তবু পথ থেকে যায়


 

কিছু দূর যায় রাস্তা, কিছুটা মানুষ,
মেটো পথ এঁকেবেঁকে যে-ঘাটে মিশেছে
সাধ জাগে পায়ে পায়ে পৌঁছোবো সেখানেÑ
রবীন্দ্রনাথের মতো ভাবতে ভালো লাগে
দু’খানি নয়নে মিশেছে আমার পথ।
রাস্তা আরো যায়, বাস্তবতা মেনে নিয়ে বলি
আসলে মানুষই যায়
প্রয়োজনে, কী অপ্রয়োজনেÑ
রাস্তা কখনো যায় না।

তবু রাস্তা প্রচ- রকম টানে
গোলাপ-বিছানো পথ
মধ্যরাতে হাত ধ’রে টানে,
মনে হয় এই অনন্ত মিছিলে
তীব্র প্রতিবাদ হ’য়ে লেপ্টে থাকি,
লাশ হ’য়ে ধুলো-ওড়া রাজপথে
হোক ভাঙা, আঁকাবাঁকা তবু পথ থেকে যায়,
পথিকেরা পাখির মতোন উড়ে যায়
একদা, নিভৃতে...


আরব ছোটগল্পের রাজকুমারী
সামিরা আজ্জম ১৯২৬ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর ফিলিস্তিনের আর্কে একটি গোঁড়া
বিস্তারিত
অমায়ার আনবেশে
সাদা মুখোশে থাকতে গেলে ছুড়ে দেওয়া কালি  হয়ে যায় সার্কাসের রংমুখ, 
বিস্তারিত
শারদীয় বিকেল
ঝিরিঝিরি বাতাসের অবিরাম দোলায় মননের মুকুরে ফুটে ওঠে মুঠো মুঠো শেফালিকা
বিস্তারিত
গল্পের পটভূমি ইতিহাস ও বর্তমানের
গল্পের বই ‘দশজন দিগম্বর একজন সাধক’। লেখক শাহাব আহমেদ। বইয়ে
বিস্তারিত
ধোঁয়াশার তামাটে রঙ
দীর্ঘ অবহেলায় যদি ক্লান্ত হয়ে উঠি বিষণœ সন্ধ্যায়Ñ মনে রেখো
বিস্তারিত
নজরুলকে দেখা
আমাদের পরম সৌভাগ্য, এই উন্নত-মস্তকটি অনেক দেরিতে হলেও পৃথিবীর নজরে
বিস্তারিত