা অনলাইনে কী ধরনের ঝুঁকির সম্মুখীন হয় এবং অনলাইনে তাদের সম্পৃক্ততা ব্যক্তিগত জীবনে কী ধরনের প্রভাব ফেলে, সে সম্পর্কে তাদের উপলব্ধি জানার উদ্দেশ্যে এই জরিপ পরিচালিত হয়। জরিপের প্রতিবেদনে অনলাইনে হয়রানি নিয়ে অনেক আশ্চর্যজনক তথ্য উঠে এসেছে। 

২০১৬ সালের জরিপকৃত ১৬ দেশসহ এবার গবেষণা জরিপটি ২৩টি দেশে পরিচালিত হয়। জরিপে টিনএজার (১৩ থেকে ১৭ বছর বয়সি) এবং প্রাপ্তবয়স্কদের (১৮ থেকে ৭৪ বছর বয়সি) বর্তমানে অনলাইনে নাগরিকত্বের অবস্থা নিয়ে তাদের ধারণা ও উপলব্ধির কথা জানতে চাওয়া হয়। জরিপে উত্তরদাতাদের জীবনে মাইক্রোসফট গত বছরের চেয়েও তিনটি বেশিসহ মোট ২০টি পৃথক অনলাইন ঝুঁকি নিয়ে জানার চেষ্টা করে। গত বছরের চেয়ে এ বছর চারটি বিভাগে তিনটি বিষয় বেশি ছিল। বিভাগগুলো হচ্ছে আচরণগত, মনস্তত্বগত, যৌনাচারণগত ও ব্যক্তিগত। 
সাম্প্রতিক এই জরিপ অনুযায়ী, বিশ্বব্যাপী মানুষের ডিজিটাল মাধ্যমে সম্পৃক্ততা ও অনলাইন ঝুঁকির আশঙ্কা কমার কথা থাকলেও আশ্চর্যজনকভাবে অনলাইনে হয়রানির শিকার উত্তরদাতারা জানিয়েছেন, এ ব্যাপারে অনলাইনে হয়রানি ঘটে তাদের পরিবার ও আশপাশের মানুষের কাছ থেকেই। তিনজনের মধ্যে প্রায় দুজন (৬১ শতাংশ) উত্তরদাতা জানিয়েছেন, তাদের অনলাইনে হয়রানিকারীর ব্যাপারে পূর্ব অভিজ্ঞতা রয়েছে। এক-তৃতীয়াংশের বেশি (৩৬ শতাংশ) জানিয়েছেন, তারা ব্যক্তিগতভাবে হয়রানিকারীকে চেনেন। ১৭ শতাংশ উত্তরদাতা জানিয়েছেন, হয়রানিকারীরা তাদের বন্ধু কিংবা পরিবারের সদস্য ছিলেন। যেখানে পাঁচজনের একজন (১৯ শতাংশ) উত্তরদাতা জানিয়েছেন, হয়রানিকারী তাদের পূর্বপরিচিত। জরিপকৃত এক-চতুর্থাংশ জানিয়েছেন, হয়রানিকারীকে তারা অনলাইনের মাধ্যমেই চিনতেন। ৩৭ শতাংশ জানিয়েছেন, অনলাইনে তাদের ঝুঁকি সম্পূর্ণভাবে আগন্তুকের কাছ থেকে এসেছে। পরিবারের সদস্য ও বন্ধুরা বেশিরভাগ অনলাইনে হয়রানির ক্ষেত্রেই দায়ী বলে জানিয়েছেন অনলাইনে হয়রানির শিকার (৪১ শতাংশ) উত্তরদাতারা। 
এছাড়াও জরিপের প্রতিবেদনে যেসব বিষয়ে উঠে এসেছে, সেগুলো হলোÑ গত বছরের মতোই অর্ধেকের বেশি (৫৩ শতাংশ) মানুষ জানিয়েছেন, ব্যক্তিজীবনে হয়রানিকারীর সঙ্গে তাদের দেখা হয়েছে। জরিপকৃত এই অংশে ৭৬ শতাংশ জানিয়েছেন, অনলাইনে হয়রানি ঘটার আগে থেকেই তারা হয়রানিকারীকে চিনতেন।
- দশ জনের মধ্যে একজন জানিয়েছেন, তারা হয়রানিকারীকে সরাসরি প্রত্যুত্তর করেছেন, যা গত বছরের চেয়ে ১১ শতাংশ কমÑ যেখানে প্রত্যুত্তর দেওয়ার সংখ্যা আগের ১৭ শতাংশ থেকে ৯ শতাংশে নেমে এসেছে। 
- এর বাইরে ইতিবাচক ব্যাপার হচ্ছে, ৬৬ শতাংশ সম্পূর্ণরূপে অথবা কিছু ক্ষেত্রে অনলাইনে নিরাপদ ও সুরক্ষিত বোধ করেছেন। বিপরীতক্রমে, যাদের হয়রানির বোধ হয়েছে (১২ শতাংশ) তারা অনলাইন ঝুঁকির ক্ষেত্রেই বেশি অনিরাপদ বোধ করেছেন। 
- মাইক্রোসফট ডিজিটাল সিভিলিটি চ্যালেঞ্জে অনলাইন ঝুঁকির ক্ষেত্রে যে পদক্ষেপগুলোর কথা বলা হয়, জরিপে এমন তিনটি পদক্ষেপ উঠে এসেছে। পদক্ষেপগুলো হচ্ছে ‘অনলাইন হয়রানির বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো, ‘প্রত্যুত্তর দেওয়ার আগে চিন্তা করা’ এবং ‘অনলাইন সুরক্ষায় অন্যের পাশে দাঁড়ানো’। এই তিন পদক্ষেপ অনলাইন হয়রানি প্রতিরোধে ডিজিটাল সিভিলিটি চ্যালেঞ্জে যে ১০টি প্রধান প্রতিরোধমূলক পদক্ষেপের কথা বলা হয়েছে, সেখানে উঠে এসেছে।
ধারাবাহিকভাবে, দ্বিতীয় বছরের মতো অপ্রত্যাশিত কন্ট্যাক্ট অনলাইন ঝুঁকির শীর্ষে রয়েছে। ৪১ শতাংশ উত্তরদাতা জানিয়েছেন অনলাইনে তাদের সঙ্গে এমন কিছু মানুষ যোগাযোগ করেছে, যেটা তারা চাননি। এটা গত বছরের চেয়ে ৪৩ শতাংশের চেয়ে দুই শতাংশ কম। এরপর অনলাইনে সবচেয়ে ঝুঁকি হচ্ছে ঠগ, প্রতারণা ও জালিয়াতি। সামগ্রিকভাবে ২৭ শতাংশ উত্তরদাতা জরিপে এটা জানিয়েছেন। এ বছরই প্রথম এ ঝুঁকি জরিপে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।
জরিপে ডিজিটাল সভ্যতার ক্ষেত্রে যেসব পদক্ষেপের কথা বলা হয়েছে, তার মধ্যে রয়েছে সহানুভূতি ও উদারদাতার সঙ্গে অনলাইনে যোগাযোগ করা এবং অনলাইনে সবাইকে মর্যাদা ও সম্মান দেওয়া। পার্থক্যের ক্ষেত্রে, আলাদা দৃষ্টিভঙ্গির বৈচিত্র্যের ক্ষেত্রেও আমাদের সম্মান প্রদর্শন করতে হবে এবং আলাদা সব বিষয়কেই সম্মান জানানো উচিত, এমনকি মতবিরোধ থাকলেও। যোগাযোগ কিংবা সম্পৃক্ততার আগে ভেবে নেওয়া দরকার এবং গালাগাল ও ব্যক্তিগত আক্রমণ থেকে বিরত থাকা উচিত।


ফেইসবুক আরও সহজ করছে রক্তদান
বিশ্ব রক্তদাতা দিবস উপলক্ষে ফেইসবুক তাদের প্ল্যাটফর্মের নির্দিষ্ট স্থানে যুক্ত
বিস্তারিত
চীনা ই-কমার্স জেডি ডটকমে বড়
চীনের ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান জেডি ডটকমে ৫৫ কোটি মার্কিন ডলার বিনিয়োগ
বিস্তারিত
অসম্পূর্ণ তথ্যের বিজ্ঞাপন ঠেকাতে ফেইসবুকের
প্রতিদিন ফেইসবুকে আমরা বিজ্ঞাপন দেখি। এসব বিজ্ঞাপনের সব তথ্যই যে
বিস্তারিত
তথ্য বিক্রি ঠেকাতে অ্যাপলের নীতিমালায়
অ্যাপল তাদের ব্যবহারকারীদের তথ্য বিক্রি ঠেকাতে থার্ড পার্টি ডেভেলপারদের জন্য
বিস্তারিত
গুগল ট্রান্সলেটর অ্যাপ চলবে অফলাইনে
অফলাইনে ব্যবহার করা যাবে গুগল ট্রান্সলেটর অ্যাপ। ডেটা না থাকলে
বিস্তারিত
দেশে ফাইভজি প্রযুক্তির পরীক্ষা আগামী
ফাইভজির প্রস্তুতি শুরু হয়েছে। জুলাইয়ের দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকেই এই প্রযুক্তির
বিস্তারিত