ক্লান্ত

বিরহের ঘুম ভাঙানো মশারূপী আফ্রোদিতিকে মেরো না!

কুমড়ো ফুলের কলির মতো নিজেকে গুটিয়ে রেখো না আর
প্রতিটি দীর্ঘশ্বাসে ঝরাও শীতের শিশিরের মতো শূন্যতা
কুয়াশামাখা স্বপ্নে আবেগের কোলবালিশ ধরতে চাও না।

বিরহী কাঠঠোকরা তোমার মন খুঁড়ে খুঁড়ে ক্লান্ত 
তবু কমলা-স্ফীত বুকে সাড়া দিতে পারো না।
মন নিয়ে চারগুটি খেলে ক্লান্ত হতে চাও বলো?
কচিডাব দেহখানা এইবার মেলে দাও কলাপাতার মতো
বাকবাকুম স্বরে ডাকছে দেখো কামনামাখা মুহূর্ত।

ধনেপাতা, তোর ঘ্রাণ কখন পরিপূরক হবে নিঃস্বাদ জীবনেÑ
আর কত সিদ্ধধানের মতো আবেগও সিদ্ধ হবে অপেক্ষায়?
ভালোবাসার পুকুরে তেলাপিয়া মাছের মতো লুকোচুরি? 
এখনও নাড়ার আগুন পোহায় জমাটবাঁধা মন ও কুয়াশাÑ
তাই প্রেমের জালে ধরা দিয়ে দেখÑ কবি কেমন জেলে?


নৈসর্গ, পাহাড় ও নদীর কবি
কবি ও কথাসাহিত্যিক আফিফ জাহাঙ্গীর আলির জন্মদিন পহেলা জানুয়ারি। ১৯৭৮
বিস্তারিত
এলোমেলো
মনে করো কেউ তোমাকে ডাকেনি,  অথচ তুমি শুনতে পাচ্ছো অতল
বিস্তারিত
বুড়ি চাঁদ
সুগন্ধি রোমাল হাতে         তুমি মেপে গেলে ষাঁড়ের
বিস্তারিত
প্রেমিক হতে পারি না আজকাল
প্রেমিকার উষ্ণ চুম্বনে কৃষ্ণগৌড় ঠোঁটে  ভেসে ওঠে শোষিত মানুষের রক্তের দাগ! 
বিস্তারিত
এ মাটি
এ মাটি আমাকে দিয়েছে জীবনের যতো গান, বাতাসে রৌদ্রের ঝিলিমিলি প্রজাপতি
বিস্তারিত
নোনাজলের ঢেউ
যাবতীয় আয়োজন শেষে কত ভেঙেছি  এ নদীতে নোনাজলের মিছিলের ঢেউ  শব্দবাণে
বিস্তারিত