শেষ হলো সিটিও টেক সামিট

শেষ হলো ‘সিটিও টেক সামিট ২০১৮’। বাংলাদেশে সিটিও ফোরামের আয়োজনে ২ দিনব্যাপী এ সামিট আয়োজন করে। আয়োজনের দ্বিতীয় ও শেষ দিন রাজধানীর ড্যাফোডিল টাওয়ার মিলনায়তনে সমাপনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন ড্যাফোডিল ইউনিভার্সিটির চেয়ারম্যান মো. সবুর খান। তিনি বলেন, বিশে^র সঙ্গে তাল মিলিয়ে প্রযুক্তি ক্ষেত্রে আমাদের এগিয়ে যেতে হবে। সরকারের একার পক্ষে দেশকে এগিয়ে নেওয়া সম্ভব না। সরকার ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠান একসঙ্গে কাজ করলে দশে দ্রুতগতিতে এগিয়ে যেতে বাধ্য। প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রযুক্তির সর্বোচ্চ ব্যবহার করতে হবে। শিক্ষার্থীরাই আগামী দিনের হাতিয়ার। তাদের প্রযুক্তি শিক্ষায় শিক্ষিত করে গড়ে তুলতে পারলেই আমরা নির্দিষ্ট লক্ষ্যে পৌঁছতে পারব। বিশেষ অতিথি হিসেবে বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক নির্বাহী পরিচালক শুভাঙ্কর সাহা বলেন, অর্থনৈতিক উন্নয়ন দিকে সবার নজর দিতে হবে। কীভাবে দেশকে অর্থনৈতিকভাবে এগিয়ে নেওয়া যায় সে জন্য বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে। তিনি বলেন, দেশকে এগিয়ে নেওয়ার বড় হাতিয়ার হলো তথ্যপ্রযুক্তি। তথ্যপ্রযুক্তির ব্যবহার যত বৃদ্ধি পাবে দেশ ততই বিশে^ মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে পারবে। 
ড্যাফোডিল ইউনিভার্সিটির ভিসি অধ্যাপক ড. ইউসুফ মাহবুবুল ইসলাম বলেন, ড্যাফোডিল বিশ^বিদ্যালয় একটি প্রযুক্তিবান্ধব বিশ^বিদ্যালয়। প্রযুক্তি সর্বোচ্চ সুবিধা ব্যবহার করা হয় আমাদের ক্যাম্পাসে। নিরাপদ প্রযুক্তি ব্যবহারের বিষয়ে শিক্ষার্থীদের সচেতন করতে হবে। তিনি আরও বলেন, সাইবার আক্রমণ প্রতিরোধ করার জন্য আমাদের ব্যবস্থা করতে হবে। অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন প্রোভিসি অধ্যাপক ড. এসএম মাহাবুবুল হক মজুমদারসহ অনেকে। সমাপনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সিটিও ফোরাম বাংলাদেশের সভাপতি তপন কান্তি সরকারসহ সিটিও ফোরামের নির্বাহী কমিটির সদস্যারা। 
দ্বিতীয় দিনের প্রধান আকর্ষণ ছিল ‘সাইবার কিসিউরিটি সচেতনতা অ্যাওয়ার্ড ২০১৮’ আয়োজন। এতে অংশগ্রহণকারীদের মাঝে সাইবার সিকিউরিটি নিয়ে একটি কুইজ প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। এতে প্রথম তিনজনকে চ্যাম্পিয়ান, প্রথম রানারআপ ও দ্বিতীয় রানারআপ ট্রফি প্রদান করা হয়। এছাড়া প্রতিযোগিতায় সেরা পাঁচজনকে বিশেষ সম্মাননা পুরস্কার প্রদান করা হয়। এর আগে ‘সিটিও টেক সামিট ২০১৮’ এর আয়োজনের দ্বিতীয় ও শেষ দিনে ‘সাইবার সিকিউরিটি : থ্রেডস ভালনারেভেটিস অ্যান্ড কাউন্টার মেজার’ শিরোনামে দিনের প্রথম সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। এতে মূল বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইউনিভার্সিটি সাইবার ফোরামের কো-ফাউন্ডার ও সিটিও ফোরাম বাংলাদেশের নির্বাহী সদস্য আজিম ইউ হক। দ্বিতীয় দিন ‘ই-গভর্নমেন্ট ফ্রেমওয়ার্ক’, ‘চ্যালেঞ্জ অব ই-কর্মাস ইন বাংলাদেশ’, ‘ডিজিটাল ফিন্যান্সিয়াল ইনোভেশন ইন বাংলাদেশ’, ডিসরাপট্রিভ টেকনোলজিস ইন পেমেন্ট সিস্টেম’, ‘সিকিউরিটি আইটি সলিউশন ইন ব্যাংকিং’ পাঁচটি সেমিনার ও কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। এসব সেমিনারে স্থানীয় প্রায় ৪০ জন স্পিকার অংশগ্রহণ করেন। শুক্রবার রাজধানীর ধানমন্ডি ক্লাবে উদ্বোধনী দু-দিনের এ সামিটের উদ্বোধন করেন আইসিটি বিভাগের সচিব সুবির কিশোর চৌধুরী। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের উপদেষ্টা এস কে সুর চৌধুরী, বেসিসের সভাপতি আলমাস কবির, সিটিও ফোরাম বাংলাদেশের সভাপতি তপন কান্তি সরকার, প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের এটুআই প্রোগ্রামের আইটি ম্যানেজার মো. আরেফ এলাহি মানিক প্রমুখ।
এবার ‘সিটিও এক্সসিলেন্ট অ্যাওয়ার্ড ২০১৮’ দেওয়া হয় বেসরকারি ডাচ্-বাংলা ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবুল কাশেম মো. শিরিনকে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে দুটি সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। 


টেকসই উন্নয়নের লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের অন্যতম
এটুআই এবং বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর (বিবিএস) যৌথ উদ্যোগে ১৬ জানুয়ারি
বিস্তারিত
একসঙ্গে কাজ করবে ইজিয়ার ও
রাইড শেয়ারিং সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান ইজিয়ার টেকনোলজিস লিমিটেড তাদের ব্যবহারকারীদের বাড়তি
বিস্তারিত
হুয়াওয়ে গুপ্তচবৃত্তি করে না
হুয়াওয়ে চীনের হয়ে গুপ্তচরবৃত্তি করছে না বলে জানিয়েছেন বৃহত্তম প্রযুক্তি
বিস্তারিত
১০ মডেলের হাই-কোয়ালিটি ইয়ারফোন আনল
১০ মডেলের হাই-কোয়ালিটির ইয়ারফোন এনেছে দেশীয় প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন।
বিস্তারিত
ঐক্যবদ্ধভাবে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয় ব্যক্ত
রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের সেলিব্রেটি হলে সোমবার বিকালে মোস্তাফা
বিস্তারিত
বাণিজ্য মেলায় ওয়ালটন স্মার্টফোনে ডিসকাউন্ট
ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় স্মার্টফোন ক্রয়ে ১০০ শতাংশ পর্যন্ত ডিসকাউন্ট
বিস্তারিত