বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের আদ্যোপান্ত

মহাকাশ ছুঁয়েছে বাংলাদেশের বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১। এ স্যাটেলাইটের আদ্যোপান্ত নিয়ে ‘বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট দেখা এবং’ শিরোনামে বই লিখেছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের সচিব শ্যামসুন্দর সিকদার। তিনি এ প্রকল্পের কাজ সরাসরি পর্যবেক্ষণ করেছেন। ফ্রান্সের কান শহরে ফ্যাক্টরিতে একাধিকবার গিয়েছেন। এমনকি এই স্যাটেলাইট ছুঁয়ে দেখেছেনও। সম্ভবত এটিই বঙ্গবন্ধু কমিউনিউকেশন স্যাটেলাইট নিয়ে বাংলাদেশে প্রকাশিত প্রথম বই। এটি প্রকাশ করেছে য়ারোয়া বুক কর্নার। বইটিতে ১৫টি পর্ব রয়েছে। পড়ে মনে হবে পর্বগুলো প্রতিদিনের ঘটনা হিসেবে ভাগ করা। যেমন অষ্টম পর্বে এসে লেখক বলেন, ‘কান শহরে আজ তৃতীয় দিন। পূর্বপরিকল্পনামতো সকাল ১০টায় আমরা থেলাসের কন্ট্রোল সেন্টার ভিজিট করি। গতকালের মতোই আবার সেই পোশাক পরতে হয়। একই রকম নিরাপত্তাও অনুসরণ করতে হয়...’
স্যাটেলাইটের জন্য সোলার প্যানেল তৈরি। এটির তিনটি পার্ট। উৎক্ষেপণের সময় এগুলো ফোল্ডারে থাকবে। আবার যখন অরবিটে স্থাপিত হবে, তখন তিনটি পার্ট খুলে একটি হয়ে যাবে। এসব তথ্য-উপাত্ত যেমন এ বই থেকে পাওয়া যাবে, তেমনি পাওয়া যাবে ভ্রমণকাহিনির স্বাদ। এছাড়া আছে লেখকের একান্ত অনুভূতি। 
স্যাটেলাইটের গায়ে ‘জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু’ লেখাটি লিখছেন প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম। তার সচিত্র মুহূর্তটাও এ বইয়ে দেখতে পাওয়া যায়। এছাড়া মন কাড়ার মতো অনেক ছবির সংযোজন বইটিকে করেছে অনবদ্য। প্রচ্ছদ এঁকেছেন ঋতু চৌধুরী। দাম ৩৫০ টাকা। হ


সাহিত্যের বর্ণিল উৎসব
প্রথম দিন দুপুরে বাংলা একাডেমির লনে অনুষ্ঠিত হয় মিতালি বোসের
বিস্তারিত
নিদারুণ বাস্তবতার চিত্র মান্টোর মতো সাবলীলভাবে
এ উৎসবের অন্যতম আকর্ষণ ছিল ভারতের প্রখ্যাত পরিচালক নন্দিতা দাস
বিস্তারিত
পাখি শিকারিদের পা
অর্ধমৃত চোখটি পাহারা দিতে দিতে ক্লান্ত হয়ে পড়ছে অন্য চোখ।
বিস্তারিত
এমনই নিশ্চিহ্ন হবে একদিন
এমনই নিশ্চিহ্ন হবে সব চিহ্ন একদিন মুছে যাবে অক্ষত ক্ষতচিহ্ন, ছোপ
বিস্তারিত
পদ্মপ্রয়াণ
বিগত পুকুর ভরাট করে সূর্যমুখীর চাষ করেছি  সেদিন জলের টান ছিঁড়ে
বিস্তারিত
মেঘ যেখানে ছুঁয়ে যায়
অপরূপ প্রকৃতির অপার সৌন্দর্য উপভোগ করতে চাইলে সাজেক ভ্যালিতে দু-এক
বিস্তারিত