আমি কবি, আর কিছু নই

একটি কবিতা লেগে আছে বুকের কাছে

তার কণ্ঠের ধ্বনি শুনি আমি মাঝে মাঝে
ছোঁয়া যায় নাকো, ধরা যায় নাকো
বুকের কাছে ঠিক মাঝখানে
অমরতা সঞ্চারী চেয়ে থাকি
তার ফেরানো মুখের পানে
নানান ছন্দে নানাবিধ গানে গানে

আমি জানি নাকো সে জানে সে তো সবই জানে
তাকে ছুঁতে চাই, স্পর্শের জাদুমন্ত্রে
সে আছে বলেই আমি তো আর একা নই,

আছি দুইজনা খেলার ছলে,
বক্ষে জ্বলে অমরতা

আমি কবি, আর কিছু নই
কথা বলি তার মুখপানে চেয়ে
একা নই আমি জোড়বাঁধা ভূতলে

আমি কবি, আর কিছু নই।


বৈশাখের আহ্বান
বাতাসের সুরে সুরে ঝড়ের ঝংকার  আকাশের কালো মেঘে কালের হুংকার  বজ্রের
বিস্তারিত
ডোম
প্রথমে লোকটির ডান হাত কেটে ফেললাম তারপর বাম হাত তার পা
বিস্তারিত
আয়না সিরিজ
এক একদিন প্রেমিকার চশমায় প্রবেশ করি,  ঢুকে পড়ি অজান্তে আয়নার শহরে
বিস্তারিত
শ্রেষ্ঠ ডায়ালগ
(এক স্রোতস্বিনীর পাশে আমার সুন্দর ফুলবাগান। সেখানে আমি মন নিয়ে খেলা
বিস্তারিত
প্রতীক্ষা
সমুদ্রের মুখোমুখি, বসে আছি একাকী মনের তুলিতে আছ তুমি, কল্পনায় করি
বিস্তারিত
এসো হে বৈশাখ
বৈশাখ দরজায় নাড়ছে কড়া বাঙালি সাজাবে নতুন এই ধরা চারদিকে বসবে
বিস্তারিত