নিয়তি

হাঁটা শেষে পথিক রেখে যায় পদচিহ্ন
তারপর মদের গন্ধের মতো সময় পালায়
আবার নতুন পা আসে
দাঁড়ায়, হাঁটে একই গন্তব্যে
চোখে রোদ-আলো, অন্ধরাতের পাহারা
কনকলতা কিংবা কখনও ছুরি হাতে
ভারী ভারী পা ফেলে
সারি সারি চরণচিহ্ন রেখে
চলে যায় অজস্র পথিক, অগণিত দিন
উড়ে যায় ধোঁয়া হয়ে পলকে পলকে

মানুষ নিঃশেষ হলে পদচিহ্ন থাকে
থেকে থেকে মিশে যায় মলিন ধুলায়।


প্রসন্ন সাঁঝের পাখি ও ভয়াল
পাটাতনে বসে আহত পালাসি-গাঙচিল বিস্ফারিত নয়নে আমাদের দেখছে। ধীরে ধীরে
বিস্তারিত
জল : ০১
কাজল কাননে পায়ের আলোতে রবির ঘুম ভাঙে রোজ যাপিত সংসার সুখ-দুখে
বিস্তারিত
মাঝ রাতে মির্জা গালিবের শের
আরেক বার দেখা হলে অশুদ্ধ কিছু হবে না মহাভারত, চাই
বিস্তারিত
১৪ বছর বয়সি
রেখা এখন ক্লাস টেন, ক্লাস সিক্স থেকে শুরু হওয়া অপেক্ষা
বিস্তারিত
তুমি যদি এসে
এইসব শিশির ভেজা ফসলের মাঠ নতুন ভোরের সোনালি রোদ্দুর  কৃষকের হাসিমাখা
বিস্তারিত
দেহের নিমন্ত্রণে
কেউ ডাকে দেহের নিমন্ত্রণে কেউ প্রেমেরÑ সঙ্গোপনে কেউবা নিছক খেয়ালের বশে
বিস্তারিত