হজ তথ্য কর্নার

হজের পূর্বপ্রস্তুতি

 

 

হজযাত্রীদের বাংলাদেশ পর্বে করণীয়

 

- যথাসময়ে আপনার পিআইডি নম্বর জেনে নিন। 

- হজে যাওয়ার আগে ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয় থেকে প্রদত্ত পিআইডি কার্ড এবং কবজি বেল্ট সংগ্রহ করুন এবং গলায় ঝুলিয়ে রাখুন; এগুলো সবসময় সঙ্গে রাখতে হবে। 

- ঢাকা হযরত শাহজালাল (রহ.) বিমানবন্দর দিয়ে যারা হজে যাবেন তাদের হজযাত্রার তারিখের তিন দিন আগে হজযাত্রীদের আশকোনা হজ ক্যাম্পে আসতে হবে। হজ ক্যাম্পে নিজ খরচে খাওয়া-দাওয়া করতে হবে। 

- ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয় কর্তৃক প্রকাশিত হজ, ওমরাহ ও জিয়ারত সম্পর্কিত বই অথবা অন্য কোনো একটি নির্দেশিকা সঙ্গে রাখুন।

- হজবিষয়ক নির্দেশনাবলি ও করণীয় সম্পর্কে জানার জন্য হজ ক্যাম্পে অনুষ্ঠিত আলোচনা/প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণ করুন।

- আপনার হজ গাইডের নাম/এজেন্সি মালিকের নাম/বাংলাদেশ হজ অফিসের নিয়ন্ত্রণকক্ষের ফোন নম্বর জেনে নিন এবং বিমানে ওঠার আগেই আপনার হজ গাইডের সঙ্গে যোগাযোগ করুন। 

 

বিমানবন্দর/আশকোনা হজ ক্যাম্পে আগমনের পর করণীয় 

 

- আপনার হজ গাইডের পরামর্শক্রমে যারা সরাসরি মক্কা মোকাররামায় যাবেন  তাদের নির্দিষ্ট সময়ে ইহরাম বাঁধতে হবে। 

- যেসব হজযাত্রী সরাসরি মক্কায় গমন করবেন তারা যাত্রার ৬ ঘণ্টা আগে ইহরামের কাপড় পরবেন। যারা সরাসরি মদিনা শরিফ যাবেন তাদের ঢাকা হযরত শাহজালাল (রহ.) বিমানবন্দরে ইহরাম পরতে হবে না। 

- হজবিষয়ক নির্দেশনাবলি ও করণীয় সম্পর্কে জানার জন্য হজ ক্যাম্পে অনুষ্ঠিত আলোচনা/প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণ করুন।

- পাসপোর্ট, ভিসা, টিকিট, পিআইডি কার্ড ও কবজি বেল্ট সংগ্রহ করে নিজের কাছে রাখুন। 

 

বাংলাদেশ থেকে বিমানে আরোহণের পূর্বপ্রস্তুতি

 

- বিমানবন্দরের নির্দিষ্ট কাউন্টার অথবা আশকোনা হজ ক্যাম্পে আপনার গাইডের সহায়তায় ইমিগ্রেশন সম্পন্ন করুন। এ সময় পাসপোর্ট, ভিসা, টিকিট, প্রযোজ্য ক্ষেত্রে কর্তৃপক্ষের অনুমোদন/ছুটির কাগজপত্র সঙ্গে রাখুন।

- বিমানে ভ্রমণকালে ছুরি, কাঁচি, সুই, নেইল কাটার, লাইটার, পেস্ট, স্প্রে, ধারালো এবং তরল জাতীয় জিনিস হাত ব্যাগে নেওয়া যাবে না। 

- বিমানে ভ্রমণের সময় চাল, ডাল, শুঁটকি, রান্না করা খাবার, ফল মূল, তরিতরকারি বহণ করা যাবে না।

বিমানে ওঠার পর করণীয় 

 

- বিমান ক্রু/এয়ার হোস্টেজের সহায়তায় আপনার জন্য নির্ধারিত আসনে বসুন। 

- বিমান ভ্রমণ সংক্রান্ত নির্দেশাবলি অনুসরণ করুন। 

- আপনার মোবাইল/ ট্যাব/ল্যাপটপ বন্ধ রাখুন। 

- বিমানে সরবরাহকৃত খাবার গ্রহণ করুন। বিশেষ প্রয়োজনে বিমান ক্রু/এয়ার হোস্টেজের সহায়তা গ্রহণ করুন। 

- বিমানে ওজু করা যায় না। তায়াম্মুম করার জন্য বিমান ক্রু/এয়ার হোস্টেজের সহায়তা গ্রহণ করুন। 

- বিমানে টয়লেট ব্যবহার বিষয়ে বিমান ক্রু/এয়ার হোস্টেজের সহায়তা গ্রহণ করুন। 

- কোনো অবস্থায়ই বিমানে ধূমপান করা যাবে না। 

- আপনার হাতব্যাগটি বিমান ক্রু/এয়ার হোস্টেজের সহায়তায় মাথার ওপরে ক্যাবিনে রাখুন। 

- বিমান থেকে নামার আগে ক্রু/এয়ার হোস্টেজের সহায়তায় আপনার হাতব্যাগটি সংগ্রহ করুন। 

- বিমান থেকে নামার সময় তাড়াহুড়া করবেন না। 


ইসলামে নারীর অর্থনৈতিক অধিকার
ইসলামের আগমনের আগে গোটা পৃথিবী নারী জাতিকে অপ্রয়োজনীয় মনে করে
বিস্তারিত
বাইয়ে ঈনা ও প্রচলিত সমিতি
‘বাইয়ে ঈনা’ শব্দটির অর্থ হলো বাকি। বাইয়ে ঈনা মূলত দুই
বিস্তারিত
দেনমোহর নারীর অধিকার
দ্বিতীয় খলিফা হজরত ওমর (রা.) এর শাসনকাল। বিয়ের দেনমোহর নিয়ে
বিস্তারিত
আল্লাহর মাস মহররমের মর্যাদা
মহররমের রোজা শ্রেষ্ঠ নেকি ও সেরা আমল। ইমাম মুসলিম তার
বিস্তারিত
আশুরায় করণীয় বর্জনীয়
‘রাসুল (সা.) মদিনায় হিজরত করে ইহুদিদের আশুরার রোজা রাখতে দেখে
বিস্তারিত
আলেম বিদ্বেষের ভয়াবহ পরিণাম
উম্মাহর ক্রান্তিলগ্নে ঝড়ের রাতে মাঝ নদীতে একজন দক্ষ নাবিকের ভূমিকা
বিস্তারিত