কথিত বন্দুকযুদ্ধে ৫ জেলায় ৮ মাদক বিক্রেতা নিহত

বুধবার (২৩ মে) দিনগত রাত থেকে বৃহস্পতিবার (২৪ মে) ভোর পর্যন্ত পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দেশের পাঁচ জেলায় আট মাদক বিক্রেতা নিহত হয়েছেন। এর মধ্যে ফেনী, মাগুরা ও কুমিল্লায় দু’জন করে এবং ব্রাহ্মণবাড়িয়া ও নারায়ণগঞ্জে একজন করে নিহত হয়েছেন। এসময় আহত হয়েছেন নয় পুলিশ কর্মকর্তা।

জেলা প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর:
ফেনী: বৃহস্পতিবার ভোরে জেলার ফুলগাজী উপজেলার সীমান্তবর্তী জাম্বুড়া এলাকায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুই মাদক বিক্রেতা নিহত হয়েছেন। এসময় মাদক ও অস্ত্র উদ্ধার করা হয়।
নিহত দু’জন হলেন- সামিরান শামীম উপজেলার আনন্দপুর মাইজ গ্রামের মোহাম্মদ মোস্তফার ছেলে ও মনতলা গ্রামের মৃত ফটিক মিয়ার ছেলে মজনু মিয়া ওরফে মনির। ফুলগাজী থানার পরিদর্শক (ওসি) হুমায়ুন কবির জানান, নিহত মাদক বিক্রেতাদের বিরুদ্ধে থানায় ১০টিরও বেশি করে মামলা রয়েছে।

মাগুরা: জেলায় মাদক বিক্রেতাদের দু’টি গ্রুপের মধ্যে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দু’জন নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার ভোরে সদর থানার পুলিশ তাদের মরদেহ উদ্ধার করে। নিহত দু’জন হলেন- মাগুরা পৌর এলাকার নিজনান্দুয়ালী গ্রামের আইয়ুব হোসেন (৫০) ও ভায়না টিটিডিসিপাড়ার মিজানুর রহমান কালু (৪৩)। মাগুরা সদর থানাসহ বিভিন্ন থানায় নিহত আইয়ুবের নামে ১৮টি এবং কালুর নামে ২১টি মাদকের মামলা রয়েছে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া: বুধবার দিনগত রাত ২টার দিকে জেলার আখাউড়ায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ শীর্ষ মাদক বিক্রেতা ও হত্যা মামলার আসামি আমির খাঁ নিহত হয়েছেন। তিনি উপজেলার চানপুর এলাকার মৃত সুরুজ খাঁর ছেলে। বন্দুকযুদ্ধে আখাউড়া থানা পুলিশের এএসআই ও ২ জন কনস্টেবল আহত হয়েছেন। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ ১টি পাইপগান, ১টি কাতুর্জ, ১টি রামদা, ১০ কেজি গাঁজাসহ ৮টি স্কফ সিরাপ উদ্ধার করে। আখাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোশারফ হোসেন তরফদার জানান, নিহত আমিরের বিরুদ্ধে আখাউড়া থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে ২টি ও ১টি হত্যা মামলাসহ ১২টি মামলা রয়েছে।

নারায়ণগঞ্জ: জেলার সিদ্ধিরগঞ্জে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ১৫ মামলার আসামি মাদক বিক্রেতা সেলিম ওরফে ফেন্সি সেলিম নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাসহ (ওসি) ছয়জন। বৃহস্পতিবার ভোরে সিদ্ধিরগঞ্জের দক্ষিণ নিমাইকাসারী ক্যানেলপাড় বজলুখানের খালি জায়গায় এ ‘বন্দুকযুদ্ধ’ হয়। সেলিমের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় ১৫টি মাদক মামলা রয়েছে।

কুমিল্লা: বুধবার দিনগত রাত ২টার দিকে সদর দক্ষিণ উপজেলায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ রাজীব (৩০) নামে এক মাদক বিক্রেতা নিহত হয়েছেন। তিনি সদর দক্ষিণ উপজেলার চাঙ্গিনী এলাকার শাহ আলম মিয়ার ছেলে। এসময় ঘটনাস্থল থেকে একটা এলজি, ৪০ কেজি গাঁজা ও ৫০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়েছে। রাত ১টার দিকে চৌদ্দগ্রাম উপজেলায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ বাবুল মিয়া ওরফে লম্বা বাবুল (৩৮) নামে এক মাদক বিক্রেতা নিহত হন। তিনি উপজেলার পৌর এলাকার মৃত হাফেজ আহমেদের ছেলে। ঘটনাস্থল থেকে ২শ’ বোতল ফেনসিডিল ও একটি এলজি উদ্ধার করা হয়েছে। চৌদ্দগ্রাম থানার ওসি আবু ফয়সল জানান, বাবুলর বিরুদ্ধে থানায় পাঁচটি মাদক মামলাসহ ছয়টি মামলা রয়েছে।


আত্মসমর্পণের আহ্বানে ‌‘সাড়া দিচ্ছে না
নরসিংদীর মাধবদী পৌরসভার ছোট গদাইরচর গাঙপাড় এলাকার আফজাল হাজির ‘নিলুফা
বিস্তারিত
উন্নয়ন মেলা শেষে নকলায় পুরষ্কার
সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ড জনগণের কাছে তুলে ধরতে সারা দেশের
বিস্তারিত
আত্মতুষ্টি মানেই পতন: প্রধানমন্ত্রী শেখ
আত্মতুষ্টিতে না ভুগে নেতা-কর্মীদের সদা সর্তক থাকার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী
বিস্তারিত
জাতিসংঘ অধিবেশনে যোগদান শেষে দেশে
জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের ৭৩তম অধিবেশনে যোগদান শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী
বিস্তারিত
দুর্নীতিবাজরা এক হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, যুক্তফ্রন্টের নামে দুর্নীতিবাজরা এক হয়েছে। তবে
বিস্তারিত
১ম ও ২য় শ্রেণির চাকরিতে
প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির (৯ম থেকে ১৩তম গ্রেডে চাকরির ক্ষেত্রে)
বিস্তারিত