খুলনার এনএসপিআই যেন তরুণদের জীবনবান্ধব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান

বাংলাদেশের আর্থসামাজিক প্রেক্ষাপটে ডিপ্লোমা তথা কর্মমুখী শিক্ষার গুরুত্ব অপরিসীম। হাতেকলমে বাস্তবধর্মী শিক্ষাই হলো কারিগরি শিক্ষা। বর্তমান প্রযুক্তিনির্ভর যুগে সাধারণ শিক্ষার তুলনায় কারিগরি শিক্ষায় শিক্ষিতরা প্রতিযোগিতামূলক কর্মসংস্থানে সবচেয়ে এগিয়ে থাকে। বেকারত্বের বিপরীতে চাকরির নিশ্চয়তা ও এসএসসির পর চার বছর কোর্স সম্পন্ন করেই ক্যারিয়ার গড়ার সুযোগ থাকায় নতুন প্রজন্ম দিন দিন এ শিক্ষার দিকে ঝুঁকছে।

আমাদের বিপুল জনসংখ্যাকে দক্ষ জনশক্তিতে রূপান্তরিত করতে পারলেই দেশ উন্নয়নের অভীষ্ট লক্ষ্যে পৌঁছবে। মধ্যম মানের দক্ষ প্রকৌশলী তৈরির জন্য বর্তমানে আমাদের দেশে সরকারি ব্যবস্থাপনায় রয়েছে ৪৯টি পলিটেকনিক, যা বিপুল জনসংখ্যার তুলনায় অপ্রতুল। তাই সরকারের সহযোগিতায় গড়ে উঠেছে অনেকগুলো বেসরকারি পলিটেকনিক, যেগুলো দক্ষ প্রকৌশলী তৈরি করে জাতীয় উন্নয়নে দেশকে সহায়তা করছে। খুলনার নর্থ সাউথ পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট (এনএসপিআই) সেসবের মধ্যে অন্যতম। প্রায় এক দশক ধরে দেশে দক্ষ মানবসম্পদ তৈরিতে নিরলস কাজ করে যাচ্ছে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের অন্যতম বৃহৎ এই প্রতিষ্ঠান। কারিগরি শিক্ষা বোর্ড অনুমোদিত এই প্রতিষ্ঠানের নিজস্ব ক্যাম্পাসে রয়েছে আধুনিক বিষয়ভিত্তিক ল্যাব, সমৃদ্ধ লাইব্রেরি, ফ্রি ওয়াইফাই ও জব প্লেসমেন্ট সেল সুবিধা, যা শিক্ষার্থীদের শিক্ষার পরিবেশকে সুনিশ্চিত করেছে। নিয়মিত পরীক্ষা গ্রহণ ও ব্যবহারিক ক্লাসে নিবিড় পর্যবেক্ষণের কারণে এই প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা আজ কর্মক্ষেত্রে সুপ্রতিষ্ঠিত।
চার বছর মেয়াদি আট সেমিস্টারে যেসব বিষয়ে শিক্ষা লাভের সুযোগ রয়েছে, সেগুলো হলো ডিপ্লোমা ইন মেরিন ইঞ্জিনিয়ারিং, সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং, ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং, আর্কিটেকচার ইঞ্জিনিয়ারিং, মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং, টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং, শিপ বিল্ডিং ইঞ্জিনিয়ারিং, কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ারিং এবং গার্মেন্ট ডিজাইন অ্যান্ড প্যাটার্ন মেকিং ইঞ্জিনিয়ারিং। প্রতিষ্ঠানটির প্রতিটি কোর্সই তাত্ত্বিক, ব্যবহারিক ও বাস্তব ক্ষেত্রে প্রয়োগভিত্তিক। 
এ ব্যাপারে কথা বলতে গেলে সিএসসি ডিপার্টমেন্টের শিক্ষার্থী মার্সেলিন স্বাধীনা জানান, ‘আমাদের শিক্ষকরা সবসময় তাত্ত্বিকের পাশাপাশি ব্যবহারিকে সমান গুরুত্ব দেন। ব্যবহারিক ক্লাস যথাযথভাবে সম্পাদনের জন্য রয়েছে আধুনিক প্রযুক্তিসমৃদ্ধ কম্পিউটার ল্যাব। সেখানে প্রতিটি শিক্ষার্থীর পৃথক কম্পিউটার ব্যবহারের সুযোগ রয়েছে।’ 
প্রতিষ্ঠানের প্রধান অধ্যক্ষ প্রকৌশলী মো. মাহ্ফুজুর রহমান জানান, ‘আমাদের প্রতিষ্ঠান থেকে প্রতি বছর এক হাজারের বেশি ডিপ্লোমা প্রকৌশলী দেশে-বিদেশে দক্ষতার সঙ্গে নিজ কর্মক্ষেত্রে কাজ করে যাচ্ছে। শিক্ষার্থীরা যাতে কর্মক্ষেত্রে দক্ষ নেতৃত্বের গুণ প্রদর্শন করতে পারে, তা নিশ্চিত করার পাশাপাশি আমরা সরকারের ২০৩০ সাল নাগাদ ৩০ শতাংশ শিক্ষার্থীকে কারিগরি শিক্ষায় সম্পৃক্তকরণের যে লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে, তা বাস্তবায়নে বদ্ধপরিকর।’
এনএসপিআইতে ডিপ্লোমা সম্পন্ন করার পর রয়েছে দেশসেরা প্রতিষ্ঠানগুলোয় ইন্টার্নশিপের সুযোগ ও চাকরিপ্রাপ্তিতে সহায়তা। এখান থেকে প্রতি বছর একাধিক শিক্ষার্থী উচ্চশিক্ষা গ্রহণের জন্য ঢাকা প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় ও বঙ্গবন্ধু টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে পড়ার সুযোগ পাচ্ছে। সব শিক্ষার্থীর অনুপ্রেরণার জন্য রয়েছে বিশ্বব্যাংকের আর্থিক সহায়তায় মাসিক ৮০০ টাকা শিক্ষাবৃত্তি। ছাত্রী, মেধাবী, মুক্তিযোদ্ধা ও শিক্ষক সন্তানদের জন্য রয়েছে বিশেষ আর্থিক সহায়তা। 
ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং শিক্ষাক্রমে শিক্ষাবর্ষে ভর্তির জন্য এসএসসি বা সমমানের পরীক্ষায় কমপক্ষে জিপিএ-২.০ পেয়ে উত্তীর্ণ হতে হবে। এইচএসসিতে উত্তীর্ণ, অনুত্তীর্ণ বা পরীক্ষার্থীরাও আবেদন করতে পারবে। যাবতীয় তথ্যের জন্য যোগাযোগ করতে পারেন : নর্থ সাউথ পলিটেকনিক, ৩৫ হাউজিং এস্টেট, সাউথ ব্লক, খালিশপুর, খুলনা। ফোন : ০১৭১৫৭৬৬৮৩৩। প্রতিষ্ঠানের িি.িহংঢ়রনফ.পড়স এ ওয়েবসাইট থেকেও সব ধরনের তথ্য জানা যাবে। ছবি : লেখক


বিনামূল্যে কম্পিউটার প্রশিক্ষণ
বর্তমান বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলার জন্য ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার
বিস্তারিত
সঠিক পেশা বেছে নিতে...
​পড়ালেখার মূল উদ্দেশ্য জ্ঞান অর্জন। তবে বাস্তবতার নিরিখে পরিস্থিতির
বিস্তারিত
বই জ্ঞানকে সমৃদ্ধ করে
বই আত্মাকে পরিপুষ্ট করে, জ্ঞানকে করে সমৃদ্ধ। বই হচ্ছে মানুষের
বিস্তারিত
বন্ধুদের নিয়ে দিন
প্রতি বছর আগস্টের প্রথম রোববার বিশ্বজুড়ে বন্ধু দিবস পালন করা
বিস্তারিত
বন্ধুত্ব হোক চিরদিনের
প্রতিটি বন্ধু দিবসে পুবাকাশের সূর্যটা নতুন বার্তা নিয়ে হাজির হয়।
বিস্তারিত
ভাবনার পরিবর্তন প্রয়োজন
আজকাল তারুণ্যের মাঝে একটা ভ্রান্ত ধারণা কাজ করেÑ প্রেম-ভালোবাসা শুধু
বিস্তারিত