স্যামসনে ম্লান কোহলি- ডি ভিলিয়ার্স

চিন্নাস্বামীতে দুর্দান্ত এক জয় পেয়েছে রাজস্থান রয়্যালস। আগে ব্যাট করে সনজু স্যামসনের ৯২ রানের অসাধারণ এক ইনিংসে ২১৭ রানের পাহাড় গড়েছিল রাজস্থান রয়্যালস। স্যামসনের জবাব দিতে পারেননি কোহলি-ডি ভিলিয়ার্সরা। ১৯ রানের হার আটকানোও তাই সম্ভব হয়নি রয়াল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর।

প্রথম দুই ম্যাচে শুরুটা ভালো হয়নি রাজস্থানের। বেঙ্গালুরুর বিপক্ষে পাওয়া জয় নিশ্চয় তাদের আত্মবিশ্বাস বাড়াবে। এদিন শুরুতে ব্যাটিং করতে নেমে ২০ বলে ৩৬ করেছেন রাহানে। পাওয়ার প্লে শেষ হতে না হতে দুই ওপেনার ফিরে গেলেন, রানের চাকাটাও প্রায় থেমে গেল রাজস্থানের। প্রথম ১০ ওভারে এল ৭৬ রান।

স্মিথের অনুপস্থিতিতে দলের ঝড় তোলার দায়িত্বটা বেন স্টোকস ও জস বাটলারকে দিয়েছে রাজস্থান। কিন্তু এ দুজনকে দর্শক বানিয়ে ছক্কা মারার উৎসবে নামলেন স্যামসন। স্টোকসের আরেকবার হতাশ (২১ বলে ২৭) করা কিংবা বাটলারের আরও একবার ব্যর্থতাও (১৪ বলে ২১) তাই বাধা হলো না রাজস্থানের। অন্য প্রান্তে ইচ্ছে হলেই বল সীমানাছাড়া করেছেন স্যামসন। মাত্র ২টি চার মেরেছেন কিন্তু কোহলিদের আত্মবিশ্বাস দুমড়ে-মুচড়ে দিতে মেরেছেন দশ ছক্কা। উমেশ যাদবের শেষ ওভারেই এসেছে ২৭ রান।

ইনিংসের শেষ বলে যখন সিঙ্গেল নিচ্ছেন, স্যামসন নামের পাশে তখন ৯২—মাত্র ৪৫ বল খেলেই। স্যামসনের এমন রুদ্রমূর্তিতেই ইনিংসের দ্বিতীয় ভাগে ১৪১ রান তুলেছে রাজস্থান।

রান তাড়া করতে নেমে প্রথম ওভারেই ফিরে গেছেন ম্যাককালাম। ডি কককে নিয়ে তবু জুটির উড়ন্ত সূচনা করেছিলেন কোহলি। ষষ্ঠ ওভারেই পঞ্চাশ পেরিয়েছে বেঙ্গালুরু। ২৬ রান করে ডি কক ফিরলেও বেঙ্গালুরু চিন্তায় পড়েনি। কোহলি যখন দারুণ ফর্মে।

২৬ বলেই ফিফটি ছোঁয়া কোহলি ৫৭ রানে ফেরার পরই ধস নামল। আগের ম্যাচ জেতানো ডি ভিলিয়ার্স ফিরেছেন মাত্র ২০ রানে। মনদ্বীপ সিং (২৫ বলে ৪৭) ও ওয়াশিংটন সুন্দর (১৯ বলে ৩৫) বহু চেষ্টা করেও দলকে দুই শ’ (১৯৮) পার করাতে পারেননি।


তীব্র গরমে জ্ঞান হারালেন হার্দিক
সংযুক্ত আরব আমিরাতে আবহাওয়া ক্রমেই প্রতিকূল হয়ে উঠেছে। প্রচণ্ড গরমে
বিস্তারিত
তামিমের খোঁজ নিলেন প্রধানমন্ত্রী
এশিয়া কাপে বাংলাদেশের প্রথম ম্যাচে হাতের কব্জিতে আঘাত পাওয়া জাতীয়
বিস্তারিত
লেবাননকে ৮-০ গোলে হারাল বাংলাদেশ
এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের বাছাইপর্বে অপ্রতিরোধ্য গতিতে এগিয়ে চলেছে
বিস্তারিত
ভারতের জন্য কেন বাড়তি সুবিধা,
ভারত এশিয়া কাপের সব ম্যাচ খেলবে দুবাইয়ে। অথচ বাকি দলগুলো
বিস্তারিত
টস জিতে ব্যাটিংয়ে পাকিস্তান
ক্রিকেটে ভারত-পাকিস্তান মুখোমুখি হওয়া মানেই অন্যরকম উত্তেজনা। অন্যরকম শিহরণ জাগায়।
বিস্তারিত
এশিয়া কাপ নিয়ে আমার অনেক
এশিয়া কাপের ১৪তম আসরে তামিম ইকবাল যে বীরত্ব দেখিয়েছে সেটি
বিস্তারিত