দাঁতের সুস্থতায় লালশাক

লালশাক রূপে যেমন মনোহারী, গুণেও তেমন কার্যকরী। ক্যালসিয়াম সমৃদ্ধ শাকের মধ্যে লালশাক অন্যতম। দাঁতের সুস্থতা, হাড় গঠন, গর্ভবতী এবং প্রসূতি মায়েদের দৈনিক ক্যালসিয়ামের চাহিদা পূরণে এ শাক খুব উপকারী।

গর্ভবতী অবস্থায় এর অভাবে মা ও শিশুর নানা রকম সমস্যা দেখা দেয়। বাড়ন্ত শিশুর ক্যালসিয়ামের অভাবে দৈহিক গঠন দুর্বল এবং হাঁটা বিলম্বিত হয়। লালশাক রক্তে কোলেস্টেরলের মাত্রা স্বাভাবিক রাখতে সহায়তা করে। ফলে হৃদরোগের ঝুঁকি কমায়।

লালশাকের অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট ক্যান্সার প্রতিরোধ করে। মস্তিষ্ক ও হৃৎপিণ্ডকে শক্তিশালী করতে এ শাকের ভূমিকা অনেক। এতে আছে প্রচুর পরিমাণে শর্করা, প্রোটিন, ভিটামিন বি১ ও বি২, ভিটামিন সি, ক্যারোটিন। 

ক্যালসিয়ামের অভাবে শিশুদের রিকেটস এবং বয়স্কদের অস্টিও পোরেসিস রোগ হয়। সুতরাং অন্যান্য ক্যালসিয়ামযুক্ত খাদ্যের পাশাপাশি সস্তা ও সহজলভ্য লালশাক খাওয়া উচিত। তাই ছোটবেলা থেকেই শিশুদের লালশাক খাওয়ার অভ্যাস করা দরকার।

সূত্র : ওয়েবসাইট


সফল উদ্যোক্তা আলিয়াহ ফেরদৌসি
চেনা গণ্ডির সীমানা ভেঙে বেরিয়ে আসছেন নারীরা। কৃষিকাজ থেকে শুরু
বিস্তারিত
রংপুর তাজহাট জমিদার বাড়ি ইতিহাস-ঐতিহ্যের
রংপুর মহানগরীর  দক্ষিণ পূর্বে অবস্থিত তাজহাট জমিদার বাড়ি। রংপুর মূল
বিস্তারিত
ডায়াবেটিক প্রতিরোধে স্টেভিয়া: চিনির চেয়ে
বিরল উদ্ভিদ স্টেভিয়া এখন বাংলাদেশে পাওয়া যাচ্ছে। দেশের বিভিন্ন এলাকায়
বিস্তারিত
কাউনিয়ায় বালু জমিতে বস্তায় বিষ
বালু জমিতে বস্তায় বিষ মুক্ত লাউ চাষ করে এলাকাবাসীকে তাক
বিস্তারিত
গফরগাঁওয়ে কেঁচো সার উৎপাদনে ভাগ্য
ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ের সাবেক মেম্বার আবুল হাশেম নিজেই কেঁচো সার (ভার্মি
বিস্তারিত
জোড়া শিকারি কুকুর উপহার
মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, তিনি ও উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ
বিস্তারিত