আমি কবি, আর কিছু নই

একটি কবিতা লেগে আছে বুকের কাছে

তার কণ্ঠের ধ্বনি শুনি আমি মাঝে মাঝে
ছোঁয়া যায় নাকো, ধরা যায় নাকো
বুকের কাছে ঠিক মাঝখানে
অমরতা সঞ্চারী চেয়ে থাকি
তার ফেরানো মুখের পানে
নানান ছন্দে নানাবিধ গানে গানে

আমি জানি নাকো সে জানে সে তো সবই জানে
তাকে ছুঁতে চাই, স্পর্শের জাদুমন্ত্রে
সে আছে বলেই আমি তো আর একা নই,

আছি দুইজনা খেলার ছলে,
বক্ষে জ্বলে অমরতা

আমি কবি, আর কিছু নই
কথা বলি তার মুখপানে চেয়ে
একা নই আমি জোড়বাঁধা ভূতলে

আমি কবি, আর কিছু নই।


আরব ছোটগল্পের রাজকুমারী
সামিরা আজ্জম ১৯২৬ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর ফিলিস্তিনের আর্কে একটি গোঁড়া
বিস্তারিত
অমায়ার আনবেশে
সাদা মুখোশে থাকতে গেলে ছুড়ে দেওয়া কালি  হয়ে যায় সার্কাসের রংমুখ, 
বিস্তারিত
শারদীয় বিকেল
ঝিরিঝিরি বাতাসের অবিরাম দোলায় মননের মুকুরে ফুটে ওঠে মুঠো মুঠো শেফালিকা
বিস্তারিত
গল্পের পটভূমি ইতিহাস ও বর্তমানের
গল্পের বই ‘দশজন দিগম্বর একজন সাধক’। লেখক শাহাব আহমেদ। বইয়ে
বিস্তারিত
ধোঁয়াশার তামাটে রঙ
দীর্ঘ অবহেলায় যদি ক্লান্ত হয়ে উঠি বিষণœ সন্ধ্যায়Ñ মনে রেখো
বিস্তারিত
নজরুলকে দেখা
আমাদের পরম সৌভাগ্য, এই উন্নত-মস্তকটি অনেক দেরিতে হলেও পৃথিবীর নজরে
বিস্তারিত