দুষ্টু ছেলে

তাকে সবাই ডাকে দুষ্টু ছেলে

এই ছেলেটা পুকুর পাড়ে
ছোট্ট গাছে, ঝোপে ঝাড়ে
টুনটুনি বা ছোট্ট কোনো 
পাখির বাসা পেলে,
বাসাটাকে দেখে রাখে
শকুন কিংবা চিলে, কাকে
ছানা যেন নেয় না তুলে
সেদিকটা খুব খেয়াল রাখে।

গাছের লতাপাতা দিয়ে
কিংবা ছেঁড়া ছাতা দিয়ে
বাসাটাকে আগলে রাখে,
বলুক সবাই দুষ্টু তাকে,
এসব কিছুর ধার ধারে না ছেলে
পথের মাঝে বৃষ্টিভেজা 
পাখির ছানা পেলে
ঘরে এনে শুশ্রƒষা দেয় 
সুস্থ করে তোলে,
করত এসব মাঝে মাঝে 
পড়ালেখা ভুলে।

কাদায় যদি আটকে থাকে 
ছোট্ট কুকুর ছানা
কেমনে তাকে তুলতে হবে
বিষয়টা তার খুব যে আছে জানা,
ছানাটাকে তুলে এনে 
নিজের আপন বন্ধু জেনে
সেবা করে টানা
গোসল করায় কাদা ছাড়ায়
তার সেবাতে কুকুর ছানা 
সুস্থ হয়ে উঠে দাঁড়ায়।

পথে অন্ধ মানুষ পেলে
নিজের স্কুলের সময় ফেলে
পার করে দেয় রাস্তা তাকে,

এসব কিছু করে বলেই
অল্প একটা কিছু হলেই
মার বকুনি বাবার ঝাড়ি
লেগেই থাকে লেগেই থাকে। 

এসব কিছু করে বলেই তাকে 
না বুঝেই ঝাড়ে সবাই, 
না বুঝেই দুষ্টু বলে ডাকে।   


বন্ধু
আবুল বলল, ‘আমাগো ভুল বুইঝ না ভাই। আমরা আসলে...’, ‘তোরা
বিস্তারিত
হেমন্ত দিন
হেমন্ত দিন হরেক রঙিন হরেক রঙের খেলা বনে বনে ফুল-পাখিদের
বিস্তারিত
এলিয়েন এসেছিল
হামীম বসা থেকে দাঁড়িয়ে পড়ল। বললÑ কে তুমি? -হ্যাঁ আমি
বিস্তারিত
হেমন্ত এসেছে
মাঠে মাঠে সোনা ধানে প্রাণটা ফিরে পেল সেদ্ধ চালের গন্ধ
বিস্তারিত
বাংলা মায়ের সবুজ প্রাণ
ইস্টি কুটুম মিষ্টি পাখির দুষ্ট ছানা আকাশ নীলে মেলছে খুশির নরম
বিস্তারিত
হেমন্তের নেমন্ত
ধানের ছড়ায় ঝুলছে সোনা আসলো ঋতু হেমন্ত শিশির কণা চিঠি
বিস্তারিত