চাঁদ দেখা


 

বটগাছের ওই পাতার ফাঁকে চাঁদটি দিল উঁকি
দেখতে এলো দৌড়ে যত পাড়ার খোকাখুকি।
ছলিম চাচা, মন্টু মিয়া, ছাকেন আলীর দাদা
ছুটতে গিয়ে পিছলে পড়ে মাখলো গায়ে কাদা।
কলমি বুড়ি, টেপির নানি, গোপালশেখের খালু
তাদের সাথে জুটলো এসে মোল্লাবাড়ির কালু।

চাঁদ দেখেছি, চাঁদ দেখেছি... চেঁচায় সবাই মিলে
হট্টগোলে চমকে ওঠে গফুর গাজীর পিলে।
দৌড়ে আসে গফুর মিয়াÑ যায় যে আগে ভুঁড়ি
কা- দেখে দুষ্টুগুলো হেসেই হুড়োহুড়ি।

সন্ধ্যা যখন যায় গড়িয়ে চাঁদটি লুকায় মেঘে
চাঁদের দেখা না পেয়ে যায় গফুর মিয়া রেগে।
রাগের চোটে ভেংচি কেটে বাসায় ফিরে যায়
খুশির তোড়ে খোকাখুকু ঈদের কোরাস গায়। 


ভাইয়ের ভালোবাসা
রুহানকে ভাইয়ের ভালোবাসা বোঝানোর জন্যই মামার এই কৌশল। এ কথা
বিস্তারিত
শরৎ সাজ
শরৎ সাজ পাই খুঁজে আজ শিউলি ফোটা ভোরে পল্লী গাঁয়ের মাঠে
বিস্তারিত
মশারাজ্যে
প্যাঁপো লাফাতে লাফাতে বলল, ‘আমি আগেই সন্দেহ করেছিলাম, আপনি বিদেশি
বিস্তারিত
আবার শরৎ এলো
নদীর ধারে শাদা ফুলের দোলা,
বিস্তারিত
জাতীয় কবি
ছোট্টবেলায় বাবা মারা যান অসহায় হন ‘দুখু’ সংসারে তার হাল ধরা
বিস্তারিত
বিদ্রোহী নজরুল
চুরুলিয়ার সেই ছেলে তুমি  কবিতার নজরুল, রণাঙ্গনের বীর সৈনিক প্রাণেরই বুলবুল। কেঁদেছো তুমি দুখীর
বিস্তারিত